পাতা:বিশ্বকোষ ঊনবিংশ খণ্ড.djvu/৪৮১

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


याँ - [ 8い ] शठे এই ধাতু ইদিং, বট বট। লটু বণ্টতি । বট বণ্টন, বিভাজন চুরাদি• পক্ষে ভাদি, পরস্মৈ সক, সেটু। এই ধাতুও ইনিং। লট বণ্টয়তি পক্ষে বণ্টতি। “বণ্টস্তি হাটকং যম্মাৎ প্রাপ্য বিপ্রাঃ পরম্পরম্।।” ( হলায়ুধ ) এই ধাতুর চুরাদির প্রয়োগ প্রায় দেখা যায় লু, কেবল গণেই চুরাদি বলিয়া অভিহিত হইয়াছে। অয়ং ঢুরাদে কৈশ্চিম পঠাতে ইতি দুর্গসিংহাদয়ঃ (দুর্গাদাস ) বট বেষ্টন, ২ ভাগ। অদন্ত চুরাদি• পরন্মৈণ সক, সেটু। লক্ট্র বটয়তি। লুঙ, অীবটৎ । বট (পুং ) বটতি বেষ্টয়তি মূলেন বৃক্ষান্তরমিতি বট-পচাদ্যচ । zâtists afil got, 85:tts ( Ficus Bengalenesis syn. Ficus Indica ) i afsto Rin, fèst–45, zş, gifs : মহারাষ্ট্র-বট। কলিঙ্গ-আল। তৈলঙ্গ—মরিচেষ্ট্র, মারি, পেড়ি মরি ; উৎকল—বোর । বাঙ্গালা—বড়, বট ; কোল – বোই ; লেপছা-কাঞ্জি ; মলয়ালম—পেরমু, পেরলিস্থ ; গোড় — বরেল্লী ; উত্তর-পশ্চিম –বোরা, কুকু , নেপাল-বোরহর ; পন্থ-বাগাং, হাজার –ফগ বাড়ী, কণাত্নী – আগব, আনন্দ, আল ; ব্রহ্ম-পিত্ত-ষ্ঠৌঙ্গ ; শিঙ্গাপুর—মহামুগ ; ইংরাজী— Banyan troও । সংস্কৃত পর্য্যায়-স্তগ্রোধ, বহুপাৎ, বৃক্ষনাথ, যমুপ্রিয়, রক্তফল, শৃঙ্গ, কৰ্ম্মজ, ধ্রুব, ক্ষীরী, বৈশ্ৰবণাবাস, ভাণ্ডীর, জটাল, রোহিণ, অবরোহী, বিটপী, স্কন্দরুহ, মগুলী, মহাচ্ছায়, ভৃঙ্গী, যক্ষাবাস, যক্ষতক, পাদরোহণ, নীল, শিকারুহ, বহুপাদ, বনস্পতি । হিমালয়ের নিম্ন প্রদেশ হইতে দক্ষিণ ভারতের প্রায় সৰ্ব্বত্র এই বৃক্ষ উৎপন্ন হইতে দেখা যায়। সাধারণতঃ ইহা ৭০ হইতে ১০০ ফিটু পর্যন্ত উদ্ধে উঠিয়া থাকে এবং শাখাপ্রশাখায় বিস্তৃত হইয়া বহুদূরব্যাপী হয়। ঐ বটচ্ছায়া শীতল, আতপতাপক্লিষ্ট পথিকের পক্ষে ইহা বড়ই হৃদয়গ্রাহী। কর্ণেল সাইকস নৰ্ম্মদা নদীবক্ষস্থ একটা ক্ষুদ্র দ্বীপে সুবৃহৎ বটবৃক্ষের উল্লেখ করিয়া গিয়াছেন । উহ! সাধারণে “কবীর বট’ নামে প্রসিদ্ধ। অনেকে ězsco Nearchus aff: সেই সুপ্রাচীন বৃক্ষ বলিয়া মনে করেন । পুণার (Ga2 Wol. xviii) অন্ধ, উপত্যকার অন্তর্গত মেীগ্রামে একটা সুবৃহৎ বটবৃক্ষ ছিল। উহার ছায়াতলে ২০হাজার লোক স্বচ্ছনে বসিতে পারিত, বৃক্ষের পরিধি প্রায় ২হাজার ফিট এবং উপর হইতে যত গুলি ঝুরী বা শিকড় ( air-roots ) নামিয়াছে, তাহার মধ্যে ৩২০টি মোট গুড়ির আকার ধারণ করিয়াছে এবং অরশিষ্ট প্রায় ৩ হাজার সরু শিকড় মৃত্তিকা ংলগ্ন হইয়া রহিয়াছে, ঐ শিকড়ের অন্তরালে ৭ হাজার লোক অনায়াসে লুকাইয়া থাকিতে পারিত। নৰ্ম্মলার ভীষণ বস্তায় ঐ দ্বীপের একাংশ ধসিয়া যাওয়ার, গাছটাও নষ্ট হইরা গিয়াছে। XVII } এতদ্ভিন্ন কলিকাতার পার্শ্ববৰ্ত্তী শিবপুর গ্রামস্থ রয়েল বোটনিকেল গার্ডেনে এবং বোম্বাই প্রদেশের সাতার উদ্যানে ঐক্লপ দুইটা বৃহৎ বটবৃক্ষ আছে। শিবপুর ভৈষজ্য-উস্তানের রক্ষক ডাঃ কিং বিশেষ পর্য্যবেক্ষণ করিয়া বলিয়াছেন যে, ঐ বৃক্ষটা ১ শত বর্ষ প্রাচীন, ১৭৮২ খৃ: খর্জুর বৃক্ষের উপর উহার জন্ম। উহার ২৩২ট শিকড় গুড়িরূপে মৃত্তিকা স্পর্শ করিয়াছে এবং উহার মূলগুড়ির ব্যাস প্রায় ৪২ ফিটু। পত্র সমাচ্ছাদিত শাখাপ্রশাখায় ইহার ছায়ার পরিধি ৮৫৭ ফিট্। এখনও এই বৃক্ষ উত্তরোত্তর বৰ্দ্ধিত হইতেছে এবং আরও বাড়িবে বলিয়া আশা করা যায়। ১৮৮২ খৃষ্টাব্দে সাতারার বটবৃক্ষ পরিদর্শন করিয়া মিঃ ওয়ার্ণার লিথিয়াছেন যে, ইহা কলিকাতার বৃক্ষ হইতে অনেক বড়। উহার পরিধি ১৫৮৭ ফিট এবং উহা উত্তর দক্ষিণে ৫৯৫ ফিট ও পূৰ্ব্ব পশ্চিমে ৪৪২ ফিট । বট ও অশ্বখ (F. religiosa ) সুদূরব্যাপী স্থানে ছায় বিস্তার করে বলিয়া পুণ্য-বৃক্ষরূপে গণ্য। এই কারণে অনেকে পথের ধারে বা পুষ্করিণীর তীরে পঞ্চবটীর প্রতিষ্ঠা করিয়া থাকে। পঞ্চাবে ইহা পথিককে নিশা-শিশির হইতে রক্ষা করে। এক দিকে ইহার উপকারিত্ব যেরূপ, অপর দিকে উহ তেমনিই অপকাবক। পক্ষীরা বটফল খাইয়া যদি গৃহছাদ বা মন্দিরোপরি বিষ্ঠা ত্যাগ করে, তাহা হইলে সেই বিষ্ঠাস্থিত বীজ হইতে বৃক্ষ উৎপন্ন হইয়া অচিরকাল মধ্যেই দেওয়াল মধ্যে শিকড় বিস্তার করিয়া ফেলে। তখন দেওয়াল ভাঙ্গিয়া শিকড় সমেত গাছ উঠাইয়া না ফেলিলে নিস্তার নাই। অবহেলা, করিলে গাছ শীঘ্রই বাড়িয়া উঠিয়া গৃহ ধ্বংস করিয়া ফেলে। হিন্দুগণ পাপ-স্পর্শের ভয়ে বট বা অশ্বখ নষ্ট করিতে চাহে না । সযত্নে জীবস্ত বৃক্ষ সমুলে উঠাইয়া স্থানান্তরে পুতিয়া রাখে। দক্ষিণভারতের রত্নগিরি জেলায় বটবৃক্ষের উপর কর নির্দিষ্ট zittē, FfH TEŞRİ HfHtātē: Calophyllum inophyllum বৃক্ষের ফলের বীজ বিষ্ঠা সহ তদুপরে ত্যাগ করিয়া থাকে। ঐ বীজে তৈল হয়। অনেক বট-গাছে লক্ষণ ও উৎপন্ন হইতে দেখা যায়। বটের আটায় তাহার সিকি মাত্রা সর্ষপ তৈল মিশাইয়া জাল দিলে এক প্রকার আট প্রস্তুত হয়, ঐ আটায় পীণী মারার আঠ-কাঠির দ্বারা পাখী ধরিয়া থাকে । আসামীরা ইহা হইতে এক প্রকার কাগজ প্রস্তুত করিত । . লখিমপুর এবং মাস্ত্রীজের বেল্লরী জেলায় এখনও ঐ কাগজ হয় । অনেকে ঝুরির আইস (fibre) দ্বারা দড়ি করে, কিন্তু চাহ বিশেষ কোন কাজে লাগে না । - দুগ্ধবৎ বটের আট বেদনা-নাশক বাতজ বেদনাস্থানে ঐ আটার প্রলেপ দিলে বিশেষ উপযুর দর্শে। পায়ের তলা কাটা