পাতা:বিভূতি রচনাবলী (সপ্তম খণ্ড).djvu/১১৪

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


বিভূতি-রচনাবলী প্রাইভেট মাস্টারের ফাকিবাজ, পড়াইতে জানে না, কেবল মাহিনী বাড়াও -এই শৰ মুখে । তারপর সে আবার দেখিতে চাহিল, আজ ক্ষেত্রবাবু ছেলেদের কী পড়াইয়াছেন, কালকার পড়া বলিয়া দিয়াছেন কি না, টাস্ক, দিয়াছেন কি না ! লোকটার হাত এড়াইয়া রাত দশটার সময় ক্ষেত্রবাবু বাসার দিকে আসিতেছেন, এমন সময়ে পথে রাখাল মিত্তিরের সঙ্গে দেখা । ক্ষেত্রবাবু পাশ কাটাইবার চেষ্টা করিয়াও পরিলেন না, রাখাল মিত্তির ডাকিয়া বলিল, এই যে ! ক্ষেত্রবাবু যে ! শুনুন, গুমুন— —রাখালবাবু যে। ভাল আছেন ? —কই আর ভাল, খেতেই পাই নে, তার ভাল! আপনারা তো কিছু করবেন না।– বলিতে বলিতে রাখালবাবু ক্ষেত্রবাবুর দিকের ফুটপাথে আসিয়া উঠিলেন। বলিলেন, আমুন না, কাছেই আমার বাসা। একটু চা খেয়ে যান। সে দিন আপনাদের স্কুলে গিয়েছিলাম আমার বই দুখানা নিয়ে। সাহেব তো কিছু বোঝে না বাংলা বইয়ের, আপনারা একটু না বসলে আমার বই ধরানো হবে না। - ক্ষেত্রবাবু বলিলেন, এত রাত্তিরে আর যাব না রাখালবাবু, এখন চা খায় কেউ ? আমি यांहे—তবে আমন, এই মোড়েই চায়ের দোকান, খাওয়া যাক একটু ! অগত্যা ক্ষেত্রবাবুকে যাইতে হইল। রাখালবাবু নাছোড়-বান্দা লোক, অনেক দিনের অভিজ্ঞতায় ক্ষেত্রবাৰু জানেন, ইহার হাতে পড়িলে নিস্তার নাই। চা খাইতে খাইতে রাখালবাবু বলিলেন, এবার মশাই, ধরিয়ে দিতে হবে আমার বই দুখানা। আপনাদের মিঃ আলম ভারী বঙ্গ লোক, অামায় বলে কি না—ও সব চলবে না, আজকাল অনেক ভাল বই বেরিয়েচে । আমি বলি, তোমার বাবা আমার বই পড়ে মানুষ হয়েচে, তুমি আজ এসে5 রাখাল মিত্তিরের বইয়ের খুত ধরতে ? রাখাল মিত্তিরকে ক্ষেত্রবাবু বহুদিন জানেন। বয়স পয়ষটি, জীর্ণ অতিমলিন লংক্লথের পিরান গায়ে, তাতে ঘাড়ের কাছে ছেড়া, পায়ে সতের-তালি জুতা। রাখালবাবু কলিকাতার স্কুলসমূহে অতি পরিচিত, পনেরো বছর হইল স্কুল-মাস্টারি হইতে অবসর গ্রহণ করিয়া কয়েকখানি স্কুলপাঠ্য বই স্কুলে স্কুলে শিক্ষকদের ধরিয়া চালাইয়া দেন। তাতেই কায়ক্লেশে ংসার চলে । ক্ষেত্রবাবুর চুঃখ হয় রাখালবাবুকে দেখিয়া। এই বয়সে লোকটা রৌত্র নাই, বৃষ্টি নাই, টো-টো করিয়া স্কুলে স্কুলে সিড়ি ভাঙিয়া উঠানামা করিয়া বই চালানোর তদ্ধির করিয়া বেড়ায়। কিন্তু বিশেষ কিছু হয় না। লোকটার পরন-পরিচ্ছদেই তাহ প্রকাশ। বৃদ্ধকে সানা দিবার জন্য ক্ষেত্রবাবু বলিলেন, না না আপনার বই খারাপ কে বলে ! চমৎকার বই ! বুখাল মিত্তির খুনী হইয়। বলিল, তাই বলুন দিকি! সকলে কি বোঝে ? আপনি একজন সমজদার লোক, আপনি বোঝেন! আরে, এ কালে ব্যাকরণ জানে কে ? আমি