পাতা:বিশ্বকোষ চতুর্দশ খণ্ড.djvu/৫৮০

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


মানভাব করে, না হয় নানাস্থাসে ঘুরিয়৷ খেড়ায়। বৈরাগীদের মধ্যে পুরুষ গুরু বা মহস্তের নিকট এবং স্ত্রীলোক হইলে গুরুমার নিকট দীক্ষিত্ত হইয়া থাকে । বৈরাগা অথবা বৈরাগিণীয় মধ্যে কোন সংস্রব থাকে মা, উভয়ের মধ্যে কেহ কাহার ও মুখ দর্শন করিবার অধিকারী নহে। এমন কি বৈরাগিণীর মৃত্যু হইলে তাহাকে সমাধিস্থ করিবার অধিকার ও বৈরাগীর নাই । বৈরাগীয়া বৈরাগিণীয় শবদেহ লইয়া সমাধিস্থানে পৌছাইয়া দেয়। তদনন্তর তাছার স্ব স্ব স্থানে চলিয়া ধাইলে, অপর বৈরাগিনীগণ শবের বস্ত্রমোচন করিয়া ও তাহাকে উত্তর-শিল্পীরা করিয়া বৃহৎ গর্ড মধ্যে সমাধিস্থ করিয়া চলিয় আসে । বৈরাগীর মৃত্যু হঠলেও স্বশ্রেণী দ্বারা পুৰ্ব্ববৎসমাধি দেওয়৷ হইয় থাকে। সমাধিস্থ করিবার সময় মৃতের উপর রাশিস্কৃত লবণ ছড়াহয় দেয় । গৃহস্থের। শব দাহ করে । দপ্তাত্রেয় ও কৃষ্ণ ইহাদের প্রধান উপাস্ত দেবতা। নিজাম রাজ্যভুক্ত মাকুর গ্রামে যে দত্তাত্রেয় ও কৃষ্ণ-মন্দির, আছে, তাহাই মান ভাবদিগের সর্ব প্রধান তথস্থান । ভগবদগীতা তাহাদের প্রধান ধৰ্ম্ম গ্রন্থ । যে যে ধৰ্ম্মগ্রন্থে দত্তাত্রেয় বা কৃষ্ণের মাহাত্ম্য বর্ণিত আছে, সেই সেই গ্রন্থছ মানভাবসমাজে আদৃত। তাহারা দত্তাত্রেয় বা কৃষ্ণ ব্যতীত অপর কোন দেবদেবীর পুজা করিতে অভিলাষী নয়। বেরারে মানভাবদিগের পাচটা প্রধান মঠ আছে, নরমঠ, নারায়ণমঠ, ঋষিমঠ প্রবরমঠ ও প্রকাশমঠ, অপরাপর ক্ষুদ্র মঠগুলি ঐ পাচটার অস্তগত । তাছাদের স্বপ্রধান একজন গুরু আছেন, তিনি মহন্ত’, বেরারের অস্তগত ঋধপুর গ্রামে মহস্তের গদি মাছে । মান ভাবদিগের মধ্যে সেই মহস্তদর্শন ও তাছার পাদপুঞ্জ অতি পুণ্যদায়ক বলিয়। গণ্য । কি গৃহস্থ কি বৈরাগী সকলেই অভিমাত্র অহিংসাপরায়ণ । পাছে প্লীবহিংস। হয়, এহু ভয়ে সৰ্ব্বদাই মতক থাকে । কেহ প্রাণী-হিংসা করে না । ইহার। যদি জানিতে পারে যে, কোথা ও বলিদান হইবে, তাছা হইলে তিন দিন পুৰ্ব্বে সে স্থান পল্লিভ্যাগ করে, এমন কি এরূপস্থলে ৰৈয়াগীদিগকে জঙ্গলে আশ্রয় शह८उठ ६: । মানভাবের ১০দিন অশৌচ পালন করে। একাদশ দিবসে বৈরাগীভোজ দিতে হয়। কোন মঠাধ্যক্ষের মৃত্যু হইলে তাহার যে প্রধান চেলা থাকেন, তাছাকে আহ্মদনগরঞ্জেলার অন্তর্গত গৈঠনের মঠে জালিয়৷ পণ্ডিতগণের নিকট পরীক্ষা দিতে হয় । পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হইলে তিনি মঠাধ্যক্ষের উচ্চাসনে অভিষিক্ত ও পূজিত হইয়৷ থাকেন। কাৰ্য্যভার গ্রহণ [ &ve | মানভূম কঞ্জিবার পূৰ্ব্বে তাছাকে নিজাম রাজ্যের অন্তর্গত পঞ্চালেশ্বরমন্দিরে গিয়া দ হ্রাত্রেয়ের পুজা করিতে হয়। মনস্তুর মানভাবদিগকে ভোজ ও ভিথারাদিগকে ভিক্ষা দিয়া থাকেন। কোন বৈরাগিণী অপরাধী হ ইলে গুরুম। তাছার বিচার করিয়া থাকেন। যোগ্য হইলে কোন পূদ্র কন্যাও গুরুমা হইতে পারেন, এবং বৈরাগিণী হুইবার সময় ব্রাহ্মণক ভু পৰ্য্যস্তু তাছার নিকট মন্ত্রগ্রহণ করিতে বাধ্য। কি বৈরাগী বা বৈরাগিণী ব্রহ্মচর্য্য পালন করিতে না পারিলে তাহাকে সমাজচ্যুত করা হয়। যে এই কঠিন নিম্নম পালনে অক্ষম, সে বিবাহ করিয়া ঘরবাসী মামভাব হইতে পারে । মানভূম, পশ্চিম-বাঙ্গালার ছোট নাগপুর বিভাগের অন্তর্গত একটা জেলা । ভূপরিমাণ ৪৯১৪ বৰ্গ মাইল । পুরুলিয়া নগর ইহার বিচার-সদর । অক্ষাe ২৩°২০′ উঃ এবং দ্রাঘিe ન્ડ રજી 었: | ইহার উত্তর-সীমায় হাজারীবাগ ও বীরভূম জেলা, পূৰ্ব্বে বদ্ধমান ও বাকুড়া জেলা,দক্ষিণে সিংহভূম ও মেদিনীপুর এবং পশ্চিমে লোহারডাগা ও হাজারীবাগ । এতদ্ভিন্ন বরাকর ও দামোদর নদ ইহার উত্তর ও উত্তরপুর এবং সুবর্ণরেখা নদী ইহার দক্ষিণ ও পশ্চিমীমান্তে প্রবাহিত । এই জেলার মধ্যে বাঘমুণ্ডী, দালম, পাচুেট, ৰিহারনাথ ও পাশ্বনাথ প্রভৃতি ক একটা পৰ্ব্বতশ্রেণী বিরাজিত থাকায় স্থানীয় বস্তবিভাগের শোভাবদ্ধক হইয়াছে। অধিত্যক ও উপত্যকাগুলি বনরাজিতে বিভূষিত হইলেও, মধ্যে মধ্যে খরস্রোতা পাৰ্ব্বত্য-নদীসমূহ প্রবাহিত হইয়। সেই বিশুদ্ধ বনতুমির নির্জনত ভঙ্গ করিয়া দিতেছে । পৰ্ব্বতশ্রেণীর মধ্যে বারোধ, বন্দী, বাঘ, বন্দীপাল, ভাণ্ডারী, চরগনাল, দাবো, কারণ্টি, কল্যাণপুর, লাকাইলিলি,সাৰাহ ও কোলাবণী নামক কএকটা শৃঙ্গ উন্ন তমস্তকে স্বভাবশোভার নিত্যস্থান নির্দেশ করিতেছে। এই সকল শৃঙ্গের কোন কোনটীতে দেব মন্দিরাদিও প্রতিষ্ঠিত আছে। বয়াকর, খুদিয়া, দামোদর, ইজরী, গুয়াই, ধলকিশোর ব। দ্বারকেশ্বর, শিলাহ, কালাই, কুমাৰী, টেটুক ও মুবর্ণরেখা প্রভৃতি নদী এবং কতকগুলি গিরিগাত্রবাহিনী ক্ষুদ্র স্রোতস্বিনীর জলই এখানকার লোকের প্রধান পানীয়। এতদ্ভিন্ন পুরুলিয়ার সান্ডেরধাধ, জয়পুরের রাণীবাধ ও পাওয়ার পোদ্ধারডিহিৰাধ মামক প্রসিদ্ধ ভুজাকার দার্ষিক। এবং উপত্যকবক্ষে ৰিয়াস্থিত কতকগুলি জলাশয় এখানকার প্রায় সৰ্ব্বত্রই BBiD BBBD BBBDBB DDBB DDBZSDDDDDDS ঐ সকল জল প্রভূত পৰিমাণে গৃহীত হইয় থাকে।