পাতা:বিটকেলের দপ্তর - বিপিনবিহারী বসু.pdf/১৭

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


অtশ্চৰ্য্য স্বপ্নদর্শন । > を আঁছে, সবগুলো বেবিয়ে এলেও আমরা ভয় করিনি । অামি তাহাকে জিপ্তাস করিলাম লোকটা কে ? সে সলিল “সম্পাদক” । তখন আমি বলিলাম যে এ রকম করিয়া একজন সম্পাদককে মীর অতিশয় গর্হিত কাজ । আমি এইমাত্র বলিষাছি আর পাঁচ ছয় জন বলিয়া উঠিল *একে ও মাবে, এ নিশ্চয় এব লোক” । আমি তখন নক্ষুত্রবেগে ছুটতে লাগিলাম। বলা বাহুল্য আমায় কেচ ধরিতে পারিল না । আমার যখন হাপানি কিছু থামিয়া আসিল, তখন দেখি আমি সিদ্ধেশ্বরীর মন্দিrরব সমৃrখ । দেযাrল লেখা বহিষাrছ “শঙ্কবের হৃদয মাঝে কালী বিবাজে ” দেখিলাম পূণ্যস্থান, সেখানে প্রহারের ভয় নাই . DDB SBBBBBS BBBS BB DDD DBBS BB SDDS করিয়া ছুটতে লাগিলাম। কিন্তু ছপা ন যাইতে যাইতে দেখি সামনে “নশী’ । নশী সেই ভোর বেলা একটা পাহারাওয়ালার স্কন্ধদেশ ধরিয়া হাসিতে ইসিতে চলিয়াছে আমায় দেখিয়াই নগী অট্টহাস্ত হাসিয়া বলিল কি বিটকেল যে ? তুমি কবে এলে ? এত হাপাচ কেন ? তোমাল হয়েছে কি ?” আমি বলিলাম একটু থামুন স্থাপিয়ে পডেছি ক্রমে আপনার সব কথার জবাব দিচ্চি। কিছুক্ষণ পরে সমস্ত কারণ খুলিয়। বলিলাম। “নশী” বলিল "ঐ ভয়ে আমি সম্পাদক ছেড়ে দিইছি”। অামি বলিলাম “মশাই সাধু পুরুষ’ । তাছার পর জিজ্ঞাসা করিলাম আপনাৰ “মেলা’ ” চলছে কেমন ? আমি প্রায় ৪ বৎসর হইল মেলার কোন