পাতা:বিশ্বকোষ ত্রয়োদশ খণ্ড.djvu/৩৪৮

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


ভারতবর্ষ। [ ૭8ના ] - همایی उछ{ठूउद१ शृङ्ग-निःश्ड ५ुभाङ्ग नङझ नागैश् शृवेौश्च उँश्यकं शि বিচ্ছিন্ন করির দক্ষিণাভিমুখে ধাবিত হইয়াছে। এই পৰ্ব্বতপ্রাচীরের ১৬১৭ হাজার ফিটু উচ্চ স্থানে দিবা ভাগে তিব্বত অধিত্যক মহুিমুখী একটা শুষ্ক উত্তর বায়ুর সঞ্চার অনুভব করা যায় । ঐ সময়ে দক্ষিণবাহী কোন বায়ুপ্রবাহ পৰ্ব্বতভূমি আলোড়িত করে না ; কিন্তু নিশাযোগে দক্ষিণ ঢালু প্রদেশ হইতে একটা দক্ষিণাভিমুখী শীতল বায়ু নদীর সমতলপ্রপাত পৰ্য্যন্ত প্রবাহিত হইতেছে। এই প্রভাতস্নিগ্ধ শাতসমীরণ অধিক গুর প্রখর বলিয়া অসুমিত হয় । সমতলক্ষেত্র হইতে পৰ্ব্বতের উচ্চ চুড়া পৰ্য্যন্ত এই শীতল প্রবাহ পাৰ্ব্বতীয় বায়ুর শীত কটিবন্ধ বলা যাইতে পারে। প্রাচীন মাধ্য উপনিবেশ পরিত্যাগ করিয়৷ হিমালয়ের পাদভূমি হইতে সমুদ্রষ্টীয় পৰ্য্যস্ত বিস্তৃত পলিময় সিন্ধুবিভাগ, কচ্ছের লবণাক্ত সৈকতভূমি, জশলমীর ও বিকানীরের পৰ্ব্বতসমাকীর্ণ মরুভূপ্রদেশ এবং লুসাই নদীর প্লাবিত উৰ্ব্বর শস্যক্ষেত্রসমূহে প্রায় বৃষ্টিপাত হয় না । ইহার পুৰ্ব্ববর্তী আরাবল্লীশিখর.সন্নিহিত স্থানসমূহে ও উত্তর পঞ্জাব প্রদেশে দক্ষিণ-পশ্চিম মমুমবায়ু ও তদবিপরীত কালের শীত ঋতুতে প্রভূত পরিমাণে বৃষ্টিপাত হইয়া থাকে। পঞ্জাবের দক্ষিণfদখব স্ত্রী মূল তান ও শীর্ষ বিভাগে বৃষ্টিপাতের পরিমাণ ৭ ইঞ্চি । বঙ্গীয় ‘ব’ দ্বীপ ভাগে ছুইটী বিস্তৃত ক্ষেত্র বিরাজিত দেখা ' ধায় । উছার প্রথমট আসাম উপত্যক ও ব্রহ্মপুত্রের পলি- ; ময়ু অববাঙ্কিক প্রদেশ লইয় গঠিত । ইহার উত্তর সীমায় tহমালয়পাদ প্রস্থত গণ্ডশৈলমাল এবং দক্ষিণে গারে খসিয়৷ , ও নাগাপবীত । অপর বিভাগটি উক্ত পৰ্ব্বতত্রয়ের নিম্নভাগে অবস্থিত ঝিল ও জল সমাকীর্ণ স্থান ত্রিপুর ও লুসাই রাজ্য ইহতে বিচ্ছিন্ন রহিয়াছে । এই প্রদেশের জলবায়ু সাধারণত: জলসিক্ত । পৰ্ব্ব ক্ষমালার দক্ষিণদিকে প্রবল বারিধার। বর্ষণ uছ তু স্থানীয় স্বাস্থ্যের মনেক বৈষম্য ঘটিয়াছে । শিবসাগর ও শিলচর নামক স্থানের বৈকালিক ৰায়বীয় চাপের পরিণতি । আবহবিপ্তাবিদগণের আলোচনার জিনিষ । i আধ্যাবর্কের অমুগাঙ্গ প্রদেশ অতিক্রম করিয়া পুনরায় । বন্ধা ও সাতপুর পর্বতমালার বিস্তীর্ণ অধিত্যকাভূমি দৃষ্টিগোচর হয়। ইহার উত্তরে ককটক্রাস্তি, পুষ্ণের সীমান্ত । পদেশ, দক্ষিণে মধ্য প্রদেশ ও পশ্চিমে কাম্বে উপসাগর । , ভারতবক্ষে স্থাপিত এই বিস্তীর্ণ অধিতাকাভূমি ভূতত্ত্বের ভৌগোলিক মালোচনার বিশেষ উপযোগী। ইহার প্রধান প্রধান অববাহিকাবিধৌত্ত স্রোতস্বিনীসকল উত্তরে গঙ্গা ও = नः ॥ ५५१ *ि८१ ङंी, c१ांश् च हैौ, भ्रश्निनघ्नौ s श्मश्ठोष्ठ i শাখালোতে সম্মিলিত হইয়াছে। সুদূর পশ্চিমে নৰ্ম্মদ ও তাৰ্থী নদী-প্রবাহিত সীমান্তরাল উপত্যকাদ্বয়ে পুৰ্ব্বপশ্চিমাভিমুখী বায়ু প্রবাহিত। দক্ষিণপশ্চিম মস্কমের সময় এখানে প্রভুত বৃষ্টিপাত হইয়া থাকে। বিন্ধ্যগিরিমালা বিস্তীর্ণ অধিত্যক। দেশ পরিত্যাগ করিয়া উত্তরাভিমুখে মালব ও বুনেলথণ্ডের অধিত্যক প্রাপ্ত হওয়া যায়। ইহা নৰ্ম্মদ উপত্যক হইতে পূৰ্ব্বে শোণ নদ পৰ্য্যস্ত বিস্তৃত । ইহার অব্যবহিত পশ্চিমদেশে আরাবল্লী পৰ্ব্বত আহ্মদাবাদ হইতে দিল্লীর সমীপদেশ পর্য্যস্ত খিলম্বিত । এখানে এই পৰ্ব্বতমালা বিরাজিত থাকায় স্থানীয় ও পূৰ্ব্ব দিশ্বৰ্ত্তী আজমীর প্রদেশের জলপাত ও বায়ু ভিন্নগতি প্রাপ্ত হইয়াছে। অৰ্ব্বদ শিখরের পার্শ্ববর্তী দেশে বায়ু দক্ষিণপশ্চিমগতিতে প্রবাহিত । এখানে দক্ষিণপশ্চিম মহমবায়ু প্রবাহের সময় অজস্র ধারায় বৃষ্টিপাত হইয়া থাকে আশ্চয্যের বিষয় ইহার পশ্চিম পাদদেশে বিকার্নারের মরুভূ প্রাস্তুর পণ্যস্ত বিস্তৃত স্থান প্রাবৃঢ় সিঞ্চনে আদেী সিক্ত হয় না । সাতপুর শৈলমালার দক্ষিণদি শ্বস্তু ত্রিকোণাকার দাক্ষিণত্য-অধিত্যক ভূমি পশ্চিমে সহাদ্রি ( পশ্চিমঘাট ), দক্ষিণে নীলগিরি ও পুৰ্ব্বে পুৰ্ব্বঘাট পৰ্ব্বতপরিবেষ্টিত তটভূমি দ্বারা সংগঠিত। এখানে অহরহ দক্ষিণপশ্চিম মসুম-বায়ু প্রবাহিত থাকায় বৃষ্টিপাতেরও অভাব হয় না,কিন্তু যখন সেই বায়ু পশ্চিমাভিমুখে ঘাট প্রাচীরের উপর আরোহণ করে,তখন তন্নিকটবৰ্ত্তী পুণা প্রভৃতি স্থানে বৃষ্টির অপ্রাচুর্য্য লক্ষিত হয়। ঐ সময়ে পুৰ্ব্বদিশ্বর্তী স্থানসমূহে পৰ্য্যাপ্ত পরিমাণে বৃষ্টিপাত হইয়া থাকে । কিন্তু পশ্চিমঘাট ও সাতপুরা পৰ্ব্বতমালায় প্রতিহত হইয় তাহ পুনরায় সুরিয়া আসিবার কালে বঙ্গোপসাগর প্রবাহিত একটা পুৰ্ব্ব বায়ুগতির সহিত সম্মিলিত হয়। উহ উত্তরাভিমুখে অমুগাঙ্গ প্রদেশে প্রবাহিত না হইয়া পুনরায় দক্ষিণপুৰ্ব্ব ভারতবুলে প্রবাহিত হয়। ইহাই পূৰ্ব্বে দক্ষিণপূৰ্ব্ব মমুনবায়ু নামে প্রথিত ছিল । ( এখনও অনেকে ইহাকে দক্ষিণপূৰ্ব্ব মমুমবায়ু বলিয়া অবধারণ করেন । ) উহা সেই দক্ষিণপশ্চিম মন্ত্রম বায়ুর এক ভিন্নগতি মাত্র। ইহাতে প্রভূত জলধারা বধিত হইয়া থাকে। পুৰ্ব্ব ও পশ্চিম ঘাটের কোণাকার সংযোগ স্থলে নীলগিরির অধিতাকা প্রদেশ। ইহার দক্ষিণে অনমলয়, পালনি ও ত্রিবাঙ্কোড়ের পাৰ্ব্বত্য প্রদেশ । এতদুভয়ের ব্যবধানে ৩৫ মাইল বিস্তীর্ণ পালঘাট নামক গিরিসঙ্কট। এখানে দক্ষিণপশ্চিম মসুম বায়ুর ক্রীড়। অতীব রমণীয়। ঐ সময়ে এখানে প্রচুর বৃষ্টিপাত হয়, কিন্তু উত্তরপূর্ব মস্কমের সময়