পাতা:বিশ্বকোষ ত্রয়োদশ খণ্ড.djvu/৩৭৫

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


كي ভারতবষ [ ૭૧t ] ভারতবষী অল্পকাল পরে বশোৰদেৰ কান্তকুজ অধিকার কৱিা ৰপি | cलन। श्यनिक क्राकवि उसङ्कडि आशब्र गड फेथग | করিতেন । এই সময়ে মগধে প্রাধান্ত লইয়। গুপ্ত ও মােনে দারুণ বিবাদ উপস্থিত হয়, তাহাতে উভয় পক্ষই হীনবল । হইয়া পড়েন । সেই সময়ে কাশ্মীরপতি ললিতাদিত্য মুক্তা- ; পীড় দিগ বিজয়ে বহির্গত হইয়া সমস্ত আৰ্য্যাবর্ত নিত । করিয়াছিলেন " কাঞ্চকুজ, মগধ, গৌড়, বঙ্গ প্রভৃতি বছ জনপদ তাহার অধীনতা স্বীকার করিতে বাধ্য হইয়াছিলেন। । ইহারই কএকবর্ষ পরে মগধে গোপাল ও গৌড়ে জয়স্তের । অভু্যদয় ঘটে । হিন্দুধৰ্ম্মাণ্ডুদয় । l গোঁড়াধিপ জয়ন্ত নিজ জামাত কাশ্মীরপতি জয়াদিত্যের সাহাধ্যে প্রায় ৭৫ খৃষ্টাব্দে আদিপুর উপাধি ধারণপুৰ্ব্বক পঞ্চ গৌড়ের অধীশ্বর হইয়াছিলেন ও কান্তকুজ্ঞাধিপ যশোবৰ্ম্মের সম্ভ হইতে পাচজন ব্রাহ্মণ ও পাচজন কায়স্থকে আনাষ্টয়া গোঁড়মগুলে হিন্দুধৰ্ম্ম বিস্তার করিয়াছিলেন। প্রায় ৭৯০ পৃষ্ঠাম্বে ধৰ্ম্মপাল আদিশূরের পুত্র ভূপুরের হস্ত হইতে পো ধু,বদ্ধন রাজ্যঅধিকার করেন। মহারাজ ভূণুর রাঢ়দেশে আসিয়া রাজত্ব করিতে থাকেন। বহুদিন উত্তরাংশে গোড় প্রভৃতি স্থানে পাণ । ংশ এবং দক্ষিণাংশে রাঢ়দেশে শুরুবংশ রাজত্ব করিয়া ছিলেন। পালবংশের কীৰ্ত্তি বাঙ্গালার নানাস্থানে এখনও দৃষ্ট হইতেছে। তাহার ৰৌদ্ধ হইলেও হিন্দুধৰ্ম্মের অনাদর কৱিতেন না। তাছাদের সাম্যনীতি-প্রচার কালেই বঙ্গে বৌদ্ধ ও হিন্দুধৰ্ম্ম মিশ্রিত তান্ত্রিক মত প্রচলিত হয়। সেই তান্ত্রিক ধৰ্ম্মের প্রভাব আজও বাঙ্গালা হইতে বিলুপ্ত হয় নাই। পালরাজদিগের সময়ে তাহাদের পরিচালিত নালন্দাदिशंद्र छांनफ़र्फ़ब्रि छछ छश्नविश्वTाङ श्ब्राझिड । कौन, তাতার, আনাম, শুাম প্রভৃতি নানা দূরদেশ হইতে শত শত ছাত্রমণ্ডলী এখানে বিস্তাশিক্ষা করিতে মালিতেন, দশ সহ-- স্ৰাধিক ছাত্র এখানে বিনা ব্যয়ে বিদ্যাভ্যাল করিত। খৃষ্টীয় ৭ম শতাৰো চীনপরিব্রাজকও নালন্দার বিশ্ববিদ্যালয়ের সমৃদ্ধি দর্শন করিয়াছিলেন । মুসলমান-প্রভাবে ভারতের জ্ঞাননিকেতন নালন্দাবিহার বিধ্বস্ত হইয়াছে। ৰিষ্কারের নিকট বড় গণও নামক স্বালে সেই বিশ্ববিদ্যালয়ের সামান্য স্থতির চিহ্ন - মাত্র পড়িয়া আছে । পূরবংশের প্রভাৰ খৰ্ব্ব করির সেনৰংশ প্রথমে রাঢ়অঞ্চলেই প্রবল হইয়াছিলেন, কমে তাহারা পালবংশদিগকে পরাজয় করিয়া মিথিলী, গৌড় ও সমস্ত ৰঙ্গ অধিকার করিয়াছিলেন। সেনবংশীয় রাজগণের মধ্যে মহারাজ বল্লালসেন জেৰেঙ্ক নাম বঙ্গের আবালবৃদ্ধবনিতার পরিচিত। ইনি মহাত্তান্ত্রিক ছিলেন। ব্রাহ্মণ ও কাল্পস্থগণের মধ্যে ফুলৰিধি প্রচলন করিয়া ইনি চিরস্মরণীয় হইয়াছেন। তৎপুত্র লক্ষণসেনের সময়েই বঙ্গ মুসলমানকৰলিত হইয়াছিল। সেনবংশীয় পরবর্তী রাজগণ পূৰ্ব্ববঙ্গে ও চঞ্জৰূপে বহুকাল রাজ্য করলেও তাছাদের আর পুৰ্ব্ব-প্রতাপ ছিল না । { শুর, পাল ও সেনরাজবংশ এবং চজৰীপশন্স দ্রষ্টব্য। ] মগধ ও গৌড়ে পালবংশের প্রস্তাৰকালে কান্তকুজে যশোধৰ্ম্ম-বংশীয় চকাযুদ্ধ ইক্স বুধ প্রভৃতি স্নাজগণ রাজত্ব করিতে থাকেন, ডংপরে ক্টোজ ও রাঠোরগণের আধিপত্য বিস্তৃত হয়। { ভোজ, রাঠোর ও রাষ্ট্রকুটরাজবংশ দেখ। ] খৃষ্টীর ৯১-ম শতাবো, কালঞ্জরে চঙ্গাত্রেয় বা চঙ্গেল্প ও নশ্মদাতটে ত্রিপুরী ধা তে ওয়ার নামক স্থানে হৈছয় বা চেদি বংশ প্রতিষ্ঠিত হয়। প্রসিদ্ধ চাহমানবীর পৃথ্বীরাজ চন্দেররাজ পরমর্দিদেবকে পরাজিত করিয়৷ কালক্কররাজ্য দিল্লীসাম্রাজ্য ভুক্ত করিলেও হৈহয়বংশায় চেদিরাজগণ কাহারও বশ্যতাৰ্শ্বীকার করেন নাই । মুসলমানধিকারেও এই বংশ স্বাধীনতা রক্ষা করিতে সমর্থ হইয়াছিলেন। ১৭৩০ খৃষ্টাব্দে মহারাষ্ট্রাধিনায়ক রঘুঞ্জ ভোল্য়ে হৈহয়রাঞ্জধানা রত্নপুর নিজ রাজ্যভুক্ত করিয়া লন। এখনও রত্নপুরের চুৈহয় বংশ মধ্যপ্রদেশে দেখিতে পাওয়া যায়। সিন্ধুপ্রদেশে হিন্দুরাজ্য। পুৰ্ব্বেছ ৰলিয়াছি খৃষ্টীয় সপ্তম শতাদে সিন্ধুপ্রদেশে ব্রাহ্মণtধিপত্য বিস্তৃত হয়, কিন্তু ব্ৰাহ্মণের বহুদিন অধিকার ভোগ করিতে পারেন নাই। ৭১১ খৃষ্টাব্দে মহম্মদ-ই-বন কাসিম সিন্ধুতে আসিয়া ব্রাহ্মণরাজ দাহিরকে পরাজিত ও নিহত করেম। এ সময়ে আরবদিগের অত্যাচারে সিন্ধুপ্রদেশ বিশেধ উৎপীড়িত হইয়াছিল। ৭৫০ খৃষ্টাব্দে মুসলমানদিগকে বিতাড়িত করিয়া সোঁধীর রাজপুতগণ সিন্ধুপ্রদেশে আধিপত্য বিস্তার করেন। গুজরাতের চালুক্যরাজগণ অনেকবার তাছাদের রাজ্য আক্রমণ করিয়াছিলেন। খৃষ্টীয় ১২শ শতাব্দীর শেৰে নাসিরুদ্দীন কুবাচ সিন্ধুপ্রদেশের উত্তরাংশ অধিকার করেন। এই ভূভাগ २8 वर्ष बाज ऊंशब्र अशेन श्णि। ०२०२५डेरल ७शद्र शृङ्का হুইলে ‘জাম' উপাধিধারী সোমনয়াঞ্জপুতগণ উত্তরসিন্ধু অধিকার করিলেন। ১৩৮৯ খৃষ্টাঙ্গে শেষ হিন্দুরাজ তিস্মজী জামের মৃত্যু হয়, তাছার বংশধরগণ সকলেই ইসলামধৰ্ম্ম গ্ৰহণ করেন এবং সেই সঙ্গে সিন্ধুপ্রদেশে মুসলমানপ্রভাব বিস্তৃত হয়। [ সিদ্ধপ্রদেশ লেখ । ]