পাতা:বিভূতি রচনাবলী (সপ্তম খণ্ড).djvu/২৫৯

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


নবাগত $8& অথচ একটা কথা বিনিময় হয় নি তাদের সঙ্গে আমার । জলখাবার দেওয়ার ব্যাপার ঘটল পরদিন সকালে কিউল স্টেশনে । সঙ্কোচের সঙ্গে বললাম, --ন না, এ কেন, আমি—আপনার খান । —না, সে শুনব না, খেতেই হবে । এ সব স্টেশনে খাবার পাওয়া যায় না, অনেক খাবার আছে আমাদের সঙ্গে, দয়া ক'রে একটু মুখে দিন। কোথায় গেল সে সব দিন! এখন একখানা কচুরির মত তিন ইঞ্চি ব্যাসবিশিষ্ট পুরির দাম এক আনা । মামুষের ভ্রাতৃভাব কোথায় উবে গিয়েছে। ট্রেনের জানালার বাইরে ভিখারীর ভিড়। একজন শীর্ণকায় স্ত্রীলোক, কোলে তার একটি ছেলে, ইনিয়ে বিনিয়ে বলছে,–বাৰু, তোমরা থাকতে আমরা ডুবে যাব ! সমস্ত দিন খাই নি, দুটো পয়সা দেন । একজন উত্তর দিলে,—কোথা থেকে দোব বাপু । চল্লিশ টাকা চালের মণ, এবার সবাই ডুববে, যাও, হবে না । 辭 একটি রোগী হাংলা গোছের লোক ময়লা পৈতে বার ক’রে ভিক্ষে করছে। কামরার ও-প্রান্ত থেকে সে স্বর ক’রে প্রার্থনাবাণী উচ্চারণ করতে করতে আসছে শুনছি। তার নাকি অনেক কষ্ট, বাড়ীতে বৃদ্ধ মাত শয্যাগত, স্ত্রীপুত্র অনাহারে মরছে। যত কাছে আসে, ততই দেখলাম নিজের মনে রাগ ও বিরক্তি জমে উঠছে। কাছে এলে মুখ খিচিয়ে বলি, ইদিকে আর কোথায় আসছ ? দেখছে। ভিড়ের ঠ্যালা ! না পাব কোথাও খুচরো যে তোমায় দোব! খুচরোর অভাবে বলে চ খেতে পাই নি— গাড়ীর ভিড় ক্রমশই বাড়ছে ব’লে সবাই গাড়ীর দোর ঠেলে বন্ধ ক'রে রেখেছে, কাউকে উঠতে দেবে না। জানালা গলিয়ে জোরজবরদস্তি ক'রে লোক উঠে পড়ে দফায় দফায় মারামারির স্থষ্টি করছে । —মশাই, একটু সরে' বস্থন না ! —কোথায় সরে' বসব, দেখুন। বাঃ, ঘাড়ে এসে বসলেন যে ! —আপনি যে এতটা জায়গা জুড়ে বসে থাকবেন । দেখছেন না ভিড় ! —তাই ব’লে আপনি ঘাড়ের ওপর এসে বসবেন ? খুব ভদ্রলোক তো ? —ভদ্রলোক তুলে কথা বলবেন না, সাবধান ক’রে দিচ্ছি। —ও, কেন ? নবাব খানজা খা নাকি ? কিসের ভয় ? তোমার "এক চালায় বাস করি ? to —খবরদার । মুখ সামলে । ‘তুমি’ ‘তুমি’ করবে না বলছি। একটা চড়ে— অতঃপর বিরাট কুরুক্ষেত্রের স্বষ্টি । এক পক্ষে ভাঙা ছাতা, অপর পক্ষে মুষ্টিবদ্ধ হস্ত । গাড়ীর লোকে ‘ই’ ‘ই’ ক’রে উভয়ের মধ্যে এসে প'ড়ে তাদের ছাড়িয়ে দেবার চেষ্টা করতে লাগল। চলল নানাবিধ সস্থাপদেশ –এই সামান্তক্ষণ গাড়ীতে থাকা, তার জন্যে কেন ঝগড় করা ? বলি, এই অঁাকুল থেকেই তো লোক মামতে শুরু হবে । Mą