পাতা:বিভূতি রচনাবলী (তৃতীয় খণ্ড).djvu/৩৫

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


నిషి বিভূতি-রচনাবলী দেখিতে যাইবে, তার আগে নয়। একটা আলমারী দেখাইয়া বলিল—দেখনে না এই বইগুলো ? ভ্যাসারির লাইভস –এডিশনটা কেমন ?•••ছবিগুলো দেখনে—সেন্ট এ্যান্টনির ছবিটা আমার বড় ভাল লাগে, কেমন একটা তপস্যাস্তবধ ভাব, না ?—ইনস্টলমেস্ট সিস্টেমে এগুলো কিনেছি—আপনি কিনবেন কিছ ? ওদের ক্যানভাসার আমাদের বাড়ি আসে, তা হ’লে বলে দি— অপ বলিল—কত ক'রে মাসে ?“ভ্যাসারির এডিশনটা তাহলে না হয়— —এটা কেনকিনবেন ? এটা তো আমার কাছেই রয়েছে—আপনার যখন দরকার হবে, নেবেন—আমার কাছে যা যা আছে, তা আপনাকে কিনতে হবে কেন ?—দাঁড়ান, আর একটা বইয়ের একখানা ছবি দেখাই— আপ ছবিটার দিক হইতে আর একবার লীলার দিকে চাহিয়া দেখিল—বতিচেলির প্রিসেস দেন্ত খুব সন্দরী বটে, কিন্ত বতিচেলির বা দ্য-ভিঞ্চির প্রতিভা লইয়া যদি লীলার এই অপবে সুন্দর মুখ, এই যৌবন-পপিত দেহলতা ফটাইয়া তুলিতে পারিত কেউ ?-- কথাটা সে বলিয়াই ফেলিল—আমি কি ভাবছি বলব লীলা ? আমি যদি ছবি আকিতে পারতাম, তোমাকে মডেল ক’রে ছবি অাঁকতাম— লীলা সে কথার কোন জবাব না দিয়া হঠাৎ বলিল—ভাল কথা, আচ্ছা অপবিবাব, একটা ভাল চাকরি কোথাও যদি পাওয়া যায় তো করবেন ? • অপ বলিল—কেন করব না ; কিসের চাকরি ? লীলা বিবরণটা বলিয়া গেল । তাহার দাদামশায় একটা বড় স্টেটের এটনি, তাদের অফিসে একজন সেক্রেটারী দরকার—মাইনে দেড়শো টাকা, চাকরিটা দাদামশায়ের হাতে, লীলা বলিলেই এখনই হইয়া যায়, সেই জন্যেই আজ তাহাকে এখানে ডাকিয়া আনা । অপর মনে পড়িল, সেদিন কথায় কথায় সে লীলার কাছে নিজের বক্তমান চাকুরির দরাবস্হা ও খবরের কাগজখানা উঠিয়া যাওয়ার কথাটা কি সম্পকে একবারটি তুলিয়াছিল। লীলা বলিল—সেদিন রাত্রে আমি তাঁর মুখে কথাটা শুনলাম, আজ সকালেই আপনাকে পত্র পাঠিয়ে দিয়েছি, আপনি রাজী আছেন তো ? আসন, দাদামশায়ের কাছে আপনাকে নিয়ে যাই, ও’র একখানা চিঠিতে হয়ে যাবে। কৃতজ্ঞতায় অপর মন ভরিয়া গেল । এত কথার মধ্যে লীলা চাকুরি যাওয়ার কথাটাই কি ভাবে মনে ধরিয়া বসিয়াছিল !— লীলা বলিল—আপনি আজ দাপরে এখানে না খেয়ে যাবেন না। আসন,—পাখাটা দয়া করে টিপে দিন না । কিন্ত; চাকুরি হইল না। এসব ব্যাপারের অভিজ্ঞতা না থাকায় লীলা একটু ভুল করিয়াছিল, দাদামশায়কে বলিয়া রাখে নাই অপর কথা । দিন দুই আগে লোক লওয়া হইয়া গিয়াছে। সে খুব দুঃখিত হইলু, একটু অপ্রতিভও হইল। অপর দুঃখিত হইল লীলার জন্য। বেচারী লীলা ! সংসারের কোন অভিজ্ঞতা তাহার কি আছে ? একটা চাকুরি খালি থাকিলে যে কতখানা উমেদারীর দরখাস্ত পড়ে, বড়লোকের মেয়ে, তাহার খবর কি করিয়া জানিবে ? - লীলা বলিল—আপনি এক কাজ করন না, আমার কথা রাখতে হবে কিন্ত, ছেলেবেলার মত একগয়ে হলে কিস্ত চলবে না—প্রাইভেটে বি. এ.-টা দিয়ে দিন । আপনার পক্ষে সেটা कठिन ना किछद । অপ বলিল—বেশ দেব । লীলা উৎফুল্প হইয়া উঠিল—ঠিক ? অনার রাইট ?