পাতা:বিটকেলের দপ্তর - বিপিনবিহারী বসু.pdf/১২

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


è o বিটকেলের দপ্তর । ভাক্তার রায় বক্তৃতা করিবেন। আমি বলিলাম—“ষাব।’ সাঙ্কেব মহলে আলাপ করিবার জন্য বরাবর আমাৰ ভয়া নক ইচ্ছা ছিল । অামি ভাবিলাম এই সুবিধা । নিৰ্দ্ধারিত দিনে ও সময়ে বক্তৃতা শুনিতে যাইলাম। কিন্তু শুনিলাম যে বক্তৃত হইবাব বিলম্ব আছে। আমি তখন ৰাছিরের বারাণ্ডায় একখানি চৌকিতে বসিলাম। কিয়ৎ ক্ষণ পরেই দেখি বন্ধু হাজির । বন্ধুর সঙ্গে একটি অপুৰ্ব্ব জীব ছিলেন । র্তার চসম খান “কারে” ঝুলছে আর ফি মিনিটে দশবার বাম চক্ষুতে লাগিতেছে আৰ খুলিয়া পড়িতেছে আর মুখ দিয়ে এডে ইংবিজি কথা অনর্গল বাহির হই তেছে । আর সেই পাকাটির মতন “রলা রল৷” প। দুটি রকম রকম কায়দায় বক্রভাবাপন্ন ও সোজা হইতেছে। হঠাৎ বোধ হয়, “ধন্থষ্টঙ্কার” হইয়াছে। বন্ধু তার সঙ্গে আমার আলাপ করিয়া দিলেন আবে বলিলেন “এই সভার ইনি হচ্চেন ডান হাত কিম্ব প। * আমি ও হাসিতে হাসিত্তে তার সঙ্গে কেতামাফিক্‌ হস্ত মৰ্দ্দন কবিলাম। তাহার अरबहे बङ्ङा आब्रड इहेन । इनि आमाग्र बिखाना कबिলেন ,“আপনি ভিতরে যাবেন না ?” আমি বলিলাম যে “হাওয়ার বিষয় অনেকটা জানি । বিশেষ অfমাব বাড়ী গঙ্গার ধারে । আবে তা ছাড়া অামাব একটু অশ্ন থ বোধ হইতেছে, তাই বাহিরে হাওযায় বসিয়া আছি।” তিনি হাসিয়া বলিলেন যে, ‘গঙ্গার ধাবে বাড়ী বলে জানেন আপনি বাতাসের বিষয় সমস্ত, এমন কথন মনে করবেন না । বাতাসে কত কি আছে জানেন ? বাতাসে অম্লজান