পাতা:বিভূতি রচনাবলী (অষ্টম খণ্ড).djvu/৪০৩

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


বিধু মাষ্টার b"Q —ত কি জানি দিদিমণি, এই তো বেরুল এর ভেতর থেকে—কি জানি। —দেখি দেখি, দাও তো ? 雷 বাড়ীতে কেউ নেই, মামা কোথায় বেরিয়েছে, সে শয্যাগত মামীর কাছে রুমালে-বাধা টাকা এনে বললে—মামীম, এ টাকা তুমি রেখেছিলে ছোলার কলসীতে ? বিমলার তখন ভীষণ জর, গা তেতে তপ্ত থোলার মত। সে তাড়াতাড়ি জর-অবস্থায় উঠে হাত বাড়িয়ে বললে—দে, আমার টাকা— অতুল সেই সময়, ঘরে ঢুকে সব শুনে বলল—তুমি শোও, শোও-টাকার জন্তে কি ? শুয়ে পড় । —আমার এই টাকাগুলো রেখে দেবে ? —হঁ্যা, আমি রেখে দিচ্ছি, রেখে দিচ্ছি । —দাড়াও ক টাকা গুণে রেখে দিই। এক, দুই, তিন—এই আঠার টাকা সাত আনা । কোথায় রেখে দেবে ? * —আমি ঠিক জায়গাতে রেখে দেব। তুমি নিজের বুদ্ধিতে টাকা রাখতে গিয়ে হারিয়েছিলে তে টাকাটা ? বিন্দি না দেখলে ঝি মাগী চক্ষুদান করেছিল আর কি ! আমার কাঠের বাক্সটাতে রেখে দেব, কেমন ? —রেখে দাও। তুমি যেন খরচ করে ফেলো না তা বলে ? ও আমার টাকা, আঠার টাকা সাত আনা—মনে করে রেখে দিলাম । তার পর বিমলার অসুখ ভীষণ বেড়ে গেল। অতুলের পাড়াগায়ের ছোট সংসার—মেটে ঘর, খড়ের চালা। সংসারে আছে মাত্র ভাগ্নী আর স্ত্রী। আর দ্বিতীয় পুরুষমানুষ নেই। সে পড়ে গেল মহা মুশকিলে । রোজ মহকুমা থেকে ঘোড়ার গাড়ী ভাড়া করে ডাক্তার আনতে হয়। খরচ যা পড়ে, তাতে সামান্ত খাজনাপত্রের আয়ে কোনমতেই কুলোয় না, কদিনেই বেশ কিছু ঋণগ্রস্ত হতে হল। বিমলার জ্ঞান-চৈতন্য নেই। যখন একটু জ্ঞান হয়, তখন কেবল বলে—জল খাব, আমায় জল দাও—এক ঘটি জল দাও— তার পরেই আর জ্ঞান থাকে না। ডাক্তার বললে, চেষ্টার তো ক্রটি করেছি নে অতুলবাবু, তবে এই সোমবারটা ন কাটলে কিছু বলতে পারব না। 疊 —ও বাচবে তো ডাক্তারবাৰু? —কি করে বলি বলুন, সবই ভগবানের হাত । কাল একটা ইনজেকশন দেব ভাবছি। ইনজেকশনের কথা শুনে বিমল ভয় পেয়ে গেল। ইনজেকশন করলে ভারি নাকি লাগে, গা ফুড়ে ওষুধ দেওয়া, সে নাকি বড় খারাপ কথা। অতুল নানারকমে তাকে বুঝিয়ে রাজী করালে । 尊