পাতা:বিশ্বকোষ দশম খণ্ড.djvu/১৪৪

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


নিমাল খৃষ্টাম্বে সিপিয়ার নিকট হইতে বিনিময় দ্বারা জৈনাবাদ ও মারোড়পরগণা এবং বুর্গানুপুর নগর ইংরাজের লাভ করেন। তৎপরে “বুটশরাজ হোলকর মহারাজকে ১৮৬৫ খৃষ্টাব্দে কম্রাবর, ধরণ, বক্সবাই ও মগুলেশ্বর প্রদান করিয়া তাহার নিকট হইভে দক্ষিণাত্যের কতিপয় জনপদ গ্রহণ করেন। নিমার যখন প্রথম ইংরাজ রাজ্যভুক্ত হয়, তখন এই জেলা প্রায় জনশূন্ত । শাস্তিস্থাপনের স্বত্রপাত হইলেই, অনেক কৃষিজীবী এখানে প্রত্যাবর্তন করিতে লাগিল । অধিক কি কাপ্তেন ( শেষে সার জেমস্ ) আউট্রামের যত্নে, এখানকার ছদ্ভূত উলেরাও শান্তভাব ধারণ করিল। প্রথম প্রথম এখানকার ইংরাজশাসনপ্রণালী মুফল লাভ করিতে পারে নাই। পরে ১৮৪৫ খৃষ্টাব্দে করবিভাগ সম্বন্ধে মূতন বন্দোবস্ত হওয়ায়, নিমার জেলা ভূতপূৰ্ব্বকালের স্কায় উন্নতিপথে ধাবমান হইতেছে। ১৮৫৭ খৃষ্টাব্দে সিপাহী বিদ্রোহ উপস্থিত হইলেও এখানকার লোক আদে প্রভূভক্তি দেখাইতে বিমুখ হয় নাই। এই সময় তাতিয়াতোপী বহুসংখ্যক সৈন্য লইয়া এই জেলার মধ্য দিয়া গমন করে এবং পীপৃলোদ, খাণ্ডব এবং মোগলর্গার পুলিশবাট বা থানা ভস্মীভূত করিয়া ফেলে, কিন্তু এই জেলার কেহই তাহার সৈন্তভূক্ত হয় নাই। নিমার জেলায় সৰ্ব্বসমেত ৬টা প্রধান নগর আছে ; যথা—থাগুবা, বুর্খানুপুর, সাহয়, বড়গাঁ, জৈনাবাদ এবং মান্ধাতা। এই সমস্ত নগরে হিন্দু, মুসলমান, জৈন, কবীরপন্থী, সৎনামী, শিখ, খৃষ্টান, পালী, দিছী ও অন্যান্ত অসভ্য জাতির বাস। অসম্ভাগণের মধ্যে ভৗল, ককু, নাহাল, গোড় ও কোলেরাই প্রধান। গম, তৈলকর বীজ, চাউল, ইক্ষু, তুলা ও তামাক এথানকার প্রধান উৎপন্ন দ্রব্য। আম্র ও মহুয়া বৃক্ষ যথেষ্ট দেখিতে পাওয়া যায় এবং আফিং ও তুলার বিস্তৃত ৰাবসায় আছে। গ্রেটুইণ্ডিয়া পেনেমুলারেলপথ এই জেলার মধ্য দিয়া যাওয়ায়, এখানে বাণিজ্যের বিশেষ সুবিধা হইয়াছে। ১৮৬৪ খৃষ্টান্ধ হইতে নিমার ইংরাজ অধীনে একট স্বতন্ত্র জেলারূপে শাসিত হইতেছে। একজন ডেপুটী কমিশনয়, উছার সহকারী কাৰ্য্যাধ্যক্ষগণ ও তহলীলদারসমূহ স্থায় শাসনকার্যা সম্পন্ন হয় । এখানকার রাজস্ব 8v११७• ऎीयः । নিমারের যে অংশ ফণক ঐ অংশের জলবায়ু অস্বাস্থ্যকর নছে। কিন্তু নৰ্ম্মদ ও তাধীনদীর উপত্যক ভূমিতে এপ্রিল ও মে সালে অভ্যন্ত গরম পড়ে। জর ও ওলাউঠাই এখানকার প্রধান পীড়া । निभाल, भशाप्त वा बगाइ अथ्र्गड विमानदागी उरगौरगन्न [ 588 J নিমি একটা নগর। লবণপাহাড়ের পূর্বাংশে অবস্থিত। এই নগর পক্কর এলাকার রাজধানী। এখানে ডাকবাঙ্গলা আছে এবং ইহার নিকট দুইটী আশ্চৰ্য্য গঠন বা আকৃতি খোদিত আছে, উহা শাস্তিরক্ষকদিগের থাকিবার ঘরের দ্যায়। নিমাস্তিন (পারসী ) হাতকাটা জামা। নিমি (পুং) ১ অত্রিবংশোদ্ভূত দত্তাত্রেয়পুত্র। “স্বাস্তুবোহত্রিঃ কৌরব্য পরমর্ধিঃ প্রতাপবান। তস্ত বংশে মহারাজ দত্তাত্রেয় ইতি স্কৃতঃ । দত্তাত্রেয়স্ত পুত্রোইভুৎ নিমির্নাম তপোধনঃ ॥” w ( ভারত অমু, ৯১ অ” ) ২ কৌরববংশীয় ভাবিৰূপভেদ । ( ভাগ ৯২২৯ ) ৩ দ্বাপরযুগীয় অসুরাংশৰূপভেদ। (হরিব” ১৬১ অ” ) ৪ মিথিলাবংশস্থাপয়িত ইক্ষাকুবংশীয় নৃপভেদ। ইছার বিবরণ বিষ্ণুপুরাণাদিতে এইরূপ লিখিত আছে— ইন্থাকুর নিমি নামে এক পুত্র হয়। নিমি সহস্রবৎসরব্যাপী যজ্ঞ আরম্ভ করেন। বশিষ্ঠ এই যজ্ঞের হোত হন। হোতৃবরণসময় বশিষ্ঠ বলিয়াছিলেন, ইন্দ্র পঞ্চশতবর্ষব্যাপী বজ্ঞে আমাকে বরণ করিয়াছেন, সুতরাং সেই সময় পর্যাস্ত আপনি প্রতীক্ষা করুন, আমি ইন্দ্রের যজ্ঞ সমাপন করিয়া আপনার যজ্ঞ করিব। বশিষ্ঠের এই কথায় রাজা কোন প্রত্যুভর দান করেন নাই। বশিষ্ঠদেব রাজা আমার কথা স্বীকার করিলেন ভাবিয়া ইস্ত্রের যজ্ঞ আরম্ভ করেন। এদিকে রাজা গৌতমাদি দ্বারা যজ্ঞাতুষ্ঠান করিলেন । বশিষ্ঠ ইন্দ্রের যজ্ঞ সমাপন করিয়া নিমির যজ্ঞ করিতে হইবে এই বোধে, সত্বর সেইস্থলে আগমন করিলেন। তিনি যজ্ঞস্থলে আসিয়া গৌতম সকল যজ্ঞ কৰ্ম্মের কর্তৃত্ব করিতেছেন দেখিয়া, নিদ্রাগত রাজা নিমিকে শাপ দিলেন যে যেমন তুমি আমাকে অবজ্ঞা করির গৌতম দ্বারা যজ্ঞ করাইতেছ, এইজন্ত তুমি হীন হইবে। অনন্তর রাজ প্রবুদ্ধ হইয়া কহিলেন, যে কারণে বশিষ্ঠ সকল বৃত্তাস্ত না জানিয়া বৃথা আমাকে শাপ দিয়াছেন, এই জন্ত তাহারও দেহ পতিত হইবে। রাজা এইরূপে প্রতিশাপ দিয়া দেহ পরিত্যাগ করিলেন । নিমির এই শাপে বশিষ্ঠদেবের তেজঃ মিত্রাবরণের তেজে প্রবিষ্ট হইল। অনস্তর একদা উৰ্ব্বশীদর্শনে মিত্রাবকুণের রেতঃ স্থলিত হইল, সেই বীৰ্য্য হইতে বশিষ্ঠ অপর দেহ লাভ করিলেন। নিমি রাজারও সেই মৃত দেহ অতি মনোহরতৈল ও গদ্ধাদি দ্বারা লিপ্ত থাকায় তাহ অবিকৃত রহিল। যজ্ঞাবসানে দেবগণ যখন যজ্ঞভাগ গ্রহণ করেন, সেই সময় ঋত্বিকগণ মঙ্গ