পাতা:বিভূতি রচনাবলী (একাদশ খণ্ড).djvu/২০৪

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


Sb^8 विफूडि-ब्रध्नांबजौं ভড়মশায় ঘাড় নাড়িয়া বলিলেন—না, সে-সব ছিল না। ভয় নেই কিছু। নইলে কি আমি চুপ ক'রে বসে থাকি বৌমা ? তিমি হারিয়েও যান নি বা অন্য কোনো কিছু না। অনঙ্গ অনেকট আশ্বস্ত হইয়া বলিল—যাকৃ, তবুও বঁচি গেল। কাজে গিয়ে থাকেন, আসবেন-এখন—তার জন্যে ভাবনা নেই, কিন্তু এত রাত হয়ে গেল, বাড়ীতে একটা কাজ, তাই বলচি । ভড়মশায় গম্ভীর হইয়া বলিলেন—একটা কথা মা, বলি তবে । ভেবেছিলাম, বলবো না—কিন্তু না বলেও তো পারিনে । অনঙ্গ ভড়মশায়ের মুখের ভাবে ভীত হইয়া বলিল—কেন, কি হয়েচে ? কি কথা ? —আমি বলেচি, এ-কথা যেন বাবুর কানে না ওঠে। আপনাকে মেয়ের মত দেখি, তেরো বছরের মেয়ে যখন প্রথম ঘর করতে এলেন, তখন থেকে দেখে আসচি, কথাটা না বলেও পারিনে। উনি আর সে বাবু নেই। এখন কোথায় গিয়ে যে রাত পৰ্য্যস্ত থাকেন, সকাল-সকাল আড়ত থেকে বেরিয়ে যান -সন্দের আগেই চলে যান এক-একদিন । তারপর শুধু তাই নয়, এ-সব কথা না বললে, বলবেই-বা কে, আমি হচ্চি পুরোনো লোক...এক-কলমে আজ পচিশ বছর আপনাদের আড়তে কাজ করচি আপনার শ্বশুরের আমল থেকে। আজকাল ব্যাঙ্কের টাকা-কড়িরও উনি গোলমাল করচেন। সেদিন একটা একহাজার টাকার চেক্‌ ভাঙাতে গেলেন নিজে—কিন্তু খাতায় জমা করলেন না। নিজের নামে হাওলাত-খাতে লেখালেন। এই ক'মাসের মধ্যে প্রায় সাড়ে ছ'হাজার টাকা হাওলাত লিখেচেন নিজের নামে। এসব ঘোর অব্যবস্থ। । উনি যেন কি হয়েচেন, সে বাৰু আর নেই—এখন কথা * বলতে গেলেই থিচিয়ে ওঠেন, তাই সাহস ক’রে কিছু বলতেও পারি নে। অনঙ্গ পাংশুমুখে সব শুনিয়া কাঠ হইয়া দাড়াইয়া রহিল। ভড়মশায় বলিলেন—আমার মনে হয় বেীমা, আমাদের সেই গায়েই আমরা ছিলাম ভালো। বেশী টাকার লোভে কলকাতা এসে ভালো করি নি । অনঙ্গ উদ্বিগ্ন-কণ্ঠে বলিল—এখন উপায় কি বলুন ভড়মশায়—ষ হবার হয়েচে, সে-কথা ছেড়ে দিন । 蝇 —আমি তলায়-তলায় সন্ধান নিচ্চি। এখনও ঠিক বুঝতে পারি নি, উনি কোথায় যান, কি করেন । তবে লক্ষণ ভালো নয় সেই দিনই বুঝেচি, যেদিন বড়-তরফের শচীনবাবু ওর সঙ্গে মিশেচে । শচীন আর মাঝে-মাঝে আসে নিৰ্ম্মল । —তবেই হয়েচে ! আপনি ভালো ক'রে সন্ধান নিন ভড়মশায়—আমার এ কলকাতা শহরে কেউ আপনার জন নেই—এক আপনি ছাড়া। আপনি নিজে বুঝে-মুঝে ব্যবস্থা করুন। আমিও দেখচি ক'মাস ধ’রে উনি অনেক রাত্রে বাড়ী আসেন, আমি কাউকে লে কথা বলি নি। তা আমি ভাৰ্বি, আড়তের কাজ বেড়েচে, তাই বুঝি রাত হয়। মেয়েমান্থব কি বুঝি বলুন ? আম্বন, আপনি আর কতক্ষণ বসে থাকবেন, খেয়ে নেবেন চলুন। ভগবান বা করবেন, তার ওপর হাত দেই—অঙ্গেষ্টে বা আছে, ও আর তেৰে কি করবো!