পাতা:বিদ্যাসাগর-প্রবন্ধ - শিবাপ্রসন্ন ভট্টাচার্য.pdf/৪৩

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে চলুন অনুসন্ধানে চলুন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা হয়েছে, কিন্তু বৈধকরণ করা হয়নি।

বিদ্যাসাগর-প্রবন্ধ।

৩৯

সাহসিকতার কার্য্য নিজ কর্ত্তব্য বোধে বিদ্যাসাগর মহাশয় কত যে করিতেন তাহা সমস্ত বর্ণনা করা সাধ্যাতীত। এই প্রকার ব্যবহারের ভালমন্দ বিচার করিতে হইলে যে উদ্দেশ্যে সেই প্রকার অমানুষিক ব্যবহার করা হয়, অসাধারণ উপায় অবলম্বন করা হয়, তৎপ্রতি দৃষ্টিপাত করা আবশ্যক তাহারই বিবেচনা করা কর্ত্তব্য। বিদ্যাসাগর মহাশয় যদি মাতা ও ভ্রাতার মনোকষ্ট নিবারণ মানসে এই অসীম সাহসিকতার কার্য্য না করিয়া কোন অপকৃষ্ট স্বার্থসিদ্ধির জন্য করিতেন তাহা হইলে তাহাকে, একগুঁয়ে বলতে হয়, গোঁয়ার বলিতে হয়, যাহা বলিতে হয় বলুন তাহাতে আমি দুঃখিত নহি। কিন্তু তাহার উদ্দেশ্য সৎ,পবিত্র, মহৎ এবং তাঁহার কৃতকার্য্য সেইরূপ উদ্দেশ্যের সাধনোপায় সুতরাং তাহাও কখন গোঁয়ারতামি একগুঁয়েমি প্রভৃতি কলঙ্কিত আখ্যারযোগ্য নহে।

 অপর একটা একগুঁয়েমির কথা বলি। যে সময় তাহার মেট্রপলিটান বিদ্যালয়ে