পাতা:বিশ্বকোষ একাদশ খণ্ড.djvu/১২৪

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


পাট [ ४२8 ] (Jute, mauve des juifs, corde textile), woff"| R5 (Jute), fortsit offs, gwizņstw Fita crow R (Phetcwoon), সংস্কৃত জুট বা জট। বঙ্গদেশে ইহার বে ७ख्यूश शबशंद्र श्, তাহাকে নীলিত বলে ও গাছ হইতে যে আঁশ পাওয়া যায়, তাহাকে পাট, কোষ্ট বা ফুট বলে । প্রায় ৩৬ প্রকার পাট দেখা যায়, তন্মধ্যে ভারতবর্ষে প্রায় ৮ রকম অাছে । কোন কোন জাতীয় পাটের পাতা অত্যন্ত তিক্ত, এই তিক্ত পাটকে তিক্ত নালিভ বলে, ইহা কৃমি মহাব্যাধি, চুলকণা প্রভৃতি রোগে মহোপকারী। অস্ত জাতীয় পাটের পাতা তত তিক্ত নয়, ইহাকে মধুরী কহে, ইহা ছৰ্দি, পক্ষাঘাত, কফ, বায়ুনিঃসরণ প্রভৃতিতে উপকাল্পী। উভয় জাতীয়ই বলকারক বলিয়া খ্যাত । ভারতবর্ষের উচ্চ ও মধ্যশ্রেণীর লোকের ক্ষুধা বৃদ্ধি করে বলিয়া পাটপত্র অক্সান্ত দ্রব্যের সহিত রন্ধন করিয়া খাইয়া থাকেন । নিম্নশ্রেণীর লোকের ইহ থtদ্যরূপে ব্যবহার করিয়া থাকে । তিতপাটের বৈজ্ঞানিক নাম করফোরাস একুটাঙ্গুলাস (Corchorus Acutangulus) Retz Ft stro vifortsats আঁশ দ্বারা মারত, পত্রের উভয়ভাগে চুলের ছায় স্বগ্ন স্বক্ষ পদার্থ আছে। বীজকোষগুলি কখন কখন ১ ইঞ্চি পরিমাণ ও ৩৪টা শাখ বহির্গত হয় ; কিন্তু সচরাচর দুইভাগে বিভক্ত ও মূলদেশ কিঞ্চিৎ কুঞ্চিত, ছোট ছোট ও চেপ্টা বীজ হইয়া পাকে । এই জাতীয় পাট প্রতিবৎসর ভারতবর্ষ এবং সিংহলদ্বীপে যে স্থানে গ্রীষ্ম অধিক সেইখানে জম্মিয় থাকে। বর্ষ ও শীতকালে ইহার ফুল হয়। এই জাতীয় পাটের চাষ হয় না । ভারতবর্ষের অনেকস্থলে ও ব্রহ্মদেশে ইহা সচরাচর বস্তাবস্থায় দেথা যায়। কখন কখন এই পাট হইতে একপ্রকার মোট কোষ্ট বাহির করা হইয়া থাকে । ztof Totto (Corchorus Antichorus) ইহার পঞ্জাবী নাম বাফুল্লি, কুরাগু, বোফালি, বাবুন, সিন্ধুদেশীয় নাম মুধিরি। ইহা উত্তরপশ্চিম প্রদেশ হইতে পঞ্চাবের মধ্যে, সিন্ধুদেশে, কাঠিয়াবাড়ের দক্ষিণ পশ্চিমভাগে, গুজরাটে ও দাক্ষিণাত্য প্রদেশে পাওয়া যায় । ইহার আকার কণ্টকাকীর্ণ বন্ত লতার স্যায়। ভারতবর্ষের মরুভূমিতে যে সকল পুষ্প জন্মিয়৷ থাকে, ইছ তাঁহারই এক জাতীয় । ইহা এক্ষণে আফগানিস্থান, আদেন, আফ্রিকা প্রভৃতি স্থানে বিস্তৃত হইয়া পড়িয়াছে। ইছা হইতে ভাল আঁশ বাহির হয় না, ইহা ঔষধাৰ্থে ব্যবহৃত হইয়া থাকে । ইহার গুণ শীতল এবং মেহরোগে ব্যবহার্য্য। f atfisi its at its (Corchorus capsulari) לח• বঙ্গদেশে পাট ও কোষ্ট নামে খ্যাত । এই গাছ হইতে যে अँीर्ण *ां७ब्रां पांग्न, dाई झरब्रग्रहे *ब्रियté थारुझऊ श्हेग्न थांtद । কোষ্ট শব্দ সংস্কৃত কোৰ শব্দ ছইতে এবং নালিত শব্দ নাড়িকা *क्ष इहेष्ठ छै९°ग्न श्हेब्रांरह ; फिरु देश ठिंक बगिब्रां ८वां५ इग्न না । কেহ কেহ বলেন, ইহা কুষ্টিয়াজেলায় উৎপন্ন হয় বলিয়া ইহার নাম কোষ্ট হইয়াছে । উত্তরপশ্চিমপ্রদেশে ইহাকে ङ्ग्नश, ॐक्लिश्वाांब्र कॉफ़ेब्रिध्न, मांशिऊ, मछद्मकानि ८कtटेt প্রভৃতি বলে। ৰুগুপাট হইতে ইহার আকৃতির প্রভেদ এই যে, ইহার বীজকোষ ক্ষুত্র ও গোলাকৃতি হইয়া থাকে । এই জাতীয় পাট বঙ্গদেশে অধিক পরিমাণে জন্মে। ইহার পত্র শুষ্ক করিয়া তণ্ডুলের সহিত আহারের পূৰ্ব্বে আমরক্তরোগে ব্যবহৃত হয়। ইহার পাতী ভিঞ্জাইয়৷ সেই জল খাইলে রক্তমাশায়, জয় প্রভৃতি রোগের উপশম হয়। ইহার বীজ ভাজিলে একরূপ তৈল বাহির হয়, তাহ প্রদীপে ব্যবহৃত হয় । <A •iiè vt fùv ziffère! (Corehorus Fascicularis) বোম্বাইএ ইহাকে হিরণথোরী ও ভূপালি বলে। এই জাতীয় পাট পঞ্জাব হইতে বঙ্গদেশ পর্য্যস্ত ও বোম্বাইয়ের পশ্চিমে পাওয়া যায় । সিন্ধুপ্রদেশে এই পাট হইতে যে আঁশ পাওয়া যায়, তাহাতে দড়ি প্রস্তুত হয় । w forzoits, şforts, q= f (Corchorus Olitorius Or Jew’s Mallow ) হিন্দী নাম সিঙ্গিন, জনসচ, কোষ্ট, তামিলী নাম পেরাত্তি কিরাই, পুনাকু চেন্দি; তেলগু নাম পরিস্তা, পরিস্তুকুর, সিস্কিনাম বনপাট, পঞ্জাবী বনফল । অনেকে অনুমান করেন, এই জাতীয় পাট পূৰ্ব্বে ভারতবর্ষে জম্মিত, কিন্তু যে সকল জেলায় ইহার চাষ হইয়া থাকে, সে স্থানে এই জাতীয় পাট বস্তাবস্থায় দৃষ্ট হয় না। fo atsol its (Corchorus Capsularis) Bath" হইতে প্রথমে ভারতবর্ষে আইসে। কাণ্টন নগরের নিকট বহু শতাব্দী পর্য্যস্ত ইহার চাষ হইত এবং ওইমোয়া নামে অক্তিহিত হইত। এই শব্দের সহিত উম শব্দের সোসাদৃশু আছে। মালয়দেশীয় লোকেরা ইহাকে স্লাপিৎসজিম বলে । কিন্তু ললিতপাট ইজিপ্ট ও সিরীয়tয় অধিবাসিগণের নিকট পরিজ্ঞtান্ত ছিল, তাহার প্রধাণ পাওয়া যায়। ইহা শাকের পরিবর্তে ব্যবহৃত হইত। গ্রীকেরা যাহাকে কল্পকোরাস বলিত, এখন যাহ করকোরাস বলিয়া বিদিত আছে তাছা নহে। কেননা গ্ৰীক করকোরাস শব্দের অর্থ চক্ষুরোগবিনাশক ; কিন্তু এই গুণ এখনকার করকোরাসে নাই । ঐ জাতীয় পাট বহুদিন পৰ্য্যস্ত আলেপ্পোর নিকট চাষ হইত এবং শাক সবজির স্তায় दादशङ श्रेष्ठ । हेश्iन्न क्ञानैो नाम भछ खि यूहे ।