পাতা:বিবিধ প্রবন্ধ (প্রথম খণ্ড) - গিরীন্দ্রকুমার সেন.pdf/৯৩

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে চলুন অনুসন্ধানে চলুন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।

দীর্ঘ সুত্ৰতা । デ? তাহা ফেলিয়া ব্যাখা আলহেস্তব ফল নাও হইতে পাবে। যে সকল বিষযে বিবেচনা করি যা অদ্য ব্যস্ত হইয়া মত প্ৰকাশ করিব, কল্য হয়ত আব্ব একটা বিষয় অবগত হওযার, অন্ত মত প্রকাশ কবিতে হইবে। যে কাৰ্য্য, কলেব পুতুলেব মত সম্পাদিত কবিতে হয় না, সে কৰ্ম্মে কৃতকাৰ্য হইতে স্থাইলে তিনটী বিষয় আবশ্যক, যথা - আকাজক্ষা অনুযায়ী কিরূপ ফল আশা কবা। যাইতে পাবে, কি উপায়ে অবলন কিবা উচিত, এবং সিদ্ধান্তে উপনীত হইয়া সেই উপায় মত কার্যাবস্তু কবা। অতএব আকাঙ্ক্ষা-অনুযায়ী ফলসম্বন্ধে, অথবা উপায় সম্বন্ধে, অথবা কাৰ্য্যাবস্ত সম্বন্ধে, কিছু সমষ লওযা দোষেব বিষয নহে। অনেক সময় কৰ্ত্তব্য ও ন্যান্যসঙ্গত স্বার্থেব মধ্যে দ্বন্ধ উপস্থিত হয়, অথবা দুই প্ৰকাব কৰ্ত্তব্যেব মধ্যে কোনটী অগ্ৰে সম্পাদন কবি উচিত, এ সম্বন্ধে সিদ্ধান্তে উপনীত হইতে অধিক সময় আবশ্যক হয়। এরূপ স্থলে বিলম্ব কিবা অর্থে আলস্য বুঝায় না । মহামতি কম্পতেব মতে ‘কাজ কবিবাব নিমিত্ত চিন্তা কবিবে, অর্থাৎ চিন্তা কৰ্ম্মেব মূলীভূত হওয়া উচিত, কিন্তু কৰ্ম্ম সম্পাদনে যেন নির্দয়ত বা আত্মীয়তাব অভাব পাবিলক্ষিত না হয ।” অতএব ফল লাভ কবিতে অধৰ্ম্মসঙ্গত কোন উপায় অবলম্বনেব। আবশ্যকতা নাই। এ কাবণে ধৰ্ম্মসঙ্গত উপায় অবলম্বন কবিতে যদি বিলম্ব ঘটে, তাহ অবশ্য আলস্যসম্ভত নহে। অনেক সময় হয় তা অতি বুদ্ধি বশতঃ উপায় নিৰ্দ্ধাবণে বিলম্ব ঘটে । অতি বুদ্ধিমানেবা “বাশ বনে ডোম কানাব” মত হইয়া যান। ইচ্ছাব বশেই মানব কৰ্ম্ম কবিতে উৎসুক হয়, এবং বিবেক মনুষ্যকে সু ও কু কাৰ্য্যেবা ভেদ কবিতে আদেশ কবিতেছে, কিন্তু ভবিষ্যতে কি ফল হইবে, ইহা চিন্তা কবিবাব নিনিত্ত অধিক সময় ক্ষেপণ কবিতে কোন আদেশই দেন না । এরূপ অনেক বিপদ আছে যেখানে আমাদেবী বিবেক ও সদস্যুৎ বিবেচনা কবিতে সময় দেয না । হয়ত কোন পদ্বমাত্মিীয়েক