পাতা:বিশ্বকোষ একাদশ খণ্ড.djvu/৭৫৩

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


পুরুষবাচ T--r উপাখ্যান পাঠ করিলে, একসময়ে যে স্বজ্ঞোপলক্ষে নরবলি প্রথা প্রচলিত ছিল, তাহার স্পষ্ট আভাস পাওয়া যায়। হরিশ্চন্দ্রের পুত্রসস্তান হয় নষ্ট, তিনি বরণের তারাধন করিয়া, তাহার ' - করে রোহিত নামে এক পুত্র লাভ করেন, কথা থাকে হরি শ্চত্রের পুত্র হইলে বরুণকে সেই পুত্র উৎসর্গ করিবেন, এখন বরুণ আসিয়া যথাকলে হরিশ্চন্দ্রের নিকট পুত্রকে প্রার্থনা করিলেন ; কিন্তু হরিশ্চন্দ্র এবার বরণের প্রার্থন পূরণ করিতে পারিলেন মা, রোহিত প্রাণভয়ে বলে পলাইয়া গেলেন, অস্ত্রীগর্ত নামক এক দরিদ্র ত্রাঙ্গণের সহিত র্তাষ্ঠীর সাক্ষাৎ কষ্টল। দরিত্রের অতি দুরবস্থা, পুত্রদিগকে পালন করিবার সামর্থ্য নাই, কাজেই নিতান্ত অমিচ্ছাসত্ত্বেও তিনি আপন মধ্যম পুত্রকে বিক্রয় করিলেন, রোহিতের পরিবর্তে সেই ব্রাহ্মণকুমারকেই বরুণের নিকট উৎসর্গ করিবার ব্যবস্থা হইল । বিশ্বামিত্র এই যজ্ঞে পুরোহিত হইলেন, উৎসর্গকালে সেই ব্ৰাহ্মণকুমার শুনঃশেপের কাতরোক্তি শুনিয়া বিশ্বামিত্রেরও হৃদয় টলিয়াছিল । সম্ভবতঃ সেই ব্রাহ্মণকুমারের প্রাণবধ করা বিশ্বামিত্র উপযুক্ত বোধ করেন নাই। বরুণদেবকে সন্তুষ্ট করিয়া সেই ব্রাহ্মণকুমারের প্রাণ বাচাইলেন, এমন কি সেই ব্ৰাহ্মণকুমার বিশ্বামিত্রের জ্যেষ্ঠপুত্র বলিয়া গৃহীত হইলেন । উক্ত উপাখ্যান হইতে এইরূপ বোধ হয়, অধুনাতনকালে যেমন : পুরুষশীর্ষক (রা ) নরমন্তকযুক্ত চোর ব্যবহৃত যন্ত্রভেদ। গঙ্গাসাগরে পুত্রদান অথবা দেবী চামুণ্ডার নিকট নরবলি প্রচলিপ্ত ছিল, অতিপূৰ্ব্বকালে বৈদিক সভ্যতা যখন ততদূর বিস্তৃত হয় নাই, তখন এইরূপ বলপ্রথা প্রচলিত ছিল । বৈদিক সভ্যতা-বিস্তারের সঙ্গে এই কার্য যখন হেয় বলিয়। লোকে বুঝিতে লাগিল, তখনই তৎবিকল্পে পশুবলি প্রচলিত হয় । কলিকালে পুরুষমেধ নিষিদ্ধ হইয়াছে।* পুরুষরূপক (শি ) নরাকৃতিবিশিষ্ট । পুরুষরেষণ । ত্রি ) পুরুষষ্ঠ রেষণঃ । পুরুষহিংসক । “শাস্তুঃ পুরুষরেষণঃ " ( অথবা ৩ ৯ } পুরুষরেষণঃ পুরুষস্য হিংসকঃ ' ' সায়ণ ) পুরুষরেষিন (জি ) পুরাণ | পুরুষবধ ( গুং ) নরহত্যা । পুরুষবৎ ( ত্রি ) পুরুষ-মভুপ্ত, মস্য ব । নরবং। পুরুষবাছ (স্ত্রী) পুরুষয্যেৰ বাক যথাঃ । পুরুষবদবাকাযুক্ত শরি । “শারিং পুরুষবাক ।” - ( শুক্ল যজু २81७७ ) ‘পুরুষবীকৃ รธุยสatนี้ পারিঃ শুকী । ( বেদদীপ” ) -مع-مصمم -- صــــــي عـــمعتصــمسمسمياسمي

  • এক সময়ে সকল সভ্য জগতেই নরবলি প্রচলিত ছিল ।

বলি শবে বিস্তৃত বিবরণ ক্রষ্টব্য। ] X I [ 48s J | পুরুষসূক্ত পুরুষবাহ (পুং ) পুরুষমালিপুরুষং কুতি বহু-অণ, বিষ্ণুর বাহন গরুড় । 輸 “পতত্রিরা জাধিপতেঃ পুরুষৰাহাদনবরতমুদ্ধিজমালাঃ ” Εί ( ভাগ“ ৫। ২ ৪৯৯ } ‘পুরুষবাছাৎ হরের্বাহমাৎ ' ( স্বামী ) পুরুষেণ নরেণ উহতে বহ-কৰ্ম্মণি ঘএঃ, ২ নরবাহন কুবের । পুরুধলা বাহঃ বাহনং । ৩ পুরুষের বtছন । পুরুষবাহম্ । অব্য ) পুরুষ-বহু-শমুল । পুরুষকৰ্ম্মক ৰছন। শমুল প্রত্যয় হইলে যথাবিধি অল্প প্রয়োগ হয়। যথা বহতি পুরুষং বহর্তীতাৰ্থঃ ।” পুরুষবিধ ( ত্রি ) পুরুষস্যেব বিধা যস্য । পুরুষপ্রকার । ( নিরুক্ত ৭। ৬ ) পুরুষৰ্ষভ (পুং । পুরুষ ঋষভ ষ্টৰ উপমিতসমাসঃ । পুরুষশ্রেষ্ঠ । পুরুষব্যাঘ্ৰ (পুং ) পুরুষো ব্যাঘ্র ইব । পুরুষশ্রেষ্ঠ । “এবস্তে পুরুষব্যাঘ্ৰঃ পাণ্ডব যুদ্ধনন্দিনঃ।” ( ভা” ৬১৯৪৩ ) পুরুষত্ৰত ( ) সামভেদ । পুরুষশাৰ্দ্দল (*) পুরুষ শাল ইব, উপমিতসমাসঃ । পুরুষশ্রেষ্ঠ। পুরুষশিরস্ ( ক্লী ) মরমস্তক । পুরুষশীর্ষ ( ক্লী) পুরুষের মস্তক । ‘পুরুষবাহুং পুরুষসিংহ (পুং ) পুরুষঃ সিংহ ইব পুরুষেষু সিংহঃ শ্রেষ্ঠ বা । ১ পুরুষশ্রেষ্ঠ । ২ জিনবিশেষ । পৰ্য্যায়-শৈবি । ( ছেম ) পুরুষসূক্ত ( ক্লী ) পরমপুরুষপ্রতিপাদকং স্ব ক্রং । সুক্তভেদ, এই স্থঙ্ক পাঠ করিয়া অভিষেকাদি অনেক কাৰ্য্য করিতে হয় । ঋগ্বেদে ১৯৯০৷১-১৬ পর্যন্ত এই পুরুষসূক্ত লিখিত অাছে। পুরষস্থত্ত যথা— ১ । সংস্রশীর্ষ পুরুষঃ সহস্রাক্ষঃ সচম্রপাৎ । স ভূমিং বিশ্বতে বৃত্বাতাতিষ্ঠদশ স্কুলম ৷ ২ । পুরুষ এবেদং সৰ্ব্বং দস্তুৰং যচ্চ ভণ্যং। উতামৃতত্বসোশানো যদয়েনাস্তিরোহতি ॥ এতা ব1নস্য মহিমাতো জ্যfয়াংশ্চ পুরুষঃ । পাদোংসা বিশ্বা ভূতানি ত্রিপাদস্তামুতং দিবি । ৪ । ত্রিপাদূর্ধ্ব উদৈৎপুরুষঃ পাদোহস্যেহী ভবৎ পুনঃ । ততো বিঘঞ্জবাক্ষাৎ যাশনানশনে অতি ॥ ৫ । তস্মাদ বিরাড়গtয়ত বিরাজে৷ মধি পুরুষঃ । স জাতো অত্যরিচ্যত পশ্চাদ্ভূমিমথে পুরঃ ॥ ৬ । যৎপুরুষেণ হবিধা দেবী যজ্ঞগতম্বত । ৰসত্ত্বে। অদ্যালীদাজং ওঁীয় ইন্মঃ শরষ্কৰিং ॥ >b-b"