পাতা:বিশ্বকোষ ত্রয়োদশ খণ্ড.djvu/২৫৮

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


उल्लग्न कॉली [ ২৫৬ ] ভদ্রকালী ছন্দোভেদ । ইহার প্রতি চরণে ২২টা অক্ষর থাকে। ‘দ্রে নরনারনবথ গুরুদিগর্কবিল্পসং হি ভদ্রকমিদম্।।” (বৃত্তরত্নাe) এই ছন্দের ১,৪,৬,১২,১৬,১৮,২২ অক্ষর গুরু তদ্ভিয় লঘু। ভদ্রকণ্ট (পুং ) ভদ্র কণ্টে যন্ত। গোকুর। ( রাজনি• ) ভদ্র কন্যা (স্ত্রী) মোগল্যায়নের মাতা। ভদ্র কপিল (পুং) শিব, মহাদেব । ভদ্রকণ (পুং ) ভদ্রস্ত বৃষস্ত কর্ণে বত্র। গোকর্ণরূপতীর্থভেদ। ভদ্র কণিকা (স্ত্রী ) গোকৰ্ণতীর্থে দাক্ষায়ণী ভদ্রকণিকা নামে अछिश्ठि श्रब्रन । নিদাং হিমবত: পৃষ্ঠে গোকর্ণে ভদ্রকর্ণিকা । ( মৎস্ত পুe ) ভদকৰ্ণেশ্বর ( পুং ) ভদ্রকর্ণষ্ঠ ঈশ্বরঃ । গোকৰ্ণতীর্থস্থিত শিবলিঙ্গ ভেদ। ( উারত বনপ• ৮১ অe ) शिग्रो५ डीश् ॥ २ ऊँौर्ष cछन । (७ॉब्रङ ७४8॥७४) ভগ্নকাম, মণিকূট পৰ্ব্বতের পূর্বদিকস্থ তীর্থভেদ। ( কালিকাপুরাণ ৭৮৮৪-৮৬ ) ভদকায় (পুং ) ১ লাখুজিতীতে জাত শ্ৰীকৃষ্ণের পুত্রভেদ । (হরিবংশ ১৬২ অ• ) (ত্রি ) ২ মঙ্গল দেহক । ৩ মুনীর আকৃতিযুক্ত। ভদ্র কল্পিক ( পুং ) বোধিসত্ব ভেদ । ভদ্রকার (ত্রি ) তদ্রং করোতি কু-অনু উপপদ স• । ১ মঙ্গল কারক ( পুং) ২ দেশভেদ । ( ভারত সভাe ১৩ অe ) ভদ্র কারক (ত্রি ) ভদ্রস্ত কারক: মঙ্গলকারক। ভদ্র কালী ( স্ত্রী ) ভদ্র মঙ্গলময়ী চালে কালীচেতি কৰ্ম্মধাe যন্ধ ভয়ং কল্যাণং কারয়র্তীতি ভদ্র-কৰ্ম্মণ্যন, ততো ঙাপ । ১ গন্ধোলী । ২ কাত্যায়নী। ( মেদিনী ) “শৃণু ৰং ৰূপশাল । ভদ্রকালী যথা পুর। প্রাচুভূত মহাভাগা মহিষেণ সদৈৰ তু।”(কালিকাপু• ৫৯অ•) কালিকাপুরাণের ৫৯ অধ্যায়ে এই দেবীর আবির্ভাবের বিষয় এইরূপ লিখিত আছে— ভদ্রকালী দেবী ভগবতী দুর্গার মূৰ্ত্তিবিশেষ। এই দেবী ষোড়শ হস্ত যুক্ত। একদিন মহিষাসুর নিদ্রিতাবস্থায় স্বপ্নদর্শন করে, যেন দেবী ভদ্রকালী তাহার শিরচ্ছেদ করিয়া রক্তপান করিতেছেন ; স্বপ্নদর্শনে ভীত হইয়া মহিষাসুর প্রান্তঃকালে অমুচরবর্গের সহিত ভদ্রকালীর পূজারম্ভ করেন, পূজার সন্তুষ্ট হইয় দেবী ষোড়শভূজা ভদ্রকালীরূপে আবিষ্ণুতা হন। তখন দৈত্যরাজ কছিল, দেবি ! আমি স্বপ্নে দেখিয়াছি, আপনি আমার শিরচ্ছেদ করিয়া রক্তপান করিতেছেন, ইৰা ষে ঘটিবে, তাছাভে আর কোন সন্দেহ নাই এবং আমারও डाशरङ cड़ान कुःथ मोहे, कांब्रण मिब्रडि जज्थन कब्रिहड কেহই সমর্থ নহে। আমি তিন মন্বন্তরকাল ব্যাপিয়া শ্রেষ্ঠ অসুররাজ্য ভোগ করিয়াছি। শিষ্যের নিমিত্ত কাত্যায়ন মুনি আমাকে শাপ দিয়াছেন যে, স্ত্রীজাতি তোমাকে নিহত করিবে। আমি যে আপনার দ্বারা নিহত হইব, তাহাতে সন্দেহ নাই। পূৰ্ব্বে কাত্যায়ন মুনির শিষ্য রৌদ্রাখ নামে এক অতিশয় সাধুচরিত্র ঋষি হিমালয় পৰ্ব্বতের নিকট তপস্ত করিতেছিলেন, আমি কৌতুকবশে স্ত্রীরূপ ধারণ করিয়া র্তাহার তপোভঙ্গ করি, তাহার গুরু ইহা অামার মায়া জানিতে পারিয়া আমাকে শাপ দেন যে,তুমি স্ত্রীরূপ ধারণপূর্বক আমার শিষ্যকে মোহিত ও তপস্তাচু্যত করিলে, অতএব এই পাপে স্ত্রীজাতিদ্বারা তোমার মৃত্যু হইবে। আমার মৃত্যুকাল আসন্ন ; সুতরাং আপনার নিকট আমি ভাবিমঙ্গলের নিমিত্ত একটী বর প্রার্থনা করিতেছি, হে দেবি ! আমার প্রতি প্রসন্না হউন ।” দেবী ভদ্রকালী বরদানে প্রতিশ্রত হইলে, মহিষ বলিল, “আমি আপনার অনুগ্রহে যজ্ঞভাগ ভোগ করিতে ইচ্ছা করি, এবং যতদিন চন্দ্রস্থৰ্য্য থাকিবে, ততদিন আপনার পদসেবা ত্যাগ করিব না। তাক্যে পরিতুষ্ট হইয়া দেবী কহিলেন, ‘পুঝেই সমুদায় যজ্ঞের ভাগ দেবগণের মধ্যে বিভক্ত হইয়াছে, এক্ষণে যজ্ঞের এমন একটা ভাগ নাই, যাহা আমি তোমাকে দিতে পারি। তবে আমি তোমাকে এই বর দিতেছি যে, আমা কর্তৃক নিহত হইলেও কোনও সময়ে তোমাকে আমার চরণ ত্যাগ করিতে হইবে না। যেখানে আমার পূজা হইবে, তথায় তুমিও পুজা পাইবে। তখন সাহলাদে মহিষাস্বর কহিল,-উগ্ৰচণ্ডে ! ভদ্রকালি ! দুর্গে ! আপনি আমার এই বাসন পূর্ণ করুন। তদনন্তর দেবী কছিলেন,—তুমি যে আমার তিনটা নাম উচ্চারণ করিয়াছ, ঐ তিন মূৰ্ত্তির সহিত মদীয় পাদল থাকিয়া সৰ্ব্বত্র পূজিত হইবে। (কালিকাপুরাণ) ভদ্রকালী ও দুর্গ একই। দুর্গাপূজার বিধানানুসারে এই দেবীর পুজাদি হইয় থাকে। তন্ত্রসারে ইহার পুজাদির বিধান লিখিত আছে। ৩ মেদিনীপুর হইতে ২ ক্রোশ দূরে নৈঋত কোণাৰস্থিত একটা পবিত্র তীর্থ। এখানে ভদ্রকালী মূৰ্ত্তি প্রতিষ্ঠিত আছে। কুর্গ রাজ্যেও ভদ্রকালীর মন্দির আছে। এই দেবতার সম্মুখে মুগী প্রভৃতি বিবিধ বলি হয়। ৪ ৰূপান্নুচর মাতৃভেদ। ৫ দক্ষযজ্ঞ সময়ে দেবী ভগবতীর ক্রোধ হইতে ইষ্ঠার উৎপত্তি ছয় । ইনি উৎপন্ন হইয়া বীরত্তন্ত্রের সহিত দক্ষযজ্ঞ ধ্বংস করেন। (কুৰ্ম্মপু•, বিষ্ণুপু• ও ভারত শান্তিগ- ২৮৪ অ• ) ৬ গঙ্গার পশ্চিমতীয়স্থ গ্রামবিশেষ। ৭ প্রসারিণী, চলিত গন্ধভাণ্ডুলিয়। ( পৰ্য্যায়মুক্তা” ) ৮ নাগরমুস্তা। (বৈদ্যকনি-)