পাতা:বিভূতি রচনাবলী (একাদশ খণ্ড).djvu/৮৫

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


छा?र्ष अण (of পান্না যে প্রশ্ন করলে, তার উত্তর আমি দিলাম না । আমি এখন ওর প্রশ্নের উত্তর দেবার অবস্থায় নেই। আমার মন যেন অসীম অনন্ত আকাশে নিরবলম্ব ভ্রমণে বেরিয়েচে । দুরন্ত সে পথ-যাত্রা । কিন্তু পান্না যে আগ্রহ জাগিয়েচে তা পরিতৃপ্ত করতে পারবে কি ? পান্নার মুখে আবার সেই দুষ্টুমিভরা হাসি । বললে—উত্তর দিলেন না যে । আমি বললাম—পান্না, তুমি আমার সঙ্গে কতদূর যেতে পারবে ? ও হাসি-হাসি মুখে বললে—কেন ? —কলকাতায় গিয়েও কাজ নেই। —সে কি কথা, কোথায় যাবে। তবে ? —আমি যেখানে বলবো । —কলকাতায় যাবে না—তবে আমার বাসাবাড়ী, জিনিসপত্তর কি হবে ? থাকৰে৷ কোথায় বলুন ? —ও সব ভাবনা যদি ভাববে তবে আমায় নিয়ে এলে কেন ? —আপনার কি ইচ্ছে বলুন। —বলবো পান্না ? পারবে তা ? —ধ্যা, বলুন। —আমার সঙ্গে নিরুদ্দেশ যাত্রায় ভাসতে পারবে ? পান্না ঘাড় একদিকে বেঁকিয়ে বললে—কোথায় ? —যেখানে খুশি । যেখানে কেউ থাকবে না, তুমি আর আমি শুধু থাকবে। যেখানে হয়, যত দূরে— —ছ-উ-উ-উ— —ঠিক ? —टैिक । বলেই ও আবার আগের মত হাসি হাসলে। ওর ওই হাসিই আমাকে এমন চঞ্চল, এমন ছন্নছাড়া করে তুলেচে। নিরীহ গ্রাম্য ডাক্তার থেকে আমি দুঃসাহসী হয়ে উঠেচি–ওই হাসির মাদকতায় । বললাম—সব ভাসিয়ে দিতে রাজী আছি আমার সঙ্গে বেরিয়ে ? —সব ভাসিয়ে দিতে রাজী অাছি আপনার সঙ্গে । বলেই ও খিলখিল করে হেসে উঠলো। গাড়ীতে এই সময়টায় কেউ নেই। আমি ওর হাত দুটো নিজের হাতে নিয়ে বললাম— তাহলে কলকাতায় কেন ? —না । আপনি যেখানে বলেন— –ভেবে ভাখো । সব ছাড়তে হবে কিন্তু। খেমটা নাচতে পারবে না। টাকাকড়ি বি• র• ১১—e