পাতা:বিশ্বকোষ চতুর্দশ খণ্ড.djvu/৬১৭

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


মাপিক্স। [ ७४१ ] মাপিল্লা - মান্য বতী ( স্ত্রী ) ১ মাননয় । ২ রাজকন্যাভেদ। মাম্বাস্থান (ক্লী) মান্তস্ত স্থানং। পূজ্যত্বকারণ। “বিত্তং বন্ধুবৰী কৰ্ম্ম বিদ্ধ। ভবতি পঞ্চমী। এতানি মান্তস্থানানি গরীয়ে যদযদুত্তরম্ ॥ পঞ্চানাং খ্রিষ্ণু বৰ্ণেষু ভুয়াংসি গুণৰঞ্জি চ। স্বত্র স্বাঃ পোছত্র মানাৰ্ছ: পূদ্রোংপি দশমীং গত: ॥” (मध्र २ अ०) ধন, স্বদ্বদ, বয়স, কৰ্ম্ম এবং বিজ্ঞা এই পাঁচটা পূজ্যস্থান অর্থাৎ পূজার প্রক্তি কারণ, ধাছাদের এই সকল আছে, তাছারাই পুঞ্জনীয়। এই পাচটার মধ্যে পর পর গুণ প্রধান, ইহাদের মধ্যে একমাত্র বিস্তাই সৰ্ব্বাপেক্ষা শ্রেষ্ঠ। মান্য। ( স্ত্রী) মাষ্ট-স্ত্রিয়াং টাপ । ১ পূজনীয়া। ২ মক্কষ্মালা । “অনিমন্তি তু মান্ত চ মরুম্মালা চ মোছনা ।”( শব্দমালা) মাপ ( দেশগ ) ১ ওজন, পরিমাণ । ২ ক্ষমাকরণ। মাপজোক ( দেশজ ) জরিপকরণ। মাপত্য (পুং ) মা বিস্ততে অপত্যমস্ত । কামদেব । (হলায়ুধ) মাপন ( পুং ) মাপয়তি স্বর্ণাদিকমনেনেতি মা-শিচ-করণে লুটি । ১ ভুল । ( শব্দচন্ত্রিক ) ( ক্লী ) ২ পরিমাণ। পরিমাণকরণ, তেলকরণ। স্থিয়াং টাপ । “যস্মিন দেশে চ কালে চ মাপনেয়ং প্রবর্ষিতা।” ( ভারত ১৫১।১৫ ) মাপা ( দেশজ ) ওজন করা, পরিমাণ স্থির করা । মাপান ( দেশজ ) মাপাইয়া দেওয়া, ওজন করিয়া দেওয়া । মাপিল্লী, মলবার উপকূলৰাগী মুসলমানধৰ্ম্মাবলম্বী জাতিবিশেষ। মলয়ালম্ প্রদেশের অধিবাসিগণ মুসলমানসংস্রবে জাসিয়া ইসলামধৰ্ম্ম গ্রহণ করে, ক্রমে সেই সকল লোক হইতেই এই হিন্দুভাবাপন্ন মুসলমান-সমাজ গঠিত হয় । কোন্ননূরের রাজা এই সম্প্রদায়ের অন্তভূক্ত এবং মাপিল্লীসমাজের প্রধান ব্যক্তি বলিয়া গণ্য । মলবার, ত্রিবাঙ্কোড়, এবং কানাড়া প্রদেশেই ইহাদের সংখ্যা অধিক। ইহার অধ্যবসায়শাল, কৰ্ম্মক্ষম, এবং বদ্ধিষ্ণু । ইন্ধাদের অবয়ব মুগঠিত এৰং বলিষ্ঠ । ইজারা দেখিতে সুগ্ৰী । ইহাদের মধ্যে এখন অনেকে শিক্ষিত হইয়াছে। ইহাদের স্থার পরিশ্রমী দ্বিতীয় জাতি ভারতবর্ষের আর কোথা ও मृहे रुद्र ना । মাপিল্লা শখের অর্থ মার পিল্লা বা মাতার পুত্র। ৯১৬ধৃষ্টাৰে জাবুজেস্ব লিখিয়াছেন যে, মলবায়-উপকূলৰাপিনী স্বেচ্ছাৰিছরিণী উচ্ছম্বল-প্রকৃতির রমণীগণের গর্তে আরবীয় লাৰিকদিগের ঔরসে এই জাতির উৎপত্তি । আবার কেছ কেহ বলেন XIV 26 & TTTTT যে, আয়ৰীয় রমণীর গর্ভে সমুদ্রগামী মুসলমান বণিকৃগণের ঔরসে এই জাতি উদ্ভূত হইৰাছে । হছাদের মধ্যে অধিকাংশই ধীৰৱজাতীয় । স্বয়ং কোন্ননুর-রাজ এই ধীবরবংশোদ্ভব। সমুদ্রপথে লুণ্ঠন, আরবের সহিত বাণিজ্য এবং স্বদেশীয় ধীবরদিগকে আরবীয় ধৰ্ম্মমতে দীক্ষাদানই ইহাদেয় প্রধান কৰ্ম্ম । যুরোপীয় বণিকসম্প্রদায় করমওল-উপকূলে আসিয়া পৌছিলে, কলিকাটের সামরিরাজ বিদেশীর নিকট হইতে উপকূলভাগ-রক্ষা করিবার অভিপ্রায়ে সহস্ৰ সহস্ৰ লোককে এই ধৰ্ম্মে দীক্ষিত করেন । টিপুসুলতানও স্বীয় সেনাৰল-বৃদ্ধি করিবার জন্য লক্ষাধিক হিন্দুকে মহিস্বরে আনাইয়া ইসলামধৰ্ম্মে দীক্ষা দেন। অনিচ্ছাসত্ত্বেও রাজাদেশে বলপূৰ্ব্বক গোমাংসসেবন এবং ত্বকৃচ্ছেদ করার তাহারা আর হিন্দুসমাজে পুনরায় গৃহীত না হইলেও স্বেচ্ছায় কেহ আপনার পুৰ্ব্বাচরিত ছিন্দুধর্ণে জলাঞ্জলি দেয় নাই। এক্ষণে তাহারা সম্পূর্ণরূপে মুসলমান ন হইয়া বরং হিন্দুজাতিরই একটী পরিত্যক্ত থাক রুপে গণ্য হষ্টয়া আসিতেছে । ইহার স্বভাবতঃ মুখ, বলিষ্ঠ ও কৰ্ম্মঠ। সাহসিকতার জন্তু ইহার চিরপ্রসিদ্ধ । উত্তর মলবারের মপ লাগণ হিন্দু মত্যুদয়ের সময় হইতে কোন কোন অংশে হিন্দুভাব অবলম্বন করিয়াছে। ইহার বিধবা ভ্রাতৃবধূকে নিকা করে। ইহাদের মধ্যে যোনাকেন বা যুবন-মাপিল্ল এবং নম্বুরিন বা নায়রিন মপিপ্পা নামে দুষ্টটী বিভাগ দৃষ্ট হয়। প্রথমট গ্রীক প্রভৃতি জাতির সংস্রবে উৎপন্ন ; দ্বিতীয়ট দেশীয় খৃষ্ঠান প্রভৃতি নানাজাতির সংস্ৰৰে জাভ। দক্ষিণপূৰ্ব্বাঞ্চলে, ইহারা আরবী ভাষার কথাবাৰ্ত্ত কহে। ইহার শ্মশ্র ধারণ করে এবং কেশক ঠন করে। সকলেষ্ট মস্তকে টুপী দেয়। ধনিগণ স্বর্ণরৌপ্যখচিত কারুকার্য্যালয়ত উষ্ণাষ ধারণ করে। ইহার স্ব ভাৰত: পরিষ্কার পরিচ্ছন্ন । স্ত্রীলোকের শ্বেত এবং নীলবণের বস্ত্র পরিধান করে। উৎসবদিতে স্ট্রীলোকের আড়ম্বর সহকারে সাজসজ্জা করিয়া থাকে এৰং পিত্তল তাম্র এবং রৌপ্যনিশ্বিত অলঙ্কার ব্যবহার করে । উত্তর-মলবারে ইহাদিগের মধ্যে আরবী ভাষার এবং দক্ষিণ-মলবারে প্রাচীন তামিলভাষার প্রচলন দৃষ্ট হয় । ধৰ্ম্মবিষয়ে ইহাদের উৎসাহ অত্যন্ত প্রবল। সময়ে সময়ে ভুমিসংক্রান্ত বিবাদ লইয়া ইহার হিন্দুদিগের সহিত অনেক দাঙ্গা হাঙ্গামা করিয়া থাকে । ইহার প্রধানতঃ ছুরিকা লইয়। যুদ্ধ করে । গুহকং-মুজাহিদাৰ নামক ১৮শ শতকে লিখিত-গ্রন্থে প্রকাশ,—‘রাজা চেরমান পেরুমাল ইসলামধৰ্ম্ম গ্রহণ করিয়া