পাতা:বিভূতি রচনাবলী (তৃতীয় খণ্ড).djvu/২২৮

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


কেদার রাজা ২২৫ নেই, অন্ধকার নেই—একলাটি বনের মধ্যে দিয়ে যাবো উত্তর দেউলে সন্দে পিদিম দিতে— তা ছাড়া এই বনে কাঠ কুড়িয়ে বেড়াই, বাবা কি যোগাড় করে দেন ? এক জায়গায় রাজলক্ষী থমকে দাঁড়িয়ে বললে, দ্যাখো দ্যাথো শরৎ দিদি, কত পাতাল-” কোঁড়—বেশ বড় বড়— * শরৎ তাড়াতাড়ি এসে বললে, কই দেখি ? পরে হেসে বলে উঠল—দর । ছাই পাতাল-কেড়ি—ও সব ব্যাঙের ছাতা, অত বড় হয় না পাতাল-কেড়ি—ও খেলে মরে যায় জানিস ? বিষ— —সত্যি শরৎদি ? —মিথ্যে বলছি ? ব্যাঙের ছাতা বিষ— —আমি খেলে মরে যাবো— —বালাই ষাট—কি দুঃখে ? —বেচে বা কি সুখ শরৎদি ? সত্যি বলছি— —কেন, জীবনের উপর এত বিতে-টা হল যে হঠাৎ ? —অনেকদিন থেকেই আছে। এক এক সময় ভাবি আমাদের মত মেয়ের বেচে কি হবে শরৎদি ? না আছে রূপ, না আছে গণ—এমনি করে কন্টগ্লেষ্ট করে ঘটে কুড়িয়ে আর বাসন মেজেই তো সারাজীবন কাটবে ? —সুখ যদি জটিয়ে দিই ? তা হলে কিন্তু— —তোমার সেই সেদিনের কথা তো ? তুমি পাগল শরৎদি— —তুই রাজী হয়ে যা না ! —সেই জন্যে আটকে রয়েছে ! তোমার যেমন কথা— —এবার প্রভাসদাকে বলবো দেখিস হয় কি না— হঠাৎ রাজলক্ষী উৎকণ' হয়ে বললে, চুপ শরৎদি, বনের মধ্যে কারা আসছে— শরতের তাই মনে হল । কাদের পায়ের শব্দ বনের ওপাশে । শরৎ রাজলক্ষী একটা গাছের আড়ালে লুকুলো । দুজন লোক বনের মধ্যে কি করছে । কিসের শব্দ হচ্ছে যেন। শরৎ চুপি চুপি বললে, কারা দেখতে পাচ্ছিস ? —না শরৎদি, চলো পালাই— —পালাবো কেন ? বাঘভাল্লকে তো না—তুই দাঁড়া না— একটু সরে শরৎ আবার বললে, দেখেছিস মজা ? রামলাল কাকার ছেলে সিদ আর ওপাড়ার জীবন শ:ড়ির ভাই হরে শাড়ি । হঠাৎ শরৎ কড়া গলার সর চড়িয়ে বললে, কে ওখানে ? দীপ দ্বীপ দ্রুত পদশব্দ। তারপর সব চুপচাপ । শরৎ বললে, আয় তো গিয়ে দেখি—কি করছিল মুখপোড়ারা— রাজলক্ষী চেয়ে দেখলে শরতের যেন রণরঙ্গিণী মাত্তি”। ভয় ও সঙ্কোচ এক মহমত্তে"চলে গিয়েছে তার চোখমাখ থেকে। রাজলক্ষী ভয় পেয়ে বললে, ও শরৎদি, ওদিকে যেও না— পরে শরৎ নিতান্তই গেল দেখে সে নিজেও সঙ্গে সঙ্গে চললো। খানিকদরে গিয়ে দুজনেই দেখলে যেখানে উত্তর দেউলের পবে কোণে একটা ভাঙা পাথরের মাত্তি' পড়ে আছে ঘন লতাপাতার ঝোপের মধ্যে—সেখানে একটা লোহার শাবল পড়ে আছে, কারা খানিকটা গৰ্ত্ত’ খ:ড়েছে আর কতকগুলো মাটিতে পোতা ইট সরিয়েছে। শরৎ খিলখিল করে হেসে উঠে বললে, মুখপোড়াদের বিশ্বাস গড়ের জঙ্গলে সব'র ওদের জন্যে টাকার হাঁড়ি পোঁতা রয়েছে । গুপ্তধন তুলতে এসেছিল হতচ্ছাড়া ড্যাকরারা, এরকম f. , రి=సిd .l