পাতা:বিভূতি রচনাবলী (দ্বিতীয় খণ্ড).djvu/২১২

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


বিভূতি-রচনাবলী و الراج আজ রবিবাসরের অধিবেশনে নিমন্ত্রিত হয়ে গিয়েছিলাম, সেখানে রাজশেখরবাবুর সঙ্গে আলাপ হল, ‘অপরাজিত র্তার খুব ভাল লেগেচে বলছিলেন। আজ ক'দিন থেকে মনে কেমন একটা অপূর্ব ধরনের আনন্দ পাচ্ছি তা বলবার নয়, লিখে প্রকাশ করবার নয়—সে শুধু বুঝতে পারি—বোঝাতে পারি নে। এইমাত্র জ্যোৎস্নাপ্লাবিত বারানাটাতে এক বসে মেঘের ফঁাকে ফঁাকে আকাশের দুএকটা নক্ষত্রের দিকে চেয়ে এই অপূর্ব ভাবটাই মনে আসছিল...আননা মানুষকে এত উচ্চেও ওঠাতে পারে। অমৃত বলে মনে হচ্চিল নিজেকে, সত্য বলে মনে হচ্চিল, বিরাট ও শাশ্বত্ত বলে মনে হচ্চিল.এক উন্মদিনাময়ী প্রাণশক্তির অভিব্যক্তি!--মুগ্ধ হয়ে গেলাম... দু-একটা চরণ গান তৈরি করে গুনগুন করে গাইলাম : মনে আমার রঙ ধরেচে আবার সুরের আসা-যাওয়া,-- আজ ক'দিন থেকেই এরকমটা হচ্চে । দিনগুলো যে ভয়ানক নিরানন্দ হয়ে উঠেচে একথায় কোনো ভুল নেই। এ শুধু হয়েচে সকাল থেকে রাত দশট পর্যন্ত ভয়ানক খাটুনির জন্তে । অনবরত পরের খাটুনি, নিজের জন্ত এতটুকু ভাববার অবকাশ নেই, অবসর নেই, সকাল দশটা থেকে আরম্ভ করে রাত দশটা পর্যন্ত বারো ঘণ্টা । মনের অবকাশ মানুষের জীবনের যে কত দরকারী জিনিস তা এই কর্মব্যস্ত, যন্ত্রযুগের অত্যন্ত কর্মঠ, হিসাবী ও সময়জ্ঞানসম্পন্ন মানুষেরা কিছু বুঝবে কি ? এতে মানুষকে টাকা রোজগার করায়, ভাল খাওয়ায়, ভাল পরায়, ভাল গাড়ি-ঘোড়া চড়ায়—অর্থাৎ ব্যক্তিত্বকে আরও জাগিয়ে নাচিয়ে তোলে—শক্ত করে বঁচিয়ে রাখে, বেশ সুষ্ঠুভাবে ও কৃতীর মুনামে বাচিয়ে রাখে–কিন্তু ভারবাহী চোথেষ্টুলি বলদের থেকে কোনো পার্থক্যের গওঁী টেনে দেয় না—জীবনকে মরুভূমি করে রেখে দেয়,–টাকার গাছের আবাদ । প্রকৃতির গুiমল বস্ত সম্ভার, নীল আকাশ, পাখীর কুজন, নদীর কল মর্মর, অস্ত-দিগন্তের সান্ধ্যমীয়া—এ সব থেকে বহুদূরে, এক জনহীন, জলহীন বৃক্ষলতাহীন মরু। এদের দেশ-ভ্রমণেও যেতে দেখেচি ফাষ্ট ক্লাস কামরায় চেপে, দশদিনের ভ্রমণে দুই হাজার টাকা ব্যয় করে, মোটরে করে যাবতীয় স্থান এক নিশ্বাসে বেড়িয়ে, বিলাতী হোটেলে খানা খেয়ে, হুইস্কি টেনে—সেও ঐ ভেড়ার দলের মত বেড়ানো । আজ বসে বসে শুধু মনে হচ্চিল অনেকদিন আগে বালোর নবীন মধুর বর্ষার বৈকালগুলি —কি ছায় পড়তে, কি পত্রপুষ্পের মুগন্ধ বেরুতে কি পাখীর গান হত—জীবনের সম্পদ হল সে সব—এক মুহূর্তে জীবনকে বাড়িয়ে তোলে, বৃদ্ধিশীল করে—আত্মার পুষ্টি ওখানে। ধ্যান অর্থাৎ contemplation চাই, আনলোর অবকাশ চাই—তবে হল আত্মার পুষ্টি—টীকা cब्रांजগারের ব্যস্ততায় দিনরাত কাটিয়ে দেওয়ায় নয় । মানুষের জীবনে প্রকৃতি একটি মহাসম্পদ, এর সঙ্গে অসহযোগ করলে জীবনটায় প্রসারত কমে যায়, রোমান্স কমে যায়, c0mmಣ್ಯ place হয়ে পড়ে নিতান্ত ।