পাতা:বিভূতি রচনাবলী (অষ্টম খণ্ড).djvu/৩৬৬

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


বিভূতি-রচনাবলী فر8b প্রতি সে হিংসার ভাব করুণ ও সহানুভূতিতে পরিণত হইয়াছে। বেচারীদের পয়সাগুলা অনর্থক नष्ठे झुंझेण । ছু একদিন কুটিয়া গেল । চারিদিকে চাহিয়া দেখি গ্রামের মধ্যে ভীষণ জঙ্গল, থানা ডোবা বঁাশবন । শীতের শেষ, স্ত্রী একদিন আমায় আসিয়া বলিলেন, ওগো, কত চালতে পড়ে আছে বনের মধ্যে, দেখবে এস আমার স্ত্রী শহরের মেয়ে। পাড়াগায়ের বনে বাগানে পাকা চালতে শীতকালে পড়িয়া থাকা বিশেষ আশ্চর্য্যের কথা নয়, তাহা না বলিয়া তাহার আনন্দটাকে আরো ঘনীভূত হইবার অবকাশ দিবার জন্য দুজনে বনের দিকে ছুটিয়া গেলাম। —ওই দেখ এসে, ঢোক এই বনের মধ্যে । —ও তাই তো ! এ যে অনেক দেখছি! —এক একটা চালতের দাম কলকাতায় দু পয়সা—আর দেখ এখানে কিনতে হয় না। কুড়িয়ে নেব—হঁ্যাগো, কেউ কিছু বলবে না তো ? —কে আবার কি বলবে । বাগানে চলতে পড়ে আছে, কুড়িয়ে নেবে তা কে কি বলবে এসব পাড়াগায়ে । এমন সময় আমার স্ত্রী বলিলেন—ও কে গেী ? চাহিয়া দেখি একটি বাইশ-তেইশ বছরের যুবক একটা ঝুড়ি হাতে ওদিক হইতে বন ঠেলিয়া গাছতলায় সম্ভবত চলিতে কুড়াইতে আসিতেছে। আমাদের দুজনকে দেখিয়া সে একটু সমীহ করিয়া থমকিয়া পড়িল । আমি তাহাকে আশ্বাস দিবার জন্য বলিলাম—চালতে গাছ কি তোমাদের ? দুটাে চালতে কুড়,চ্ছি কিন্তু— যুবক হাসিয়া বলিল—ইউ মে টেক, নট মাই টি । তাই তো, এ দেখিতেছি ইংরেজি-জানা লোক, নিতান্ত গ্রাম্য লোক নয় তাহা হইলে । যদিও আমার সঙ্গে ইংরেজি বলার সার্থকতা কি তাহা বুঝিলাম না। বলিলাম—আপনার বাড়ী এখানেই বুঝি ? --নে, আই ওয়াজ এ ক্লার্ক য়্যাট ক্যালকাটা, নাউ আই য়্যাম হিয়ার। ' —বেশ বেশ, তাহলে আমাদের মতই অবস্থা দেখছি। জাপানী বোমার ভয় ? যুবক হাসিয়া চুপ করিয়া রহিল, ই ন কিছুই বলিল না। { বৈকলের দিকে ছোকরার সঙ্গে তাল করিয়া আলাপ হইল। জানিলাম, তাহার নাম স্বরেশ। আমার ভগ্নীপতির বাড়ীর পাশে যে মুখুজ্যেবাড়ী, সে সেই বাড়ীর রামু মুখুজ্যের খালক। মুখুজ্যেবাড়ীর অন্যান্ত লোকে কলিকাতায় ও কলিকাতার বাহিরে বিভিন্ন স্বানে চাকরি করে, কখনও বাড়ীঘরে না আসার দরুন পৈতৃক স্ববৃহৎ দোতলা বাড়ী ভাঙিয়া যাইবার উপক্রম হইয়াছিল, বৰ্ত্তমানে সেই বাড়ীর রামু মুখুজ্যেই গবর্নমেন্টের দপ্তরখানায় কেরানীগিরি হইতে অবসর, গ্রহণ করিয়া বাড়ী আসিয়া তিন বৎসর যাবৎ বাস করিতেছেন। গোট