পাতা:বিভূতি রচনাবলী (অষ্টম খণ্ড).djvu/৭৯

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


סל একটু পরে পুপ এল। বল্লে—কি করছিলে ? যতীন তার দিকে সন্দিগ্ধ দৃষ্টিতে চেয়ে বল্পে-পুষ্প, তুমি মায়া ? মিথ্যে ? —সে কি যতীন-দা ? ব্যাপার কি ? —এ সব ভেদ্ধি ? তুমি ভুল বুঝিয়েচ পরলোক-টরলোক । আমরা মরে ভূত হয়ে আছি । চক্রপথে এখনো আমাদের অনেক ঘুরতে হবে । 费 পুষ্প খিল খিল করে হেসে বল্লে—এ তত্ত্ব তুমি জানলে কোথায় ? নতুন কথা তোমার মুখে | —হাসি নয়। আমার মনে শাস্তি নেই। এক মহাপুরুষ এসে অদ্ভুত দর্শন করিয়ে গেলেন আমার গা ছুয়ে । এখন বুঝেচি সব মিথ্যে । --কিছুই বোঝোনি । বুঝতে অনেক দেরি । ভগবানের দয়া যেদিন হবে সেদিন বুঝবে । এ আমি অনেকদিন জানি । কিন্তু তাতে কি ? এতেই আনন্দ । যুগে যুগে আসবো যাবো, এর শোক-দুঃখেও আনন্দ খুজে নেবো । লালাসঙ্গী হয়ে থাকবো তার। তিনিই খেলা করচেন, খেলুড়ে না পেলে খেলা করবেন কাকে নিয়ে ? সবাই ব্ৰহ্ম হয়ে বসে থাকলে সব শূন্ত, নিরাকার । তুমি নেই, আমি নেই, জগৎ নেই—ইহলোক নেই, পরলোক নেই। সত্যি কথা। কিছুই নেই–আবার সবই আছে। খেলা করো না দুদিন, যতদিন তিনি খেলাবেন । —তারপর ? —তারপর সকলের যা গতি, তোমারও আই । তাতে ভক্তি রাখে, সব হবে । তুমি তো তুমি, আমি তো আমি-লক্ষ লক্ষ বছর ধরে অতি উচ্চ স্তরের আত্মা, যারা দেব-দেবী হয়ে গেছেন–র্তারাও তাই । ---সব অনিত্য । —তুমি এসব কি করে জানলে ? —করুণাদেবী সেদিন বলেচেন। ও নিয়ে মন খারাপ কোরো না । শু শেষ অবস্থার কথা । যখন সে অবস্থা আসবে, তখন আর বসে ভাবতে হবে না । তিনিই পথ দেখিয়ে দেবেন। এখন চলো, আশাবোঁদির বড় বিপদ, কিছু করতে পারি কিনা দেখা যাকৃ— যতীন ব্যস্ত হয়ে বল্লে—কি-কি-কি বিপদ ? আশার ? কি হয়েচে ? পুষ্প কৌতুকের হাসিতে ভেঙে পড়লে যেন। বল্লে—ঐ ! এত বাসনা এত মায়া যার মধ্যে এখনও, তিনি জগৎকে উড়িয়ে দিয়ে ভগবানে মিশে যেতে চান ! সন্ন্যিাস ভেল্কি দেখালে কি হবে, ও অবস্থা তোমার-আমার জন্যে নয় । পৃথিবী ছেড়ে এসে এখনও তার বঁাধন কাটাতে পারেন না, উনি বড় বড় বুলি ঝাড়েন । —সন্ন্যাসী তাই বলছিলেন, সময় হয় নি । wo —সময় শুধু হয়নি যে তা নয়—হোতে চের দেরি। ও নিয়ে মাথা ঘামাবে না বলে দিচ্চি।