পাতা:বিশ্বকোষ ত্রয়োদশ খণ্ড.djvu/৪

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


বালীক্ষা ধালসরস্বর্তী, বালসরস্বতীয় কাব্যরচয়িত। ইনি মদন নামেও পরিচিত । 鱲 বালসাত্ম্য ( f ) যুদ্ধ। (হেম ) বালপুর, হেমাসির্বগ্রাকি প্রণেতা। (#) ধালঃ স্বৰ্য্য ইব । ১ বৈদুৰ্ল্যমণি। (ত্রিকা") (পুং) ২ প্রান্তঃকালীন সুর্য্য, সকাল বেলার সুর্য্য। ক ( ) বালস্বৰ্য্য এব স্বার্থে কৰু বৈদুৰ্য্যমণি। ( শঙ্করত্নী” ) বালস্থান ( ক্ল) ২ বাল্যাবস্থা, শৈশবকাল । ২ শিশুত্ব । বালহস্ত (পুং) বালা হস্ত ইব মক্ষিকালীনাং নিবারকাৎ। বালধি। লোমযুক্ত লাঙ্গ,ল । ( ত্রি ) বালানাং কেশানাং হন্তঃ সমুহঃ । ২ কেশসমূহ । ( উজ্জলদত্ত ) বাল (স্ত্রী) বালাঃ কেশী ইব পদার্থ বিস্তস্তে যন্তাঃ, বাল-“অৰ্শ আদিত্যাদচ ততষ্টাপ । ১ নারিকেল। ২ হরিদ্র । ৩ মল্লিকা • ভেদ । ৪ অলঙ্কারভেদ । ৫ মেধ্য। ৬ ত্রুটি । ( মেদিনী ) ৭ ঘৃতকুমারী । ৮ জীবের । ( শঙ্করত্না” ) ৯ অম্বষ্ঠা । ১০ নীলখ্রিস্টী। ( রাজনি" ) ১১ একবর্ষবয়স্ক গবী । “বর্ধমাত্রা তু বালা স্তাদতিবালা ৰিবার্ষিকী।” ( প্ৰায়শ্চিত্ততত্ত্ব ) ১২ ষোড়শবর্ষীয় স্ত্রী। এই স্ত্রী গ্রীষ্ম ও শরৎকালে প্রশংসনীয় ও হর্ষদায়িনী । “বালাষ্ট্ৰী প্রাণদা প্রোক্ত তরুণী প্রাণহারিণী । প্রৌঢ় কয়োতি বুদ্ধত্বং বুদ্ধ মরণমাদিশেৎ ॥” । রতিমঞ্জরী ) ভাব প্রকাশে লিণিত আছে—বালাস্ত্রী সেবনে বলবুদ্ধি হয় । f [ २ ] | | | "নিত্যং বালা সেবামান নিদাং বদ্ধয়তে বলং ” ( ভাবপ্র' ) { ক্যামায়েষ্ট এই শব্দের প্রয়োগ দেখিতে পাওয়া যায় । পঞ্চবর্ষবয়স্ক কস্তাকে ও লালা কক্ষে । “পঞ্চবর্ষ সূতাবালা” ( হারাত ১৫ ) দুই বৎসরের কম বয়স্ককে ও বাল কহে। ইহাদের মৃত্যু ছইলে উদকক্রিয় ও অগ্নি সংস্কার হইবে না । মাটির মধ্যে পুস্তিয়া রাথিতে হইবে । “অজাতদন্তু যে বাংলা যে চ গর্ডাস্থিনিঃস্বত্তাঃ । ন তেষামগ্নিসংস্কারো ন পিগুং নোদকক্রিয়া।” (গরুড়পু’১৯৭অঃ) বালাই ( আরবী ) ছরদৃষ্ট । ইহুদিগকে বালাকি (পুং ) বলাকায় অপত্যং বাছবাষিাৎ ইঞ, । ( পা ! "প্তবালাষ্কিন্ধানুঢ়ানো গাৰ্গ । ৪।১।৯৬ ) গাৰ্গ ঋষিভেদ । জাস” ( বুহাদারণ্যক উপ” ) বালীক্ষা ( ) বালা: কেশী ইব অক্ষিসদৃশং পুষ্প ঘন্তাঃ ! কেশপুষ্পাবৃক্ষ। পর্য্যায়—মানসী, কুণ্ঠপুষ্পী, কেশধারিণী । | i (শান্ত্রিকা)। বালাঘাট -T T বালাখান ( পারসী ) উপরের ঘর। 。孵 বালাঘাট, দক্ষিণাত্যের কর্ণাটক প্রদেশের প্রাচীন বিজয়নগর রাজ্যের অন্তর্গত একটা জেলা। যে জেলাগুলি ঘাট পৰ্ব্বতমালার উপরে অবস্থিত, তাহাই বালাঘাট এবং যাহা ঘাটের নিম্নদেশে অবস্থিত, তাহাই পয়নঘাট নামে অভিহিত ছিল । অক্ষা” ৮° ১৪% হইতে ৮° ১৬’ উঃ এবং দ্রাঘি” ৭৭° ২০' হইতে ৮০° ১• পূঃ মধ্যে অবস্থিত। স্থানীয় অধিবাসীর নিকট বেল্লারী, কর্ণল ও কড়াপা জেলা এখনও বালাঘাট নামে প্রসিদ্ধ। বালাঘাট, মধ্যপ্রদেশের চিফকমিসনরের অধীন নাগপুরবিভাগের অন্তর্গত একটা জেলা। অক্ষা” ২১° ১৮% হইতে ২২° ২৫ উঃ এবং দ্রাঘি’ ৭৯ ৪২ হইতে ৮১° ৪ পুং।। ভূ-পরিমাণ ৩১৪৬ বর্গমাইল । বুর্থানগড় ইহার বিচারসদর। میه" জেলাট সাধারণতঃ তিনভাগে বিভক্ত। দক্ষিণভাগ প্রায় সমতল ও সৰ্ব্বাপেক্ষা নিম । দ্বিতীয়ভাগে মানতালুক-নামু উপত্যক ভূমি এবং তৃতীয়তাগে রায়গড়বোছিয়া নামক অধিত্যকপ্রদেশ। প্রথমবিভাগে বেণগঙ্গা, বাঘ, দেব, ধিমূরি ও শোণনদী | প্রবাহিত । ১ম ও ২য় ভাগ প্রায় বনমালাসমাচ্ছন্ন। ৩য় ভাগের সৰ্ব্বোচ্চ পৰ্ব্বতভূমি সমুদ্র-পূষ্ঠ হইতে ৩ হাজার ফিটু উচ্চ। এই পাৰ্ব্বত্যপ্রদেশের স্থানবিশেষে গভীর জঙ্গল দৃষ্ট হয়। টোপ্‌লার শালবন তন্মধ্যে সৰ্ব্বোৎকৃষ্ট । দেবনদীতটে কটঙ্গ নামে একপ্রকার বঁাশ জন্মে, উছা প্রায় ৯০ ফিট উচ্চ হয়। এরূপ সুন্দর বঁাশ ভারতের আর কোথাও দেথা যায় না। এই বন্যভাগে গোড় ও বৈগা জাতিরই বাস অধিক । কোন কোন ঝরণায় সোণ পাওয়া যায়। এতদ্ভিন্ন লৌহ, শূৰ্ম্ম, গেরিমাট ও অত্র প্রচুর পরিমাণে পাওয়া যায়। মহারাষ্ট্র আক্রমণের পূর্কে এই স্থানের দক্ষিণতাগের কোন ইতিহাস পাওয়া যায় না ; কিন্তু ঐ সময়ের শতাধিকবর্ষ পূৰ্ব্ব হইতেই নাগপুরের ভোঁসলে-সর্দারগণ এই প্রদেশে আধিপত্য বিস্তার করিয়া আসিতেছেন। মহারাষ্ট্রগণের অধিকারের পূৰ্ব্বে উত্তর দিকৃস্থ উচ্চ ভুমে গড়ামগুলার রাজবংশ প্রতিষ্ঠিত ছিল । প্রস্তরনির্মিত বৌদ্ধমন্দির হইতে এখানকার পূর্বসমৃদ্ধি কল্পনা করা যায়। শতাধিকবর্ষ পূৰ্ব্ব হইতে এই আদিম বনভূমি উন্নতির সোপানে পদার্পণ করিয়াছে। লক্ষ্মণ নায়ক নমিক জনৈক ব্যক্তির উদ্যোগে এবং অধ্যবসায়ে ১৮১৯ খৃষ্টাঙ্গে মানাস্থান হইতে এখানে লোক আসিয়া বাস করে। পরশৰাড়া ও ভগ্নিকটবৰ্ত্তী ৩৯ খানি গ্রাম এখন শু্যামল শস্তক্ষেত্রে পূর্ণ হইয়া এই উপনিবেশের প্রবৃদ্ধির পরিচয় দিতেছে। এখানকার মধ্যে বুড়ী, বাড়ী, শিশুনি, শালবাড়া ও কটঙ্গী নগর অনেকট সমৃদ্ধিশালী। নদীবক্ষে অথবা পার্বত্যপথে