পাতা:বিশ্বকোষ একাদশ খণ্ড.djvu/২২৪

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


পানীয়ালু এখন ২ বা ৩ বটমাত্র শীতল জলসহ সেবন করান হয়। সান্ত্রিপাতিক বিকারে ইহা বিশেষ ফলপ্রদ। এই ঔষধ সেবন করাইয়া পুনঃ পুনঃ অধিক পরিমাণে জলপান করিতে দিবে। জগতের উপকারের জন্ত স্বয়ং লোকনাথ এই পানীয় বটিক নিৰ্ম্মাণ কঁরিয়াছেন । ( ভৈষজ্যরত্নী” জরাধিকা” )। পানীয়বর্ণিকা ( স্ত্রী) পানীয়ং বর্ণীতি প্রকাশয়তীতি বর্ণি ংল, টীপ, অত ইত্বং । বালুক । ( রাজনি” ) পানীয়শালিকা ( স্ত্রী ) পানীয়স্ত জলন্ত বিতরণার্থং শালিকা শালাগৃহং । জলাবস্থানগৃহ, পানশাল, চলিত জলছত্র। পৰ্য্যায়—প্রপা । উদ্ধাহতত্ত্বে যমধৃত বচনে লিখিত আছে, যিনি পানীয়শালা প্রস্তুত করেন, তাহার অক্ষয়স্বৰ্গ হইয়া থাকে। “কুপারামপ্রপাকারী তথা বৃক্ষাদিরোপকঃ। কস্তাপ্রদঃ সেতুকারী স্বর্গমাপ্নোত্যসংশয়ম্।।” ( উদ্ধাহতত্ত্ব ) হেমাদ্রির দানখণ্ডে ভবিষ্যপুরাণোক্ত এই পানীয়শালিকা দানবিধি এইরূপ লিখিত আছে,—ইহাকে চলিত কথায় জলচ্ছত্র কহে । এই জলচ্ছত্ৰদান বিশেষ পুণ্যজনক । ফাল্গুন মাস অতীত হইলে পুরমধ্যে পথ বা চৈতাবৃক্ষতলে একটা সুন্দর ঘনচ্ছায় মণ্ডপ প্রস্তুত করিতে হইবে। তাহাতে জলযুক্ত মণিকুন্তু সকল স্থাপন এবং নানাবিধ খাদ্যদ্রব্য রাথিতে হইবে। যেদিন পানীয়শালিকা স্থাপন করিতে হইবে, সেই দিন ব্রাহ্মণাদি ভোজন করাইতে হয়। এই পানীয়শালিকা সমর্থ হইলে চারিমাস অসমর্থ পক্ষে ত্রিপক্ষকাল পৰ্য্যস্ত হইতে পারে। ব্রাহ্মণাদি সকলকে পরিতোষন্ধপে ভোজন করাইয়া সুশীতল জল দিতে হইবে । এইরূপে প্রতিদিন খাদ্যদ্রব্যের সহিত সুশীতল জলদান বিধেয় । এই বিধি অসুসারে গ্রীষ্মকালে যিনি পানীয়শালিকা করেন, তাহার শত কপিলাদানের ফল হইয়া থাকে এবং তিনি অস্তিমে দিব্যবিমানে আরোহণ করিয়া স্বর্গে গমন করেন, এবং ত্রিংশত কোটা বৎসর যক্ষগন্ধৰ্ব্বাদি সেবিত হইয়। স্বর্গে অবস্থান করেন। ( হেমাদ্রি দানখ” ) সীমায়ণীত (ত্রি ) পান করিবার পক্ষে অতিশয় শীতল। পানীয়াধ্যক্ষ ( পুং ) জলাধ্যক্ষ । পানীয়ামলক (কী ) পানীয়মামলকং পানীয়াখ্যং আমলকং বা। প্রাচীনামলক । চলিত পানী আমলা । হিনী পানি অম্বর । তৈলঙ্গ প্রাচীনামলকমু। ইহার গুণ—দোষত্রয় ও জরনাশক। মুখশুদ্ধি, ও মলবন্ধকারক, অম, এবং স্বাদু। ( রাজব” ) পানীয়ালু (পুং) পানীয়সস্তৃত আলু। কন্বিশেষ। হিন্দী পানিয়ালু। পৰ্য্যায়—জলালু, ক্ষুপালু, বালুক। ইহার গুণ— ত্রিদে{যনাশক এবং সস্তুর্পণকারক। ( রাজনি” ) [ ২২৪ ] পান্না - পানীয়াশ্ন ( স্ত্রী ) পানীয়ং জলং অশ্নাতীতি অশ-বাহুলকাৎ ন, ততষ্টাপ । বহুজা । ( রাজনি" ) পানীলতা (দেশজ ) একপ্রকার লতা । পানীলাজক ( দেশজ ) একপ্রকার লতা, এই লতা জলে হয়, ইহার গায়ে হস্ত দিলে ইহা সঙ্কুচিত হয়। পানীশিউলি ( দেশজ ) একপ্রকার কণ্টক বৃক্ষ । পানীশিরা ( দেশজ ) একপ্রকার তৃণ । পানীস ( দেশজ, পানস্বাদ শব্দজ ) পানসে। বিস্বাদ । জলের স্তায় আস্বাদবিশিষ্ট । পানীসাড়া (দেশজ ) একপ্রকার বৃক্ষ। পানুই ( দেশজ ) চট জুতা। পানে ( দেশজ ) দিকে। প্রতি, অভিমুখে । পাস্তা (দেশজ ) পৰ্য্যুষিত, বাসি ভাত। জলে ভিজান পূর্ব দিনের ভাত । পান্তিনাশ, আফ্রিকার মিসরদেশের অন্তর্গত আলেক্সান্দ্রিয়। নগরের একজন প্রসিদ্ধ দার্শনিক পণ্ডিত । প্রায় ১৯০ খৃষ্টাব্দে তিনি মলবার উপকূলের খৃষ্টানদিগের কথা শুনিয়া খৃষ্টধৰ্ম্ম প্রচার করিবার জন্ত উৎসাহিত হয়েন এবং ভারতবর্ষে আগমন করিবার জন্ত যাত্র করেন। কিন্তু প্রকৃত পক্ষে তিনি ভারতবর্ষে আসিতে পারিয়াছিলেন কি না, তাহার বিশেষ প্রমাণ নাই । পান্থ (ত্রি ) পথিকুশলঃ, পস্থানং নিত্যং গচ্ছতীতি ( পথো ৭ নিত্যং। পা ৫।১।৭৬ ) পথঃ পন্থ চ ইত্যনেন পন্থীদেশে কৃতে ণ । পথিক । “যথা নিদাঘসময়ে সুৰ্য্যাংগুপরিপীড়িতঃ। পাম্বো যাতি জলং দৃষ্ঠ, ত্বরিতং তৎপিপাসয় ॥" (হরিবং ৪২২) ( ত্রি ) ২ বিয়োগী। - পান্থনিবাস (পুং ) পান্থানাং নিবাসঃ পথিকদিগের অবস্থিতি করিবার স্থান। যে স্থানে পথিকগণ কিছুকাল অবস্থান করে। সরাই বা চট । পান্থশালা (স্ত্রী ) পান্থানাং শাল ৬তৎ। পথিকদিকের অtহারাদি করিবার স্থান, চট । পান্থায়ন (ত্রি ) পথেইদুরদেশাদি, পথিন পক্ষাদিত্বাৎ ফঞ, পস্থাদেশঃ। ( পা ৪।২৮০) মার্গের অদূর দেশাদি। পান্ধুরণ, মধ্যপ্রদেশের ছিদাবাড়া জেলার একটা প্রধান নগর। ইহা ছিন্দবাড়া নগরের ২১° ৩৬' উত্তর অক্ষাংশে এবং ৭৮° ৩৫′ পূৰ্ব্ব দ্রাঘিমাংশে অবস্থিত। এখানে সরকারী বিদ্যালয়, থান, ডাকবাঙ্গল এবং একটা সরাই আছে। ইহার চতুদিকের জমি উর্বর এবং তথায় প্রচুর পরিমাণে তুলা জন্মে। পান্ন, ( হিন্দী ) উজ্জল হরিদ্রাবণ মণিবিশেষ । ইহার সংস্কৃত নাম মরকত, গারস্তুত, অশ্মগর্ভ, হরিন্মণি, রাজনীল, গরুড়াঙ্কিত,