পাতা:বিশ্বকোষ চতুর্দশ খণ্ড.djvu/৪৩৯

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


भशंद्रांश्ले [ ৪৩৯ ] भशंद्रांप्ले বিজয় করিতে গমন করিল। সাম্ভাজী স্বীয় সৈন্যদল তথায় প্রেরণ করিলেন। তাহার মোগলদিগুকে যুদ্ধে পরাজিত করিল ; কিন্তু এদিকে মহারাষ্ট্র রক্ষার কোনও উপায় হইল ন। কর্ণাটক হইতে প্রধান সেনাদল প্রত্যাবৃত্ত হইবার পুৰ্ব্বে মোগলের মহারাষ্ট্র উৎসাদন করিতে লাগিল । ১৭৮৮ খুষ্টাব্দের শেষ ভাগ পৰ্য্যস্ত সাম্ভাজী শৌর্য্যসহকারে মোগল-সম্রাটের সহিত যুদ্ধ করিতেlছলেন । তাহার পর সহসা তাহার বিলাগিতা মনে পড়িল। তিনি যুদ্ধাদি ত্যাগপুৰ্ব্বক সঙ্গমেশ্বরে গিয়া ইন্দ্রিয়সেবায় নিরত হইলেন । এই সংবাদ পাইম মোগল-সেনাপতি তাহাকে সহজেই বনী করিয়া লইয়। গেলেন। সম্রাটের আদেশে অতি নিষ্ঠুরভাবে তিনি নিহত হইলেন ! ( .৬৮৯ আগষ্ট ) এই রূপে মরাঠার মোগলদিগকে পুনঃ পুনঃ যুদ্ধে পরাস্ত করিয়া ও স্বযোগ্য নেতার অভাবে সুফল লাভ করিতে পারিলেন না । { সাম্ভাঞ্জীর বিস্তারিত বিবরণ পেশব ও সাম্ভাজ শব্দে দ্রষ্টব্য ] স্বাধীনতার জন্য যুদ্ধারন্থ । মহাত্মা শিবাজার পুত্রের এই শোচনীয় পরিণাম দর্শনে মহারাষ্ট্রীয়গণ অতীব উত্তেজিত হইলেন। অল্পবয়স্ক শাহুকে সিংহাসনে স্থাপন করিয়া মোগলাদিগের বিরুদ্ধা তাহার তংপুত্ৰ ! চরণ আরম্ভ করিলেন । কিন্তু দুর্ভাগাক্রমে অল্পদিনের মধ্যেই । জনৈক বিশ্বাসঘাতক মরাঠার দোধে রায়গড় মোগলদিগের হস্তগত হইল । এমু বাঈ সহ মোগলহস্তে বন্দী হইলেন। বহুকষ্টে পলায়নপুৰ্ব্বক আত্মরক্ষা করিলেন । তাছার পর সেই সঙ্গে সাস্ত{জর শিশুপুত্র শাহ জননী । অঃ প্রধtনের । একটা একটা করিয়া প্রায় সকল দুর্গ মোগলদিগের হস্তগত । হইতে লাগিল । ১২ লক্ষ মোগলসৈন্তে মহারাষ্ট্র ছায়। ফেলিল। অনেকে মনে করিলেন, মহারাষ্ট্র রাজ্য শূন্তে বিলীন হইয়া গেল। কিন্তু জ্ঞান ও ধৰ্ম্মের ভিত্তিব উপর যে রাজ্য স্থাপিত হইয়াছিল, তাহা সেই ঘোর সঙ্কটকালেও বিনষ্ট হইল না। পক্ষাস্তরে এই দুর্ঘটনায় মহারাষ্ট্রীয়ুদিগের প্রকৃত পোরুখ, স্বদেশপ্রীতি ও স্বধৰ্ম্ম রক্ষায় প্রবল আকাঙ্ক। প্রভৃতি সদৃ গুণের পরিচয় সকলেই লাভ করিল। সাম্ভাঙ্গীর কনিষ্ঠ ভ্রাত রাজারাম অতঃপর সিংহাসনারে স্থণ করিলেন। তিনি ব্যসনগুপ্ত, দয়ালু ও পরাথপৰায়ণ । ছিলেন। ক্ষত্রিয়জনোচিত প্রখর তেজ তাহার চরিত্রে আদেী ছিল না। রায়গড় শক্ৰহস্তগত হওয়ায় অষ্ট প্রধানের পরামর্শে তিনি কর্ণাটকের অন্তর্গত জিঞ্জিক্কুর্গে রাজধানী অপসারিত করিলেন। অমাত্য রামচন্দ্র পস্ত বিশালগড় ও পাহাল इcर्नब भरक्ष अदशनशू#क मशब्रॉड़ेब्रभाद्र cछठे कब्रिथाद्र -T ভার প্রাপ্ত হইলেন। সস্তাজী ঘোরপড়ে ও ধনীজী যাদব নামক সেনানীদ্বয় জিঞ্জি ও মহারাষ্ট্রের মধ্যভাগে ঘুরিয়া ঘুরিয়া মোগলসেনার রসদ বন্ধ করিবার ভার লইলেন । রাজারাম জিঞ্জিতে গিয়া নুতন অষ্টপ্রধান নিৰ্ব্বাচন করিলেন এবং শিবাজীর প্রণীত নিয়মাবলীর পুনঃপ্রচার করিলেন । এদিকে মোগলসম্রাটু অরঙ্গজেব সম্ভাজীর বিনাশ এবং বিজাপুর ও গোলকুও। রাজ্যের বিলোপসাধনে সফলপ্রযত্ন হওয়ায় জয়োল্লাসে অতীব উৎফুল্ল হন, এবং হিন্দুধৰ্ম্মীদিগের উপর ঘোরতর অত্যাচার করিতে আরম্ভ করেন। কথিত আছে, বিজয়োম্মত্ত হইয়া তিনি স্বীয় অধীন হিন্দুসৈন্যদলেরও ধৰ্ম্মনাশে উদ্ধত হইয়াছিলেন। কিন্তু তাহাতে সম্পূর্ণ বিপরীত ফলের সম্ভাবনা দেথিয়া তাহাকে সে সংকল্প পরিত্যাগ করিতে হয় । সে যাহা হউক, মোগাদিগের হস্তে সুধর্মের নিওই হইতেছে দেখিয়া, তেজস্ব মহারাষ্ট্রায়গণের ক্রোধানল প্রবুদ্ধ হঠল । তাহাদিগের নরপতি রাজা প্লাম ( শিবাজীর কনিষ্ঠ পুত্র ) তখন স্বদেশ হইতে বিতাড়ত হইয়। যবনদিগের লয়ে মাগ্রাজ অঞ্চলে “জিঞ্জি” দুর্গে আশ্রয়গ্ৰহণ করিয়াছিলেন । রায়গড় প্রভৃতি প্রসিদ্ধ দুর্গসমূহ মোগলদিগের হস্তগত হইয়াছিল। মহারাষ্ট্রীয়দিগের মধ্যে সুশিক্ষিত সৈনিকের সংথ্যা ৭ অতি অল্প ছিল। সমাজে দুই চারি জন বিশ্বাসঘাতক দেশ বৈরীর ও অভাব ছিল না । কিন্তু এই সকল প্রতিকুল অবস্থায় পতিত হইয়া ও তাহার, স্বধৰ্ম্ম ও স্বরাজ্যের রক্ষার জষ্ঠ বদ্ধপরিকর হইলেন ; ধৰ্ম্মোৎসাহে প্ৰম গু হইয়া প্রচও সাগর তরঙ্গসদৃশ মোগলসেনার গতিরোধে অগ্রসর হইলেন। যিনি কোনরূপে একথানি বল্লম সংগ্ৰহ করিতে পারিলেন, তিনিই মোগলদিগের পশ্চাৎ ধাবিত হইলেন । তাহাদিগকে অধিকতর উৎসাহিত করবার জঙ্গ রাজারাম জিঞ্জি হইতে বিবিধ প্রকার পুরস্কার ঘোষণা করিলেন। তখন ঠাহাদিগের ভীষণ রণোত্মন্তত। দেখিয়া সম্রাটকেও ভাত চকিত হইতে হইল। মরাঠারা স্বধন্মের ও সমধৰ্ম্মিগণের রক্ষাথ প্রাণবিসৰ্জ্জুনে কৃতসংক ঃ হওয়ায় বাদশাহ সৈন্তের নানা স্থানে পরাজয় ঘটিতে লাগিল । দ্বাদশ লক্ষ সুশিক্ষিত ও মুসজ্জিত সৈন্ত লষ্টয় মুষ্টিমেয় মরাঠাগণের সহিত সপ্তদশ বর্ষ কাল অনবরত যুদ্ধ করিয়া ও অরঙ্গ জেব জয়লাভের কোনও সম্ভাবনা দেখিতে পাঠলেন না । এই সময়ে সস্তাঞ্জী ঘোরপড়ে ও ধনাধী যাদব এই দুই জন সেনানী অসাধারণ বীরত্ব প্রকাশ করিয়াছিলেন । ইহার শিবাজীর সময় হইতে মহারাষ্ট্রীয় সামরিক বিভাগে কাৰ্য্য করিতেছিলেন। ইহাদিগকে কর্ণাঙ্গুনের সহিত তুলিত করিলেও অদ্ভুক্তি হয় না। মুসলমান ইতিহাসলেখক কাফি