পাতা:বিভূতি রচনাবলী (তৃতীয় খণ্ড).djvu/১৮৭

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


১88 বিভূতি-রচনাবলী সব কাজে ওর ওপর বড় নিভার করা চলে অনায়াসে। খুব মিহরবন্ধি মেয়ে। শরৎ কোথা থেকে কি করলে তিনি জানেন না, আহারের সময় অতিথির সঙ্গে খেতে বসে দেখলেন, ব্যবস্হা নিতান্ত মন্দ হয় নি । এত বেলায় মাছও যোগাড় করে ফেলেছে মেয়ে । - আহারাদির পর কেদার বললেন, আচ্ছা গোপেশ্বরবাব, চলন একটু বিশ্রাম করবেন— তারপর তিনি অতিথিকে সঙ্গে নিয়ে অতিথিশালার দো-চালা ঘরখানাতে এলেন । এখানে একখানা কাঁঠাল কাঠের সেকেলে ভারি তক্তপোশ পাতা আছে অতিথির জন্যে। পাতার জন্যে একখানা পরানো মাদর ছাড়া অন্য কিছু নেই চৌকিখানার ওপর—দেবার সঙ্গতিও নেই তাঁর । বন্ধ বললেন, বসন আপনিও । একটু গল্পগুজব করি আপনার সঙ্গে । —আপনার গান-বাজনা আসে ? —সামান্য এক-আধটু । সে কিছুই নয়— কেদার উৎসাহে উঠে পড়লেন চৌকি ছেড়ে । গানবাজনা জানে এ ধরণের লোকের সঙ্গ তাঁর অত্যন্ত প্রিয় । এরকম লোকের সঙ্গে দেখা হওয়া ভাগ্যের কথা । বললেন, কি বাজনা আসে আপনার ? —কিছ না, তবলা বাজীতে পারি এক-আধটু— —তা হলে আজ ওবেলা আপনাকে যেতে দেবো না গোপেশ্বরবাবু-—আমাদের আড্ডায় আজ সন্ধ্যাবেলা আপনাকে নিয়ে একটু আমোদ করা যাবে— —তা আপনি যখন বলছেন, আমায় থাকতে হবে রাজামশায়। আপনার অবস্থা এখন যাই হোক, আপনি গড়শিবপুরের রাজবংশের বড় ছেলে, এখানকার রাজা । আমি সব শনেছি আসবার পথে । আপনার অনুরোধ না রেখে উপায় কি বলন । আর আমার কোনো তাড়া নেই, দেশ দেখতেই তো বেরিয়েছি— —পায়ে হেটে ? —পয়সাকড়ি কোথায় পাবো বলন। পায়ে হেটে যত দরে হয় দেখছি। কখনো দর দেশে যাই নি, কিছু দেখি নি ছেলেবেলা থেকে, অথচ বেড়াবার শখ ছিল। ভাবলাম বয়েস ভটিয়ে গেল, এইবার বেরনো যাক, হে'টেই দেশ দেখবো । পয়সা কোন দিনই হবে না আমাদের হাতে। তা ধরনে ইতিমধ্যে নদীয়া জেলা সেরে ফেলেছি, এবার আপনাদের জেলায়— —আপনার বয়েস হয়েছে, এরকম হেটে পারেন এখনও ? —বয়েস হলেও মনটা তো এখনও কাঁচা । কখনও কিছু দেখি নি বলেই যা দেখছি তাই ভাল লাগে। ভাল লাগলে হাঁটতে কন্ট বোধ হয় না । কিন্তু আপনাকে দেখে আজ এত অবাক হয়ে গিয়েছি আমি, আর আপনাকে এত ভাল লেগেছে যে কি বলবো । সত্যিকার রাজদশন ভাগ্যি ছাড়া হয় না, আমরি তাই হল আজ। আমিও আমাদে লোক রাজামশায়, আমোদ ভালবাসি বলেই বেরিয়েছি এই বয়সে । —বেশ তো, এখানে দচারদিন থেকে যান । আমোদ করা যাবে এখন । আপনার মত লোক পেলে— —কি জানেন, অলপ বয়সে বিয়ে হয়ে কাচাবাচ্চা নিয়ে নেনজার হয়ে পড়লম রাজামশাই । দেশ ভ্রমণের শখ ছিল এস্তক লাগাং"। কিন্ত যেতে পারিনে কোথাও—মনটা মাঝে মাঝে এমন হাঁপাতো ! এই আমার বাষট্টি-তেষট্টি বছর বয়েস হয়েছে—আর বছর মেয়ে .দটিকে পারস্থ করার পরে সংসারের ঝঞ্চাট অনেকটা মিটলো। তাই বলি কখনও কোথাও