পাতা:বিভূতি রচনাবলী (তৃতীয় খণ্ড).djvu/৪১৬

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


ধালাবদল 8షిరీ পাউরটি ফিরি করি”আমরা গড়বাড়ির বড়িয্যে“যান যদি কখনো ওদিকে, পায়ের ধনুলো ঝেড়ে দিলেই বুঝতে পারবেন—সতোহাটা পরগণার মধ্যে— সব শেষ হতে রাত একটা বাজালো। চাঁদ ঢলে পড়েচে । চিতা ধতে গিয়ে ভদ্রলোক আবার হাউ হাউ করে কে’দে উঠলেন—আমরা অনেক সাশুনা দিয়ে তাঁকে থামালাম । আমি ওদের কাছ থেকে বিদায় নিয়ে সোজা পিসিমার বাড়ি চলে আসবো—ওরা কিছুতেই ছাড়ে না। টিকিট বাব বল্লেন—আসন আসন অতটা মাংস খাবে কে ? সব গরম গরম পাবেন—আমার বলে দেওয়া আছে—রাত বারেiটার পর তবে ময়দায় জল দেবে । গিয়েই গরম গরম’-চলন মশাই--- অতি কণ্টে ওদের হাত এড়িয়ে পিসিমার বাড়ি ফিরলাম। কিন্ত সকালে উঠেই খোকাকে দেখবার ইচ্ছে হলো । সাড়ে সাতটার ট্রেনে নৈহাটি গিয়ে ছোটবাবর বাসায় হাজির । খোকা নাকি অনেকক্ষণ উঠেচে । ভোরবেলা থেকে মায়ের কাছে যাবার জন্যে কাঁদছিল, বাসার মেয়েরা অনেক কৌশলে থামিয়ে রেখেচেন । ভদ্রলোকটিও এলেন । তিনি টিকিটবাবর বাসায় রাত্রে শয়েছিলেন-দেখে মনে হলো রাতে বেশ ঘুমিয়েচেন । খোকা এখন আর কদিচে না। বাসার মেয়েরা কমলালেবন দিয়েচে হাতে ; তাই খেতে খেতে ঝিয়ের কোলে বাইরে এল । ঝি বল্লে—কাল ছোটবাবর বেী নিজের কোলের কাছে ওকে নিয়ে শয়েছিলেন। জেগে উঠলেই মথে মাই দিয়েচেন, রাতের ঘুমের ঘোরে ও ভেবেচে ওর মা । কিন্ত ভোরে উঠেই সে কি কান্নাটা ! কেবল বলে 'মা যাবো' 'মা যাবো”—আহা বাছা আমার, মানিক আমার--- একটু পরে আমি ভদ্রলোককে ট্রেনে তুলে দিতে গেলাম, খোকাকে কোলে নিয়ে। তিনি এই ট্রেনে মশিদাবাদে শ্বশুরবাড়ি ফিরে যাবেন । আমায় বল্লেন—কি ক’রে সেখানে ঢুকবো মশাই, ভেবে আমার হাত পা আসচে না। তবে যেতেই হবে, খোকাকে ওর দিদিমার কাছে দিয়ে আসবো—নইলে কে দেখবে আর ওকে ? তারপর পাগলের মত হাসি হেসে বল্লেন—যারাটা বদলে আসি মশাই । কি বলেন ?••• るJT一ーTー - আমি বল্লম—টিকিটবাবু কাল আপনাকে কিছ ফেরত দিয়েচেন ? —না, আমিও চাই নি । তবে আজ সকালে একটা ফন্দ দেখাচ্ছিলেন, বলেন সব খরচ হয়ে গেছে । সে ফন্দ আমি দেখিও নি— যা উপকার করেচেন আপনারা, তার শোধ কি কখনো দিতে পারবো ?--- ট্রেন ছেড়ে চলে গেলো ।--- প্ল্যাটফর্মে বিনোদ বড়িয্যের সঙ্গে দেখা । আমায় একপাশে ডেকে মুখ ভার করে বল্লে —শনেচেন টিকিটবাবরে অাকেলটা ? সাড়ে সাত টাকা হাতে ছিল কালকের দরন। কাল রাতে খাওয়া দাওয়ার পরে বল্লাম—ভাগ করো । তা আমাদের দিলে এক টাকা করে— দু'জনকে দ’টাকা। নিজে নিলে সাড়ে পাঁচ টাকা । বলে ওদের দু'জনের ভাগ, ও আর ওর ভাইপো । আচ্ছা, ভাইপো কি করেচে মশাই ? শধে কাপড়ের প:টলিটা হাতে ঝুলিয়ে গিয়েচে বৈ তো নয় ?”আর আমাদের অত ছোট নজর নেই-"হাজার হোক, কুলীন বামনের ছেলে মশাই•••না হয় পেটের দায়ে আজ পাউরটি ফিরিই কার--- A.