পাতা:বিভূতি রচনাবলী (একাদশ খণ্ড).djvu/১৮৫

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


#न्ॐीडेि S$6. সঙ্গে-সঙ্গে কৌতুহল হইল খুব। ফিল্ম-স্টাররা কি-ভাৰে কথা বলে, কেমন চলে, কি খায়, কি করে—সাধারণ লোকে ইহার কিছুই জানে না। তাহার সৌভাগ্য বলিতে হইবে যে, তিনি সে সুযোগ পাইয়াছেন। গিয়া অনঙ্গকে গল্প করিবার একটা জিনিস পাইলেন বটে। অনঙ্গ গুনিয়া অবাক হইয়া যাইবে । - মেয়েটি এবার বেতের টেবিলের ওপারে দাড়াইয়া হাতজোড় করিয়া নমস্কার করিল— কোনো কথা বলিল মা । নিৰ্ম্মল বলিল—বন্ধন মিল মিত্র। মেয়েটি উদাসীন ভাবে বলিল—হঁ্যা, বসি ! আপনাদের বন্ধু চা খান তো ? ও রসি•••রসি ! গদাধর বলিতে গেলেন, তিনি এখন আর চা খাইবেন না—কিন্তু সঙ্কোচে পড়িয়া কথা বলিতে পারিলেন না। মেয়েটির আহবানে একটি ছোকরা চাকর আসিয়া সামনে দাড়াইল । মেয়েটি বলিল—ওরে রসি, চা—এক, দুই, তিন পেয়ালা । হাসিয়া নিৰ্ম্মল বলিল,—কেন, চার পেয়ালা নয় কেন ? মেয়েটি বলিল—আমি একবারের বেশি চা খাইনে তো। অামার হয়ে গিয়েচে বিকেলে । কর্তৃত্বের এমন দৃঢ় গাষ্ঠীৰ্য্যের স্বরে কথা বাহির হইয়া আসিল মেয়েটির মুখ হইতে, যে, তাহার প্রতিবাদে আর কোনো কথা বলা চলে না। অল্পক্ষণ পরেই মেয়েটি ঘরের মধ্যে চলিয়া গেল এবং নিজের হাতে দুখানি প্লেটে কেকৃ, বিস্কুট, কমলালেবু ও সন্দেশ আমিয়া বেতের গোল টেবিলটিতে রাখিয়া বলিল—একটু খেয়ে নিন ! শচীন বলিল—আমার ? মেয়েটির মুখে হালি কম—আধ-গম্ভীর মুখেই বলিল—স্থ-বার হয়ে গিয়েচে । আর হবে মা । নিৰ্ম্মল বলিল—এই আমরা ভাগ করে নিচ.এসে শচীন । নিৰ্ম্মলের দিকে চাহিয়া মেয়েটি বলিল—না, ভাগ করতে হৰে না, আপনারা খেয়ে নিন— চা আনি । J. গদাধর ভাবিলেন, এ-ধরণের মেয়ে তিনি কখনো দেখেন নাই। বিনয়ে গলিয়া পড়ে না, অথচ কেমন ভজতা ও কর্তব্যজ্ঞান ! কিন্তু শচীনের উপর এতটা আধিপত্য কেন ? বোধহয় অনেক দিনের আলাপ—বন্ধুত্বে পরিণত হইয়াছে। সে-ক্ষেত্রে এরকম হওয়া সম্ভব, স্বাভাবিক বটে। * সেই ছোকর চাকরাট চা অমিয়া দিল—ট্রে’র উপর বসানো তিনটি পেয়ালা—মেয়েটি নিজের হাতে ট্রে হইতে উঠাইয়। পেয়ালাগুলি টেবিলে সাজাইয়া দিল—আগে গদাধরের সামনে, তারপরে নির্ণলের ও সবশেষে শচীমের সামমে। BBBBB BBDSBBS BBD DB S BDD DDBB uB BBB BB DB BBDSAAAA