পাতা:বিশ্বকোষ একাদশ খণ্ড.djvu/৪০৬

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


পাশ্চাত্য বৈদিক [ 8०२ ] সামবেদী এবং ক্লপ, মুকুন্দ ও মাধৰমিশ্র এই তিন জন যজুৰ্ব্বেী। ইহারা সামস্তসারের শৌনকগোষ্ট্ৰীয় সমাজদারগণের আশ্রয় গ্রহণ করেন। সমাজদারগণের যত্নে ইহারা পূৰ্ব্বাগত পাশ্চাত্যবৈদিকদিগের সহিত সম্বন্ধস্থত্রে আবদ্ধ হন । বল্লালসেন যেমন রাঢ়ী ও বারেন্দ্র মধ্যে কুলীন ও শ্রোত্রির বিভাগ করেন,সেইরূপ পাশ্চাত্যবৈদিকসমাজে পঞ্চগোত্ৰ কুলীন ৰলিয়৷ মাননীয় এবং যষ্ঠগোত্র তাহাদিগের নিকট সন্মানে কিছু হীন।” শাস্তুর-সমাজের রূপরামকৃত বৈদিক কুলাবে আখড়াসমাজ সম্বন্ধে এইরূপ লিখিত আছে,— কোন সময় আখড়াতে চওঁীদাস নামে এক জন শাগুিলাগোত্রীয় সম্মানিত ব্ৰাহ্মণ ছিলেন, স্বষ্টিধর, নারায়ণ ও গঙ্গেশ নামে তাহার তিনটী পুত্র জন্মে। এই পুত্রত্ৰয়ের মধ্যে গঙ্গেশ সৰ্ব্বাপেক্ষ রূপবান ছিলেন। হাজি নামক জনৈক যবন তাহাকে স্বীয় কস্তাদান করিবার নিমিত্ত র্তাহীর জাতি নষ্ট করিয়া তাহাকে যবন-সমাজ ভূক্ত করিয়া লয়। গঙ্গেশ জাতিভ্রষ্ট হইয়া যবনসমাজে জগন্নাথ কারফর্ম নামে প্রসিদ্ধ হন। নারায়ণের পুত্র ধ্রুবানন্দ, ইনি যবনভরে ভীত হইয়। ভোজেশ্বরে গিয়া বাস করেন। চওঁীদাসের জ্যেষ্ঠ পুত্র স্বষ্টিধর অন্ত কোথাও না গিয়া জ্ঞাতিগণের পরিত্যক সম্পত্তি েলাভে আখড়াতেই বাস করিতে থাকেন । হষ্টিধর যবনসংসর্গে দুষিত হইয়াছেন মনে করিয়৷ তদানীন্তন বৈদিকগণ সম্বন্ধদি দ্বারা তঁহাকে আর সমাজভুক্ত করিলেন না। ইহাতে স্বষ্টিধর বিশেষ চিন্তিত হইলেন । ক্রমে স্বষ্টিধরের দুইটী कछी रुग्न82ांश् छ्हेग्न दिदांख्रशांशा श्हेंग्रl छेट्रैिल ।। ७हे मभग्न একজন মুন্দর ব্রাহ্মণ স্বষ্টিধরের গৃহে অতিথি হইলেন । হষ্টিধর বিধিমতে পরিচর্যা করিয়া সেই ব্রাহ্মণের পরিচয় জিজ্ঞাসা করেন । তদুত্তরে সেই ব্রাহ্মণ পরিচয় দিয়া জানাইলেন তাহার নাম হরিহর ; তাহার অদ্যাপি বিবাহ হয় নাই। সৃষ্টিধর ইহ জানিতে পারিয়া তাহাকেই কল্প সম্প্রদান উপযুক্ত মনে করিলেন এবং হরিহরের নিকট নিজ অভিপ্রায় প্রকাশ করিয়া হরিহরকে নিজালয়েই থাকিতে অস্থরোধ করায় তিনি আপাততঃ সেইখানেই বাস করিতে লাগিলেন। এদিকে স্বাক্টধর সমাজশোধনে উৎসুক হইয়া চতুর্দশ সমাজস্থ বৈদিকদিগের নিকট গমন করিলেন এবং বিনীত হইয় তাহাদিগের নিকট “যরন ংসর্গে নিজে দূষিত হন নাই এই কথা বিবৃত করিলেন । বৈদিকগণ স্বাক্টধরের বাক্যে র্তাহীকে দোষী মনে না করিয়া সকলে মিলিয়া আখড়ায় গমন করিলেন । র্তাহার সেখানে গিয়াও স্থষ্টিধর দোয়ী নয় বলিয়। জানিতে পারিলেন। পরে অষ্টধরের গৃহে গিয়া তাহার কড়া-বিবাহের উদযোগ-দৰ্শনে স্বষ্টিধরের নিকট পাত্রের পরিচয় জিজ্ঞাসা করিলেম । স্বষ্টিধর प्रकझांघएब्रब्र छांरौ रुङ्ग रुब्रिह८ब्रग्न झांभूण ”द्विरुद्ध निtणम । হরিহরের পরিচয় গুনিয়া সমাগত বৈদিকগণ ক্ষুদ্ধ হইয়। ऊथ इहेtङ कगिब्रां यां&ब्र श्ब्रि कब्रिtणन, किरू कनिब्राcशरण ऋटैि५ब्र शूर्विद९ cमावैौ इहेब्राहे थोकिएब, ७हे खनिम्न जरनएकहें গেলেন না। কিন্তু শৌনক গোত্রীয়গণ তাঙ্কুশ গর্ধিত কার্ধ্যে একজনও যোগ দিলেন না, সকলেই চলিয়া অসিলেন । এদিকে শৌনকগোত্র ভিন্ন অল্প ষে সকল বৈদিক সৃষ্টিধরের গুহ পরিত্যাগ করিলেন না, তাহার অজ্ঞাতকুলশীল হরিহরকে কস্তাদান করা সঙ্গত কি না এইরূপ ভাবিতেছেন, এমন সময় সামবেদী ভরদ্বাজ গোস্ত্রীয় জগন্নাথ নামে এক জন ভ্রাঙ্গণ সভাস্থ সকলকে হরিহরের পরিচয় বলিত্তে লাগিলেন । তাহার কথায় সকলে জানিতে পারিলেন, যে, তাছার পূর্বপুরুষ কাৰ্ত্তিকের কথামুসারে যজুৰ্ব্বেদী ভরদ্বাজ গোত্রীয় রত্নগর্ভ শুনক যশোধরকে স্বীয় কগু সম্প্রদান করেন । ঐ কন্যার গর্ভে যশোধরের হরিয়াম প্রভৃতি অনেক পুত্র জন্মে, ঐ পুত্ৰগণের মধ্যে জ্যেষ্ঠের পুত্র বৎসরাজ, তৎপুত্র দিনকর, দিনকরের পুত্র পশুপতি, তৎপুত্র শ্ৰীপতি, এই স্ত্রপতিই নুবদ্বীপ হইতে কোটালীপাড়ে গিয়া বাস করেন। ইহার পুত্র রাঘবানন্দ সিংহ, তিনি গৌতমগোত্রীয় বৈঞ্চবানন্দ মিশ্রের কন্যা বিবাহ করেন, ঐ কন্যার গর্ভে রামভদ্র ও জনাৰ্দ্দন নামে তাহার দুই পুত্র জন্মে। তন্মধ্যে জ্যেষ্ঠ রামভদ্রের পুত্রই এই হরিহর । জগন্নাথ এইরূপ পরিচয় দিয়া শেষে সভাস্থ সকলকে লক্ষ্য করিয়া বলিতে লাগিলেন, আপনাদের নিকট অামার একটা প্রার্থন এই যে, আমার পুত্রদ্বয়ের বৈরাগ্যবলম্বনে আমার কুলক্ষয় উপস্থিত হইয়াছে, অতএব এই শুনকগোত্রীয় হরিহয় আমাদিগের সমাজাবলম্বনে পঞ্চগোত্র মধ্যে পরিগণিত হউন । তাহার প্রার্থনায় সভাস্থ বৈদিকগণ সকলেই সন্মত হইয়া বলিলেন, তবে এই হরিহরকেই আমরা গোষ্ঠীপতি করিলাম, অদ্যাবধি ইনি পঞ্চগোত্র এবং আমাদের তুল্য সন্মানী হইলেন। এই বলিয়া স্বষ্টিধরকে ফরিদ্বরের নিকট কন্যাসম্প্রদান করিতে অমুমতি দিলেন । স্বষ্টিধর অনুমতি পাইয়৷ *ण ७ कां★ी नांग्रैौ झूठेüौ कनाi८कहे शब्रिह्ब्रायः नटनांन করিলেন । হরিহর পত্নী দুইটী বাইর দেশে আসিলেন। एर्सटेंशन्न निग्नमब्रव इहेब्र! श्राँश्वक्लांट डहे बांन कब्रिटख शांशिष्टशब ।। শৌনক গোন্ধীয়ের এই বৃত্তাৰ শুনিয়া শুনকদিগকে কখন - পঞ্চগোত্র বলিয়া স্বীকার কল্পিৰেন না, বা তাহাদিগের সস্থিত কথন আদান প্রদান করিবেন না, পরম্পর সকলে এইরূপ প্রতিজ্ঞায় জ্ঞাবদ্ধ হইলেন । ( বৈদিক কুলার্ণব )