পাতা:বিশ্বকোষ একাদশ খণ্ড.djvu/৭৬২

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


পুরূরবস, - রাও ব্রাহ্মণৰ প্রাপ্ত হইয়াছিলেন । এইরূপে পূজবংশোদ্ভব अcनक भशंभांछ • ब्रांछकूमाँग्न निछ निछ उ°is aछ*८द उचाइ बां ব্ৰাহ্মণত্ব লাভ করিয়াছিলেন। মুনিশ্রেষ্ঠ বিশ্বামিত্রও এই বংশে উদ্ভূত । [ বিশ্বামিত্র দেখ। ] * दिदू१शूबां**ांष्ठं छांना शांग्न cरु भशंद्रांछ अबईौक्ल झहै८ऊ ৩১ পুরুষে এবং রাজা জনমেজয় হইতে ২৬শ পুরুষে ক্ষেমক নামে এক মহাপুরুষ জন্মগ্রহণ করেন । এই মহাক্স হইতে ব্রাহ্মণ ও ক্ষত্রিয়বংশের প্রতিষ্ঠাতা পুরুবংশের গৌরব তিরোহিত হয় । २ भत्र्यागांखा । “राश् श्रृंब्रtद इबह१९ नफ़रख" (शद् ४॥e>l७) পূরব ইতি মনুষ্যনাম । পুরবে মনুষ্য বৃত্রহণং আবরকত মেঘস্ত হস্তারং যং বৈশ্বানরং সচস্তে বর্ষাধিনঃ সেবস্তে’ ( সারণ ) ( ঋক্ ১।৩১৫, ৪।৩৮১ ) ৩ অসুরভেদ । ( ঋক্ ৭৮৪ ) ‘পূৰ্ব্বং পুরুনামকমন্বয়ং’ ( সারণ ) ৪ নড়লার গভজাত মমুপুত্রভেদ । (হরিবংশ ৭১ জ• ) ৫ গঙ্গাপানকারী জহ মুনির পুত্র। ইহার বংশে বিশ্বামিত্রাদি ঋষি জন্মগ্রহণ করেন। ( ভাগবত ৯ম স্কন্ধ ) ৬ ঋগ্বেদের মন্ত্রভ্রষ্টা ঋষি, অত্রির পুত্র, ইনি ঋগ্বেদের পঞ্চম মওলের ১৬১৭ সুক্ত দেখিয়াছিলেন । পুরূচী ( স্ত্রী ) গমনযুক্ত । “শতং জীবস্তু শরদঃ পুরূচী?” ** ( ঋক্ ১•১৮৪ ) “পুন্ধচৗবহবঞ্চনীঃ বহুগমনাঃ’ ( সায়ণ ) পুরূদ্বহ (পুং ) পুরান পৌরবনৃপান উদ্বন্থতি উদ্ব-বহু-অছ। ১ পৌরববংশীয় নৃপশ্রেষ্ঠ । ২ দ্বাদশ মন্বন্তরীয় রুদ্রসাবর্ণি মনুর পুত্রভেদ । ( মার্কণ্ডেয়পু ৯৪.২১ ) -পুরুরবস (পুং ) পুষ্ক প্রচুরং যথা স্তাৎ তথা রেীতি বা পুরেী পৰ্ব্বতে রেীতীতি পুরু-র ( পুরূরবাঃ। উণ, ৪।২৩১ ) ইতি অসিপ্রত্যয়েন নিপাতনাৎ সাধু । সোমবংশীয় বুধের পুত্র। পুরূয়বা চজবংশীয়দিগের মধ্যে সর্বপ্রথম রাজা । পৰ্য্যায়— বোঁধ, ঐল, উৰ্ব্বশীরমণ । ( হেম ) ৮ বেদসংহিতায় পুরূরব। স্বৰ্য্য ও উষার সহিত ব্ৰহ্মাণ্ডের মধ্যবর্তী স্থানে অবস্থিত বলিয়া বর্ণিত হইয়াছেন । ঋগ্বেদের মতে, ইনি ইলার পুত্র ও ধাৰ্ম্মিক রাজা বলিয়া গণ্য ছিলেন। ) আবার মহাভারতের মতে ইল। তাহার পিতা ও মাতা উভয়ই ছিলেন । ইনি মাত ইল হইতেই প্রতিষ্ঠালাভ করেন । (২১) “ব্রহ্মক্ষত্ৰস্য যে যোনির্বংশোরাজর্ষিসৎকৃত: । ক্ষেমকং প্রাপ্য রাঞ্জানং স সংস্থtং প্রাপৃদ্যতেকলে ।”(বিষ্ণু পুe e২১ অঃ) ব্ৰহ্মাও ও মৎস্যপুরাণে ইহার অনুরূপ শ্লোক জাছে ; কিন্তু “স্লাজৰ্ষিসৎকৃতঃ” স্থলে গীতিবিগৈ পুরাতনৈঃ’ বা ‘দেবর্ধিসংস্কৃতঃ এরূপ পাঠান্তর দৃষ্টিগোচর হয়। [ ૧ક્ષના ] - হরিবংশে লিখিত আছে, চন্দ্র বৃহস্পতির জ্ঞাৰ্য্য। তারাকে অপহরণ করেন, তৎকালে চক্স হইতে তারার গর্তে এক পুত্র হয়, ঐ পুত্রের নাম বুধ । রাজপুত্রী ইলার সহিত বুধের বিবাহ হয়। এই ইলার গর্ভে বুধের এক পুত্র জন্মে। সেই পুত্রের নাম পুকুরবা । পুষ্করব অতি বিদ্বান ও নানাবিধ সদগুণবিভূষিত ছিলেন । উৰ্ব্বশী ব্ৰহ্মশাপে মর্ত্যলোকে জন্মগ্রহণ করে। তখন সেই অন্সর রাজ পুঞ্জয়বার নিকট উপস্থিত হইয় তাহাকে কহিলেন, আপনি যদি কএকটা প্রতিজ্ঞ করেন, তাছা হইলে আমি আপনাকে পতিত্বে বরণ করি । আমি উৰ্ব্বশী নামে অঙ্গর, ব্রাহ্মণের শাপে মর্ত্যলোকে জন্মগ্রহণ করিয়াছি । আমি যতদিন না আপনাকে নগ্নাবস্থায় দেখিতে পাইব, যতদিন আপনি অকামাপত্নীতে সঙ্গত না হইবেন, আমার শয্যাসমীপে ছুইটী মেষ যতদিন বন্ধ থাকিবে ও গ্ল আপনি এক সন্ধ্য স্বতমাত্র আহার করিবেন, আপনি এই সকল নিয়ম যতদিন প্রতিপালন করিবেন, ততদিন আমি আপনার পত্নীরূপে থাকিব, ইছার ব্যতিক্রম হইলেই আমি আমার স্বস্থানে প্রস্থান করিব । রাজা উৰ্ব্বণীয় কথায় ‘তথাস্ক’ বলিয়া স্বীকার করিলেন। পরে রাজা ও উৰ্ব্বণী ৬১ রৎসর কাল পরম সুখে অতিবাহিত করিলেন । একদা গন্ধৰ্ব্বগণ উৰ্ব্বণীর শাপমোচনের জন্ত উৰ্ব্বশীর শয্যাসমীপন্থ দুইটী মেষ অপহরণ করিয়া প্রস্থানোদ্যত হইলে রাজা নগ্ন বস্থায় তাহীদের অসুসরণ করিলেন । রাজাকে নগ্নাবস্থায় দেখিয়৷ উৰ্ব্বণীর শাপমোচন হইল, গন্ধৰ্ব্বগণও তখন মেষ পরিত্যাগ করিলেন । এদিকে কামচারী উৰ্ব্বণীও স্বস্থানে গমন করিলেন । রাজা উৰ্ব্বশীর শোকে নিতান্ত অধীর হইয়া সমস্ত পৃথিবী পর্যটন করিলেন। একদা কুরুক্ষেত্রে প্লক্ষতীর্থে হৈমবতী পুষ্করিণীতে উৰ্ব্বশীর সহিত পুনরায় সাক্ষাৎ হইলে রাজা সাতিশয় শোক প্রকাশ করিতে লাগিলেন । তখন উৰ্ব্বশী কছিলেন, আমি আপন হইতে গর্ডধারণ করিয়াছি, সংবৎসরের পর কতিপয় কুমার ভূমিষ্ঠ হইবে। সেই সন্তান হইলে আপনার ভবনে তাহদিগকে দিয়া আসিব ও একরাত্রি আপনার গৃহে যাপন করিব। রাজা কথঞ্চিৎ সুস্থ হইয়া স্বস্থানে প্রস্থান করিলেন। পরে স্বর্গে উৰ্ব্বশীর গর্ভে আয়ু, অমাবস্থ, বিশ্বায়ু, শ্রতাযু, দৃঢ়ায়ু, বনায়ু ও শতায় এই সাত পুত্র হয়। উৰ্ব্বশী এই পুত্রগণকে লইয়। রাজার নিকট দিয়া তথায় একরাত্রি অবস্থান করিলেন । গন্ধৰ্ব্বগণ রাজাকে অগ্নিপূর্ণ একটা স্থালী প্রদান করেন, রাজা এই অগ্নিদ্বারা বহুবিধ যজ্ঞানুষ্ঠান করেন । এই সকল যজ্ঞফলে তিনি গন্ধৰ্ব্বদিগের সালোক্য প্রাপ্ত হইয়াছিলেন। প্রয়াগনগরী ইহার রাজধানী ছিল, এই নগরী জাহ্নবীতীরে প্রতিষ্ঠিত \