পাতা:বিশ্বকোষ ঊনবিংশ খণ্ড.djvu/৫৬৭

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


श' [ &&సి ) বর্গ উরুশালী। "বো বিশ্বস্থগ, যজ্ঞগতং বরোর মামনাগসং কুৱঁচসা३क्रमांखिङ्गः ॥” (छांश्रवठ 8। ०२8) বরোল (পুং স্ত্রী) বৃ-ওলচ। ১ বরট। ২ ভৃঙ্গরোল। ( ত্রিকা. ) চলিত ভীমরুল । বরোহশাখিন (পুং) প্লক্ষবৃক্ষ, পাকুড়গাছ। ( রাজনি• ) बाङ्गोवर्षी ( जैौ) * श्रॉपिंडाउख्, कलिउ इज़रुक्लिब ।। २ बांत्री শাক । ( বৈস্তকনি• ) বর্কণা (স্ত্রী ) তরুণ ছাগী। (মুশ্রুত চি. ১ আ: ) বকর (পুং ) বৃক্যতে গৃহতে ইতি বৃক-মাদানে বহুলবচনাৎ অর। (উজ্জল ৩১৩১) ১ যুবপণ্ড । ( অমর ) ২ মেষপাবক। ( ভরত ) ৩ পরিহাস । আমোদপ্রমোদ । “কান্ত; কেলিরুচিযুৰ সহৃদয়স্তাকৃপতি; কাতরে। কিরো বর্করকর্করে প্রিয়শতৈরাক্রম বিক্রীয়তে।” (অমরুশতক) ৪ ছাগ । ( মেদিনী ) বর্কর কর্কর (ত্রি ) নানা রকমের । বর্বরাট (পুং) বৰ্করং পরিহাসং অটতি গচ্ছতীতি অটু-অচ, ১ কটাক্ষ। ২ তরুণ তপনপ্রভা । ৩ কামিনীর পয়োধরপাশ্বে কান্ত কর্তৃক প্রদত্ত নথক্ষত । ( মেদিনী ) বর্করীকুণ্ড (কী ) কাশীস্থ সরোবরভেদ। ইহা একটা পুণ্যতীর্থ বলিয়া পরিগণিত । [ কাশী দেখ। ] বর্কট (পুং ) গজাল, কাটা, পিন, খিল, অর্গল। বর্করীতীর্থ তীর্থভেদ। (কুমারিকা ১০৭১৭) বর্গ (পুং) বৃজ্যতে ইতি বুজি-বর্জনে ঘঞ, সজাতীয়সমূহ। “ব্রতায় তেনামুচরেণ ধেনেস্তষেধি শেষোইপ্যমুযায়িবৰ্গ ।” (রযু ২৪ ) ২ সমানধৰ্ম্মী প্রাণী বা অপ্রাণিগণোপলক্ষিত বৃন্দ বা সমূহ। যথা – কবর্গ। কত্ব খত্ব প্রভৃতির বিজাতীয়ত্ব থাকিলেও উহাদিগের স্থানসাম্য আছে। ব্যাকরণ মতে বর্গ পাঁচটী, যথা— কবর্গ, চবর্ণ, টবর্গ, তবর্গ ও পবর্গ। কবর্গ বলিলে ক, খ, গ, ঘ, ঙ ; চবৰ্গ বলিলে চ, ছ, জ, ঝ, এ ; এইরূপ টবর্গ বলিলে ট হইতে ‘গ’ পৰ্য্যস্ত, তবর্গ বলিলে 'ত' হইতে 'ন' পর্য্যস্ত এবং পবর্গ বলিলে প’ হইতে ম’ পর্যন্ত পাওয়া যাইবে । ক চ ট ত প প্রভৃতি পঞ্চ পঞ্চ পাচ পাঁচ বর্ণ লইয়াই ব্যাকরণের বর্গসংজ্ঞ । "কচটতপা: পঞ্চ বর্গঃ” “তে বর্গঃ পঞ্চ পঞ্চ পঞ্চ” ইত্যাদি। অভিধানে এই সমষ্টি বা সমার্থে স্বৰ্গপাতলাদি বর্গ, নানার্থ বগ, ভূমিবনৌষধি বগ, অব্যয় বগ, ব্রহ্ম বগ, ক্ষত্রবিট, শূদ্রাদি বর্গেরও উল্লেথ দেখা যায়। (অগ্নিপু ৩৬৯-৩৭৫ অ• ) ফলিত জ্যোতিৰে লিখিত আছে, অবর্গের অধিপতি স্বর্ঘ্য, কবর্গের অধিপতি মঙ্গল, চবর্গের শুক্র, টবর্গের বুধ, তবর্গের XVII }8') جسيميو বৃহস্পতি, পবর্গের শনি, য ও শবর্গের অধিপতি চঞ্জ। ইহাৰ দ্বারা গণনা করিলে নামাদি জানা যায়। ৩ গ্রন্থ পরিচ্ছেদ। কোন গ্রন্থ বা কোন প্রবন্ধপ্রবাহের মাঝে মাঝে যে একটা ছেদ দেওয়া হয়, সেই ছেদ, উচ্ছাস, বা অঙ্ক প্রভৃতির নামান্তর বর্গ । “সর্গো বগপরিচ্ছেদোঘাতাধ্যায়াঙ্কসংগ্রহাঃ । উচ্ছাস পরিবর্তশ্চ পটল কাওমক্সিয়াম্। স্থানং প্রকরণং পৰ্ব্বাহ্লিকঞ্চ গ্রন্থসন্ধয়ঃ ॥” (ত্রিকা-শে ) ৪ আয়ুৰ্ব্বেদোক্ত গণ । ৫ (স্ত্রী) অপসরোবিশেষ । এই অপসর মুনিশাপে গ্রাহরূপ প্রাপ্ত হয়। পাগুনন্দন অর্জুন হইতে ইহার উদ্ধার হয়। [ ৰিষ্কৃত বিবরণ মহাভারতে ১১২৭ অঃ দ্রষ্টব্য । ] ৬ সমান অঙ্কশ্বয়ের পূরণ । পৰ্য্যায়—কৃতি। বর্গে করণস্থত্র টুইট বৃত্ত ৰ সমান রাশির গুণফল। লীলাৰতীতে ইহার বিষয় লিখিত হইয়াছে— “সমদ্বিঘাত; কৃতিরুচ্যতেহথ স্থাপোহস্তাবগে দ্বিগুণাস্তানিয়: । স্বশ্বোপবিষ্টাচ্চ তথাপরেহঙ্কাস্ত্যক্ত স্ত্যমুৎসাৰ্য্য পুনশ্চ রাশি । খগুদ্বয়ম্বাভিহতিদ্বিনির তৎখগুবগৈ ক্যযুত কৃতির্ব । ইষ্টেনযুগ্রাশিবধ:কৃতি স্তাদিষ্টষ্ঠ বর্গেণসমন্বিতো ব৷”(লীলাবতী) ইহার উদ্দেশক বা মন্তব্য নিম্নোক্ত বিধিদ্বারা স্পষ্টীকৃত হইয়াছে— “সথে নবানাঞ্চ চতুর্দশানাং ব্রুহি ত্রিহীনস্ত শতক্ৰয়ন্ত । পঞ্চোত্তরস্তাপ্যযুতস্ত বৰ্গং জানাসি চেস্বর্গবিধানমার্গম্ ॥” এই স্বত্র অবলম্বন করিয়া ৯,১৪,২৯৭ ও ১• • •৫ রাশির বর্গফল নির্ণয় করিতে হইলে যথাক্রমে পূৰ্ব্বোক্ত প্রক্রিয়াদ্বার ৮১,১৯৬,৮৮২০৯ ও ১০ ও ১০ • ০২৫ রাশি পাওয়া যায়, অথবা অন্য প্রক্রিয়ায় ৯ সংখ্যার থগু ৪ ও ৫ লইয়া নিম্নোক্ত প্রকারের অঙ্কফল সিদ্ধ হইয়া থাকে। উক্ত রাশিদ্বয়ের গুণফল ২• । উহার দ্বিনিম্বী ৪০ । উহাদের প্রত্যেক খণ্ডের বর্গফলসমষ্টি— 8 x 8 = ১৬ ; ৫ x ৫ = ২৫ ; ১৬+২৫ = ৪১ ; সুতরাং ৪• + ৪১ যোগ করিলে ৮১ পাওয়া যায়। উহাই ৯ বর্গমূলের বর্গফল। এইরূপে ১৪এর খণ্ড ৬ ও ৮; ইহাদের গুণফল ৪৮দ্বিনিয়া ৯৬। উহাদের প্রত্যেক থণ্ডের বর্গফলের সমষ্টি ৩৪+৬৪ = ১• • । উহাদের ষোগে ৯৬+১০০ = ১৯e ; অথবা ১০ ও ৪ = ১৪ রাশির খণ্ড ধরিয়া ঐরুপ প্রথায় অঙ্ক কসিলে ঐ ফলই লব্ধ হইবে। অন্য উপায়—২৯৭ রাশিকে তিন দ্বারা উন করিয়া যে