পাতা:বিভূতি রচনাবলী (একাদশ খণ্ড).djvu/৬৫

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


श्रटेथ छल 86. করবেন না। আমার বয়েস যোলো । —নাম কি ? —পান্না । ভালো নাম স্থধীরাবাল । —যার সঙ্গে এসেচ ও তোমার কে হয় ? —কেউ নয়। ওর সঙ্গে মুজরে করে বেড়াই, মাইনে দেয়, প্যালার অর্ধেক ভাগ দিতে एग्न | —কোথায় থাকো তোমরা ? —দমদমা সিখি । বাড়ীওয়ালীর বাগানবাড়ীতে । —সে আবার কে ? —বাড়ীউলী মাসির টাকায় তো খেমটার দল চলে । থাকতে দেয় খেতে দেয় । সেই-ই তো সব | ওষুধ দেবো ? মিথ্যা কথা বলে এসেছ কেন এখানে ? ওই তোমার সঙ্গের মেয়েট এখানে তোমায় পাঠিয়েছে ? -नी । সত্যি বলে । মিথ্যে ভান করচো কেন অস্বখের ? ও পাঠিয়েচে–না ? তোমায় শিখিয়ে পড়িয়ে পাঠিয়েচে ? মেয়েটি লজ্জায় কেমন যেন ভেঙ্গে পড়ে বললে—ত না । বলেই মুখ নীচু করে মৃদু মৃদ্ধ হাসতে লাগলো। সঙ্গে সঙ্গে আমার মনে হলো ও সত্যি কথা বলচে। ওর সঙ্গিনী পাঠায় নি, ছল করে ও নিজেই এসেচে। স্বেচ্ছায় এসেচে। অস্থখ-বিস্থখও নয়—কোনো অস্বথ নেই ওর । হঠাৎ মেয়েটি উঠে দাড়িয়ে কেমন এক রকম অদ্ভুত স্বরে বললে,—আমি চললাম, আপনি বড় খারাপ লোক । বিস্ময়ের স্বরে বললাম—খারাপ ? কেন, কি করলাম তোমার ? —আমি বলি নি তো কিছু। আমি যাই, আসর কোন দিকে ? বাপরে, কত রাত হয়ে গিয়েচে । আমায় একটু এগিয়ে দিন না। —ত পারবে না। আসরে অনেক লোক, তোমার সঙ্গে আমায় দেখতে পেলে কে কি বলবে ! আমি পথ দেখিয়ে দিচ্চি—তুমি যাও। কোনো ভয় নেই, বাজারের মধ্যে চারিদিকে লোক, ভয় কিসের । মেয়েটি চলে যেতে উষ্ঠত হলে আমার কৌতুহল অদম্য হয়ে উঠলো। আমি খপ করে ওর হাত ধরে ওকে সেই চেয়ারখানাতে আবার বসিয়ে দিয়ে বললাম-কেন এসেছিলে, না বলে যাবার জো নেই পান্না,—না, এই নামই তো ? রাগ করলে নাকি—ডাকনাম ধরে छांकजांश वरज ? মেয়েটি হেসে বললে—ডাকুন না যত পারেন।