পাতা:বিভূতি রচনাবলী (অষ্টম খণ্ড).djvu/৩৫৪

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


vბჯ) तिङ्कडि-बळ्नांवत्रौ বুড়ী বলিলাম বটে কিন্তু সুলোচনার মা সে-যুগে বুড়ী ছিল না। কতবার ভাবিতাম প্রকাশদীকে বলি, উহারা ফাকি দিয়া আপনার কাছে টাকা লইতেছে, আপনি যখনই যা চায় তা দেন কেন ? কিন্তু প্রকাশদাকে শ্রদ্ধা-সম্মান করিতাম, কখনও সাহস করিয়া কথাটা বলিতে পারি নাই । \5) এখানে একদিন মুলোচনা আসিল তাহার মায়ের সঙ্গে । দেখিয়া অবাক হইয়া গেলাম। রূপসী বটে। পাড়াগ হইতে , কয়েক মাস মাত্র আসিয়াছি, অমন রূপ কখনও দেখি নাই। বছর ষোল কি সতের বয়স, পিঠে দীর্ঘ কালো চুলের বিমুনি দোলানো, যেমন চোখ তেমন ধপধপে গায়ের রং, তেমনই নিটোল স্বাস্থ্য, অনিন্যসুন্দর মুখশ্ৰী। বাড়ীর মেয়েদের সঙ্গে স্বভাবতই তার যথেষ্ট ভাব হইয় গেল। তার পর প্রায়ই আসিতে লাগিল। বিশেষ করিয়া প্রকাশদার আসিবার সময়টাতেই আসে এবং বেশির ভাগ কথাবার্তা বলে প্রকাশদার সঙ্গেই। প্রকাশদ উপস্থিত থাকিলে সেই যে তাহার চেয়ারের পিছনটি ধরিয়া দাড়ায়, তিনি যতক্ষণ এ বাড়ীতে থাকেন, বড় একটা অন্য কোথাও নড়িতে দেখি নাই । প্রকাশদ উঠিয়া চলিয়া গেলে সুলোচনা আমাদের বড় বিরক্ত করিত। হয়তো বা আমাদের সে মানুষ বলিয়াই মনে করিত না, কে জানে। টেবিলে বসিয়া পড়িতেছি, মুলোচনা হঠাৎ আসিয়া বইখান টানিয়া লইয়া গেল, নয়তো পিছন হইতে আসিয়া দুই হাত দিয়া চোখ চাপিয়া ধরিল, নয়তে ভূতের গল্প শুনিবার আবদার ধরিয়া বসিল । পড়িতে দিবে না কিছুতেই ; পড়া থাক, তাহার সঙ্গে ছাদে কে যাইবে ? ডলির পুতুলের শুভ-বিবাহ এখনই ছাদে অনুষ্ঠিত হইবে তাহার পুতুলের সহিত—ইত্যাদি। এক-এক দিন এক-এক রকমের ব্যাপার । কিন্তু প্রকাশদ থাকিলে মুলোচনা এ রকম করিত না। তখন তারু অন্ত মূৰ্ত্তি। ধীর, স্থির বেশি হাসিত না, বেশি বকিত না, কেমন যেন সলজ্জ, সকুণ্ঠ চোখমুখের ভাব, কতদিন দেখিয়াছি। প্রকাশদা মুলোচনাকে ‘সু’ বলিয়া ডাকিতেন বলিয়া আমরাও সবাই তাকে ‘সু’ বলিতাম। একদিন স্বলোচনা তাহাতে আপত্তি করিল। শরৎকে বলিল—প্রকাশদ বা বলেন, তোমরাও তাই বলবে কেন ? ও নামে ডেকে না, কানে ভাল লাগে না।---আমার বড় রাগ হইল। স্বলোচনার চাল-দেওয়া ধরনের কথাবাৰ্ত্তা আমার সহ হইত না—আমার মনে হইত মেয়েটি অত্যন্ত গৰ্ব্বিত ও চালবাজ। রাগের ঝোকে বলিলাম—তাহলে তুমিও আমাদের সঙ্গে মিশতে এসে না। স্বলোচনার সহিত আমাদের এ ধরনের খুনলুটি ঝগড়া প্রায়ই চলিত। তবে সে যে সব সময়ে আমাদের বাসায় আসিত তা নয়, মাসের মধ্যে দশবারো দিনের বেশি না । প্রকাশদা এখানে যে-যে দিন আসিবেন, এমন দিন ছাড়া স্বলোচনার