পাতা:বিভূতি রচনাবলী (অষ্টম খণ্ড).djvu/২১৪

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


বিভূতি-রচনাবলী טוכל ক্ষেমদাস হাসিমুখে বঞ্জেন--ভগবান কার উপর নিষ্ঠুর হবেন ? সবই তো তিনি। নিজেই নিজের লীলায় তন্ময় হয়ে আছেন বিভিন্ন রূপে । তিনিই সব । সে জ্ঞান যেদিন হবে সেদিন ওই নিকৃষ্ট লোকের নিকৃষ্ট জীব দেখেও বলে উঠবে আনন্দে-তেজো যৎ তে কল্যাণতমং তত্তে পখামি, যেহিসাবসে পুরুষঃ সোহহমশ্মি — ক্ষেমদাস চলে গেলেন । যাবার সময় বল্পেন-বৃন্দাবন থেকে ঘুরে আসি । তোমার সঙ্গে আবার শীঘ্রই দেখা করবো— একদিন চলো সেই সন্ন্যাসিনীর কাছে যাবো । পুষ্প স্থির ভাবে বসে রইল শৈলশিখরে। এখানে তার যতুদ আছে, কত জন্মের প্রিয় সাথী সে । তাকে ফেলে কোথায় কোন লোকে গিয়ে স্থখ পাবে সে ? একটি গোয়ালান্ধ মেয়ে দুধ দুয়ে নিয়ে আসচে বাজারে। নরনারী প্রদীপ ভাসাচ্চে গঙ্গাবক্ষে । দূর থেকে আলো দেখা যাচ্চে জলের ওপর । § বুড়োশিবতলার পুরানো ঘাটের সামনে গঙ্গাবক্ষে পালতোলা নৌকোর দল চলেচে । গোধুলির আব ছায়া আকাশে শুভ্রপক্ষ বকের দল উড়ে চলেচে ওপারে হালিসহরের শু্যামান্বন্দরীর ঘাটের দিকে । প্রাচীন দেউলমন্দিরের চুড়া সান্ধ্য দিগস্তের বননীলরেখায় এখানে ওখানে যেন মিশে अन्दिछ । পুষ্প ঘাটের রানার বসে ক্ষেমদাসের সঙ্গে কথা বলছিল। ক্ষেমদাস বৃন্দাবন থেকে এইমাত্র ফিরেচেন। জ্যোৎস্নারাত্রে যমুনাতীরে কিছুক্ষণ বসে ছিলেন চীরঘাটের কাছে। আরতি দর্শন করবার পরে। মন ভুমানন্দে বিভোর। পুষ্প বল্লে—কবি, স্ফটিকের কথা কি বলছিলেন ? ক্ষেমদাস গঙ্গার দিকে আঙল দিয়ে দেখিয়ে বল্পেন—ওই দ্যাথো, রাঙা আকাশের ছায়া পড়েচে জলে । জল যদি ঘোলা হোত, আকাশের ছায়া পড়তে না। স্ফটিককে সম্পূর্ণ স্বচ্ছ ও নির্মল হতে হবে, তবে আলো তার মধ্যে দিয়ে আসবে। —অর্থাৎ ? —অর্থাৎ আত্মাতে যদি এতটুকু ক্রটি থাকে কোথাও, তবে ভগবানের আলো তার মনে নামে না। সম্পূর্ব নির্মল স্ফটিক হওয়া চাই, এতটুকু খুৎ থাকলে চলবে না। —ভগবানের দাবি এত বেশি কেন ? —উপায় নেই । ভগবানের আলো যদি মনের দর্পণে ঠিক অখণ্ড ভাবে পেতে কেউ চায়, তার জন্তে এই ব্যবস্থা। লোকে মুখে বলে সাধুতা ও পবিত্রতার কথা । কিন্তু জেনে এ দুটি বস্তু অতি ভীষণ, ভয়ঙ্কর । _ পুষ্প বল্লে—বুঝতে পারচি কিছু কিছু। নিজের জীবনে দেখচিনে কি ? তবুও বলুন। —সাধুতা, পবিত্রতা—শুনতে খুব ভালো। কিন্তু এদের আবির্ভাব বিষয়ী লোকের পক্ষে কষ্টকর। কামনাঙ্কলুষিত আধারে ভগবানের জ্যোতি অবতরণ করবে কি ভাবে ? এ জন্তে আধার-শুদ্ধির প্রয়োজন। যাকে ভগবান কৃপা করেন, শুদ্ধ আধার করে নিতে তার সব কিছু