পাতা:বিশ্বকোষ চতুর্দশ খণ্ড.djvu/১৩৮

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


মন্ত্র @ [ ఫిలిw ] মন্ত্র শ্রতিস্থতিপুরাণাদে ময়ৈবোৰ্ত্তং পুরা শিবে } উপযুক্ত গুরুর নিকট মন্ত্র গ্রহণ করিবার নিয়ম দেখিতে আর্গমোক্তেন বিধিলা কলে দেবান বজেৎ মুৰীঃ। পাওয়া যায়। গুরু কি প্রকার গুণসম্পন্ন হইলে তাহার নিকট কলাবাগমমুলক্ষ্য ধোংশুমার্গে প্রবর্ততে । মন্ত্র গ্রহণ করা যাইতে পারে, ছহার বিষয় আলোচনা করিয়া ন তস্ত গতিয়স্তীতি সত্যং সত্যং ন সংশয়ঃ। কলে তন্ত্রোদিত মন্ত্রাঃ সিন্ধান্ত ফলপ্রদাঃ। শস্তাঃ কৰ্ম্মস্থ সৰ্ব্বেষু জপষজ্ঞক্রিয়াদিষু ॥ नियॆीर्षrt: cथोडखांडेौब्रां दिशशैtनांब्रशं! हेंर । সত্যাদেী সফল আসন কলে তে মৃতক ইব । পাঞ্চালিকা যথা ভিত্তে সৰ্ব্বেস্ক্রিয়সমদ্বিতাঃ। अञ्जल क्वाः काएर्षाबूबकाङ्गोगलप्म। दथ । ন তত্র কলসিদ্ধি: স্তাং শ্রম এব ছি কেবলম্। কলাবম্ভোদিতৈম"র্গৈঃ সিদ্ধিমিচ্ছতি যে নয় । ভূষিতে জাহ্নবীতীরে কুপং খনতি দুৰ্ম্মতিঃ । নান্তঃ পন্থা মুক্তিহেতুরিহামুত্র মুখাগুয়ে। বথ। তন্ত্রোদিতে। মার্গে মোক্ষায় চ মুখায় চ ॥” ( হল্পতত্ত্বদীধিতিধৃত মহানিৰ্ব্বাণতন্ত্র ) শ্রীতি, স্মৃত্তি, পুরাণ, উপপুরাণ, সংহিতা প্রভৃতিতে বিবিধ উপাসনাপদ্ধতি বিহিত হইয়াছে, তথাচ একমাত্র আগমোক্ত উপাসনাই খাণ্ড ফলদায়ক ও সুগম। এইজন্ত সকলেরই এই তন্ত্রোক্তপ্রণালী অনুসারে উপাসন করা কৰ্ত্তব্য। বিশেস্বতঃ কলিকালে আগমোক্ত বিধান ব্যতীত অন্ত কোন বিধান নাই। ধদি কোন ব্যক্তি আগমবিহিত মার্গ পরিত্যাগ করিয়া অন্ত মার্গে প্রবর্তিত হন, তাহা হইলে তাহার কার্য্যসিদ্ধি ছয় না। কলিতে তন্ত্রোক্ত মন্ত্র সকলই সিদ্ধ ও আশুফলপ্রদ। বৈদিক মন্ত্র সকল বিৰহীন সপের ন্যায় নিববীৰ্য্য । সত্যাদি যুগে ঐ সকল বৈদিক মন্ত্ৰই সফল ছিল, এখন ঐ সকল মন্ত্র স্থত। অতএবু মৃত মন্ত্র দ্বারা যে সকল কাৰ্য্যামুsান কল্প যায়, তাহ নিষ্ফল হুইঙ্গা থাকে। একমাত্র আগমোক্ত মন্ত্রই ইছ ও পরলোকে স্বখ প্রাপ্তি ও মোক্ষের কারণ। &बनिक भङ्ग निऋण कि कांश्लेिख भजु निष्कण «qझे दिषtब्रग्न মীমাংস। অতি সুন্ধছ, তবে এই পৰ্য্যস্ত বলা যাষ্টতে পারে, বৈদিকোপাসনা বিশেষ কষ্টসাধ্য, তান্ত্রিক উপাসনা মুখপাধ্য এবং পূর্কেও বলিয়াছি, অধিকারিভেদে এই সকল উপাসনাপ্রণালী অনুষ্টিড হুইন্ধ থাকে। স্থলি অধিকারীর পক্ষে ভাৱিক উপানঙ্গ জগম। ব্রাহ্মণ স্বেরূপ উপনীত না হইলে কোন পূজাধিস্থ গ্রধিকারী ছয় না, তন্ধপ উপযুক্ত শুরুর নিকট মন্ত্র গ্রহণ গা করিলে মানব তন্ত্রোক্ত কোন কাৰ্য্যই করিতে পায়ে ম৷ ৷ ব্ৰাহ্মণান্ধি ৰণত্রয় উপনীত হইতে পারে, किरू उtsाङ बजधइ८१ छॉब्रिवtर्णग्न नमान बथिकाग्र । | দেখা যাউক । “চতুৰ্ণাং বৰ্ণনাং মন্ত্রদানে ব্রাহ্মণ এবাধিকারী, তৰ্ভুক্তং বিশ্বসারভস্ত্রে দ্বিতীয় পটলে— * জিতেন্ধিয়ঃ সত্যবাদী ব্রাহ্মণঃ শাস্তমানলঃ । পিতৃমাতৃহিতে যুক্তঃ সৰ্ব্বকৰ্ম্মপরায়ণঃ। আশ্রমী দেশস্থায়ী চ ওরুরেব বিধীয়তে ॥”(হত্নতত্বদীধিতি) ব্রাহ্মণ চারি বর্ণকেই মন্ত্র দিবেন। জিতেজিয়, সত্যৰাণী, প্রশাস্তুচিত্ত, ও পিতৃমাতৃহিতে রত এই সকল গুণসম্পন্ন ব্রাহ্মণ গুরু হইবেন । তন্ত্রসারে লিখিত আছে— “শাস্তে দান্তঃ কুলীমশ্চ বিনীতঃ শুদ্ধবেশবান্‌। শুদ্ধাচার; স্বপ্রতিষ্ঠ গুচিদ মঃ স্ববুদ্ধিমান ॥ আশ্রমী ধ্যাননিষ্ঠশ তন্ত্রমন্ত্রবিশারদ । নিগ্রহাণুগ্রহে শক্তো গুরুরিত্যভিধীয়তে ॥” ( তন্ত্রসার ) শাস্ত অর্থাৎ আকৃচন্দনবনিতাদিরূপবিষয়ে উৎকট অনুরাগ রহিত ও শমাদিগুণযুক্ত, দাস্ত, কুলান অর্থাৎ কোলাচাররত, বিনয়শাল, অপ্রম ও, পবিত্রবেশধারা, স্ববেদোক্ত সন্ধ্যাবন্দনাদি কাৰ্য্যে নিরত, স্বপ্রতিষ্ঠ,আশ্রমী অথাৎ গৃহস্থাদি-আশ্রমে স্থিত, উদাসীন নহেন, ঈশ্বল্পারাধনায় তৎপর, তন্ত্র ও মন্ত্র-বিশারদ, নিগ্ৰহাদুগ্ৰহে শক্ত, স্ততিনিনায় সমজ্ঞান হত্যাদি গুণশালী ব্যক্তিই প্রকৃত গুরুৰাচ্য । আরও লিখিত আছে, যিনি মন্ত্র প্রদান করিয়৷ উদ্ধার করিতে পারেন এবং অভিশাপ দ্বারা বিনাশ করিতে সমর্থ হন, এইরূপ ব্রাহ্মণশ্রেষ্ঠ, সত্যবাদী গৃহস্থ ব্যক্তিকেই গুরু করিবে। षनि ८कांन वाकिब्र ७ङ्ग झिम्न कग्निरङ इब्र, छांश इहेtण উক্ত লক্ষণাক্রাস্ত ব্যক্তিকে গুরুকার্য্যে বরণ করিলেই তাছার কাৰ্য্যের সফলত হয়। পূৰ্ব্বোক্ত রূপ গুরুর নিকট হইতেই মন্ত্র গ্রহণ করা বিধেয়। বে ব্যক্তি গুরুকে মন্ত্রব্য, মন্ত্রকে অক্ষর ও দেবপ্রক্তিমুর্কিকে শিলাজ্ঞানে গুরু প্রভৃতির সহিত ময়ব্যাদিৰং ব্যবহার क८ग्न, डांशन्न cषांब्रष्ठब्र नब्रक इछ । *िङ ७ यांठ छरश्रब्र কারণ, অতএব যত্বপূর্বক তাহাজের সেবা করা আবণ্ডক । কিন্তু মন্ত্ৰজাত৷ গুল্প ধৰ্ম্মাধৰ্ম্মপথপ্রদর্শক, অতএৰ তাহাদিগকে ८नदखाछांटम चक्रम! कब्रिररु । ७क्र शिकांमांठ ७ जष्ठौडे দেৰভাস্বরূপ এবং একমাত্র গুরুই অস্তিমে নিস্তাল্প-কায়ণ । दक्षित्र Gपछि अश्रवक् क्रडे श्न, छाशरक “छक्ररक्ष झाष