পাতা:বিশ্বকোষ একাদশ খণ্ড.djvu/৭২২

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


পুরাণ ( বৌদ্ধ ) ১৬শ শতাব্দীতে ) * পাওবপুরাণ রচনা করেন। পাওবপুরাণে অপূৰ্ব্ব পাওবচরিত বর্ণিত হইয়াছে,—মহাভারতের আখ্যানের সহিত অনেক বিষয়েই ইহার মিল নাই । ঐ সকল পুরাণ সংস্কৃত ভাষায় রচিত, dडन्वाडोठ @gচন্দ্ররচিত মহাপুরাণটিপ্পন নামে একখানি প্রাচীন সংস্কৃত গ্রন্থ পাওয়া যায়। প্রাকৃত ভাষায় রচিত মহাপুরাণ-বিশেষের ব্যাখ্যা-স্বরূপ এই টিপ্পনী রচিত হইয়াছে। জিনসেনের মাদিপুরাণে র্তাহার গুরুপরম্পরায় প্রভাচন্ত্ৰ উৰ্দ্ধতন সপ্তমপুরুষের স্থান অধিকার করিয়াছেন। যদি এই প্রভাচন্দ্ৰই মহাপুরাণের টিপ্পনী লিখিয়া থাকেন, তাছা হইলে তাহার পূৰ্ব্বে রচিত মূলগ্রন্থ খৃষ্টীয় পঞ্চম কি ষষ্ঠ শতাব্দীর পূর্বতন হইয় পড়ে। যাহা হউক সেই মূল মহাপুরাণ বাহির হইলে আমরা আদি জৈনপুরাণের অনেকটা পরিচয় পাইতে পারিৰ । দাক্ষিণাত্যে জৈন-সমাজে প্রাচীন কণাড়ীভাষায় রচিত অনেকগুলি পুরাণ পাওয়া যায়, ঐ সকল ঋণাত্নী পুরাণ মধ্যে দক্ষিণমথুরারাজ রণমল্লের মন্ত্রী চামুগুরায়-বিরচিত চামুগুরায়পুরাণ, কমলভববিরচিত শাস্তিনাথ-পুরাণ, দ্বারসমুদ্ররাজ বল্লালরায়ের সমসাময়িক গুণকৰ্ম্মবিরচিত পুষ্পদস্তপুরাণ, বীরসোমসুরিপ্রণীত চতুৰ্বিংশতিপুরাণ ও মুঙ্গরাসরচিত হরিবংশ উল্লেখযোগ্য। বৌদ্ধপুরাণ । বর্তমান নেপালী বৌদ্ধসমাজেও স্বতন্ত্র বৌদ্ধপুরাণ প্রচলিত আছে । কিন্তু বৌদ্ধগ্রন্থে পুরাণের উল্লেখ নাই। এখনকার নেপালী বৌদ্ধগণ ৯ খানি পুরাণ স্বীকার করেন । এই নয় খানি পুরাণ নিবধৰ্ম্ম’ নামে খ্যাত । অাখ্যান, ইতিহাস, বৌদ্ধাকুষ্ঠেয় ব্ৰতাদি ও প্রধান প্রধান তথাগতের জীবনী এই পুরাণে বর্ণিত হুইয়াছে। নবধৰ্ম্ম যথা – ১ম প্রজ্ঞাপারমিত ( শ্লোক সংখ্যা ৮০ • •, দ্যায়শাস্ত্র মধ্যে গণ্য করা উচিত । ) ২য় গগুবুহু—( শ্লোকসংখ্যা ৯২° •, ইহাতে সুধনকুমারের চরিত, ৬৪ জন গুরু হুইতে র্তাহার বোধিজ্ঞানের কথা বর্ণিত হইয়াছে । ) ৩য়—সমাধিরাঙ্ক ( শ্লোকসংখ্যা ৩০ ও ৭, ইহাতে জপম্বার সমাধির ৰিধিব্যবস্থা আছে । ) ৪র্থ লঙ্কাবতার-(শ্লোকসংখ্যা ৩• • • ; ইহাতে রাবণের মলয়গিরিগমন ও তথায় শাক্যসিংহের নিকট বুদ্ধচরিতশ্রবণে বোধিজ্ঞানলাভের কথা বর্ণিত হইয়াছে। ) ৫ম—তথাগতগুস্থক । ৬ষ্ঠ সন্ধৰ্ম্মপু গুরীক —( ইহাতে চৈত্য বা বুদ্ধমণ্ডল-নিৰ্ম্মাণপদ্ধতি ও তৎপূজা-ফল বর্ণিত হইয়াছে। ) [ سيالا ۹ ] পুরাণ ৭ম গণিতবিস্তর-( শ্লোকসংখ্যা ৭• • •, ইহা বুদ্ধপুরাণ নামেও গণ্য। ইহাতে শাক্যসিংহের চন্ধিত বিস্তৃতভাৰে কীৰ্ত্তিত হইয়াছে । ) 象 ● ৮ম সুবর্ণপ্রভ-- ইহাতে সরস্বতী, লক্ষ্মী ও পৃথিবীর আখ্যান ও র্তাহাদের শাক্যবুদ্ধপূজা বর্ণিত হইয়াছে । ) ৯ম দশভূমীশ্বর ( শ্লোকসংখ্যা ২•••, ইহাতে দশটা ভূমির বৃত্তান্ত বিস্তৃতভাবে কথিত হইয়াছে । ) উক্ত নবধৰ্ম্ম ব্যতীত নেপালী বৌদ্ধদিগের মধ্যে স্বয়ম্ভুপুরাণ ( दूझर् ७ मथाभ ) *ाi७झाँ शांग्न । हेंशष्ठ cनन्tष्णब्र «यनिक শ্বরভূক্ষেত্র ও তথাকার স্বয়ম্ভু-চৈতোর মাহাত্ম্য বিস্তৃতভাবে বর্ণিত হইয়াছে। এ পুরাণখানি খৃষ্টীয় ১৬শ শতাব্দীতে রচিত ছয় । এই পুরাণের শেষাংশ হইতে বোধ হয়, শৈব হইতেই আধুনিক বৌদ্ধগণের ৰিষদন্ত ভগ্ন হুইয়াছে,—শৈৰসম্প্রদায়ই বৌদ্ধধৰ্ম্ম গ্রাস করিয়া ফেলিয়াছেন। তাই বৃহৎ স্বয়ষ্ণুপুরাণে লিখিত আছে— “বদ। স্তবিষ্যে কালে চ মত্র সেপালমগুলে । শৈবধৰ্ম্ম। প্রবর্তত্ত্বে দুর্ভিক্ষঞ্চ ভবিষ্যক্তি ॥ যথা যথ। শৈবধৰ্ম্ম প্ৰবৰ্ত্ততে ছয় মণ্ডলে । তখ। তথা চ অত্যৰ্থং দুঃখপীড়। ভবিষ্যতি | বৌদ্ধলোকগণ যেহপি শৈবধৰ্ম্মং করিষ্যতি | তে সৰ্ব্বে কৃতপাপাচ্চ নরকঞ্চ গমিষ্যতি ॥ শৈবলোক জনা বেইপি বৌদ্ধধৰ্ম্মং প্রবর্তন্তে । তস্ত পুণ্যপ্রসাদাচ্চ মুখাবতীং গমিষ্যতি ॥” পুরাণ (পুং) ২ পণ। ২ শিব । “বলবাংশ্চোপশান্তশ্চ পুরাণ; পুণাচুঙ্কুরী।” (ভা’ ১৩১৭৷১০৬) ( ত্ৰি ) ৩ পুরাতন । ( মন্ত্র ৫২৩ ) (পুং কী ) ৪ কার্যাপণ, কাছন । “তে ষোড়শ স্তান্ধরণং পুরাণঞ্চৈব রাজতং । কার্ষপণস্ব বিজ্ঞেয়স্তান্ত্রিকঃ কার্ষিকঃ পণঃ ॥” ( মমু ৮। ১৩৬ ) পুরাণ, একজন তীর্থিক | অবদানশতকে লিখিত আছে, তাহার সহিত অপর এক রেীদ্ধের বিবাদ ছয় । মহারাজ প্রসেনজিৎ উভয়ের বিবাদখওনার্থ একটী সভা আহবান করেন এবং তিনি উভয়কেই স্ব স্ব আরাধ্যদেবেঙ্গ পূজাম্বুষ্ঠান করিতে আদেশ দেন। পূজার সময় পুরাণের ইষ্টদেৰ পুষ্পগ্রহণ করিলেন না দেখিয় তাহার উপাসকগণ উপেক্ষায় তাহার আশ্রয় পরিত্যাগ করিয়াছিলেন । ২ তুলামান বিশেষ'। , পুরাণ, উড়িষ্যার করারাজারাসী এক আদিমজাতি। ময়ূরভঞ্জের সামগুরাজ্যেই ইহাদের সংখ্যা সৰ্ব্বাপেক্ষা অধিক Nখরিয়াদিগের →~~ ( ৮ অ : ) (১) কলিকাতায় এলিয়াটিক সোসাইট জুইতে এই পূরণ প্রকাশিত্ত झुरेब्रुङ्गु ।