পাতা:বিভূতি রচনাবলী (তৃতীয় খণ্ড).djvu/২৯৬

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


কেদার রাজা ఫిషిరి মাসে পঞ্চাশ টাকা দেবে—আমি আর অরণে পঞ্চাশ । আলাদা বাড়ি ভাড়া করে থাকতে চাও, পাবে - হেনার বাড়িতেও থাকতে পারো । নেকলেস আর চুড়ি সামনের হপ্তাতেই” পাবে। ঘর সাজিয়ে দেবো দশো টাকা খরচ করে । কলের গান কিনে দেবো। পায়ের ওপর পা দিয়ে বসে থাকবে, যা যখন হুকুম করো ইচ্ছামত— শরৎ ঝাঁঝের সঙ্গে বলল, আবার ওই সব কথা ? চলে যান আপনারা । আপনাদের দেখলেও পাপ হয় । আমি এই পথে বসে থাকবো, মা কালী আমায় আশ্রয় দেবেন— গিরীন জানতো রাস্তার ওপর কোনো জোর করতে গেলেই লোক ছুটে হৈ চৈ বধিয়ে দেবে, পলিস আসবে - সব পণ্ড হবে । মিটি কথায় কাজ হাসিল হ'ল না দেখে সে ভয় দেখাতে আরম্ভ করল । চোখ রাঙিয়ে বললে, সহজে না যাও—জানো আমি কি করতে পারি? আমার নাম গিরীন কুণ্ড –থানায় এজাহার করবো তুমি হেনা বিবির হার চুরি করে এনেছ । এক্ষনি চালান দিয়ে দেবো জানো ? হেনা সাক্ষী দেবে - আজ রাতেই হাজতে বাস করতে হবে । ও বাঙালের বাঙালগিরি কি করে ঘোচাতে হয়, সে আমি জানি—তুমি এখানে আছ কোথায় শান ? w 晶 শরৎ বলল, বেশ তাই করন। ভগবান জানেন আমি কোনো অপরাধ করি নি। এখনও চন্দ্র সৃষি উঠছে—আমি জীবনে পরের কুটাে গাছটাতে কখনো হাত দিই নি । তিনি কখনো आशाझ क्रिाष्ट्रिीशछि श्राष्ठि হঠাৎ নিজের অসহায় অবস্থা কল্পনা করে এবং ভগবানের উপর নিভীরতার অনুভুতিতে শরতের চোখে জল এসে পড়ল-সে কে’দে ফেললো । ক্ৰন্দনরতা মেয়ে পথের ওপর, তখনই কৌতুহলী জনতা জমতে আরম্ভ করল আবার । একজন ষণ্ডা গোছের তোয়ালে-কাঁধে লোক এগিয়ে এসে বললে, কি হয়েছে ? কে আপনি ? উনি কাঁদছেন কেন মশাই ? ভিড়েরই একজন বলল, তা কি জানি ? আপনার সঙ্গে কে আছেন মা ? হয়েছে কি ? আর একজন বলল, আপনি কোথায় যাবেন ? কি হয়েছে আপনার বলন তো মা ? এরা গিরীনের দলকে ঠাওর করতে পারে নি—সতরাং তাদের সঙ্গে জনতার কথা বিনিময় হ’ল না। জনতার সরে ক্ৰমশঃ উত্তেজিত ও কৌতুহলী হয়ে উঠতে দেখে গিরীন বুঝলে এখানে কথা বলতে যাওয়া মানেই বিপদ টেনে আনা । এরা কোনো কথা শুনবে না, সকলেরই সহানুভুতি ক্ৰন্দনরতা নারীর দিকে। মার খেতে হবে বেশী কথা বললে । বাতাসের মোড় হঠাৎ এমন ভাবে ঘরে যাবে, তা ওরা ভাবে নি। গিরীন কুণ্ড আর যাই হোক, নিবোধ নয়। বেগতিক বঝে সে দলবল নিয়ে মহোত্ত হাওয়া হয়ে গেল । 象 শরৎ যখন নাটমন্দিরে ফিরে এল, তখন বেলা পাঁচটা । গৌরী-মা বললেন, এত দেরি হ'ল যে মা ? এসে একটু প্রসাদ খেয়ে নাও। ওরাই পজো দিয়ে গেল। কাল যাবে তো ওদের সঙ্গে ? শরৎ বলল, যাবো মা, আপনি যা বলেন । শরৎ ইতিমধ্যে পথে আসতেই ঠিক করে ফেলেছে সে ওদের সঙ্গে যাবে। এখানে থাকলে তার সমুহ বিপদ । আজ উপধার পেয়েছে, কিন্তু যদি গিরীন তোড়জোড় করে আর একদিন আসে—আসবেই সে, তখন হয়তো জোর করেই নিয়ে যাবে। সন্ধ্যাবেলা গৌরী-মার কথকতা শনতে গিন্নী এলেন, সব ঠিক হয়ে গেল-কাল বেলা তিনটার সময় শরৎ তৈরী থাকবে। কালই রওনা হতে হবে ওদের সঙ্গে । রাগ্লুিটা নিতান্ত ভয়ে ভয়ে কেটে গেল । সকালে উঠে শরৎ গৌরী-মার সঙ্গে গঙ্গানান