পাতা:বিশ্বকোষ দশম খণ্ড.djvu/১৯৮

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


मेिरीर्वांश्रग्नि মধ্যে ভারতে নিৰ্ব্বাণবিষয়ক অসংখ্য বৌদ্ধগ্রন্থ বিরচিত হয় এবং ঐ সময়ে সহস্র গছক্স সংস্কৃত গ্রন্থ চীনতাষায় অনুবাদিত হওয়া, নিৰ্মাণ-মন্ত চীনদেশেও বিস্তার লাভ করে। थुप्हेब्र ৮ম, ১ম ও ১০ম শতাব্দীতেও ভারতে বহুসংখ্যক বৌদ্ধপণ্ডিত জন্মগ্রহণ করিয়া নিৰ্ব্বাণবিষয়ক বহু গ্রন্থ প্রণয়ন করেন, ঐ সময়ে তিব্বতীর ভাষার অনেক গ্রন্থ অনুবাদিত হয় এবং নিৰ্মাণ-মত তিব্বতে প্রৰেশলাভ করে । পুরাবিষ্কৃগণ খুষ্টের ২য়, ৩, ৪র্থ ও ৫ম শতাব্দীকে ভারত ইতিহাসের তমসাবৃত অংশ বলির বর্ণন করিয়াছেন, কিন্তু বৌদ্ধ ইতিহাস পর্যালোচনা করিলে দেখিতে পাওয়া যায়, ঐ সময়েই জ্ঞানচর্চায় ভারতবর্ষ মহোন্নতি লাভ করিয়াছিল এবং ঐ কালে তারতের জ্যোতিঃকণা বিশ্বরিত হইয়া, সুদূর বিস্তীর্ণ চীন প্রভৃতি রাজাকে ধৰ্ম্মালোকে আলোকিত করিয়াছিল । বস্তুতঃ পৃষ্টের ২য় শতাব্দী হইতে ১০ম শতাব্দী পর্যন্ত ভারতবর্ষে নিৰ্ব্বাণ-ধৰ্ম্মের অসীম পর্যালোচনা হয় এবং এই পর্যালোচনার ফলে চীন, তিব্বত প্রভৃতি জনপদসমূহ জ্ঞানালোক প্রাপ্ত হয় । খৃষ্টীয় ১০ম শতাব্দীতে বৃদ্ধবিহারসমূহের ধ্বংস হয়। বঙ্গদেশে নয়পালের রাজত্বেই দীপঙ্কর শ্রীজ্ঞান (অতীশ ) নিৰ্ব্বাণ-মত শিক্ষার জন্ত সুবর্ণদ্বীপে (ব্রহ্মদেশে) গমন করেন । এইরূপে নিৰ্ব্বাণ এই ১০ম শতাব্দীর শেষভাগে ভারতে স্বনামের স্বাধকতা লাভ করে । [ বুদ্ধ ও বৌদ্ধদৰ্শন দেখ। ] নিৰ্ব্বাপরি, (নির্ণাঙ্গনি) পুণজেলায় ইন্দপুরের ১২ মাইল দক্ষিণপশ্চিমে নীরা নদীর উপর অবস্থিত ক্ষুদ্র পল্লী। এই স্থানে মহাদেবের একটা মন্দির আছে। তীর্থযাত্রীরা অগ্ৰে এই মন্দির ও মধ্যস্থ মহাদেব এবং বৃষমূৰ্ত্তি অবলোকন করিয়া তৎপরে সাতারার সিঙ্গ নাপুর-তীর্থদর্শনে গমন করিয়া থাকে। প্রবাদ এই যে, পূৰ্ব্বে কোন সময়ে মহাদেব এই স্থানে অবস্থান করিতেন, তাহার বৃষ কোন এক মালীর বাগানে প্রবেশ করিলে, মালী তাছার পশ্চাৎ ধাবিত হইয় তাহাৰ বামস্কন্ধে খুপিম্বারা আঘাত করে, (ঐ ক্ষতের দাগ আজিও মন্দিরাভ্যন্তরস্থ বৃন্ধর স্বন্ধে রহিয়াছে। ) তদনন্তর মহাদেব, উক্ত বৃষ সঙ্গে লষ্টয়া লিঙ্গ নাপুরে গমন করেন। কিন্তু বৃষ পুনরায় মালীর ৰাগলে প্রত্যাগমন করিলে, মহাদেব এইরূপ বন্দোবস্ত করেন রে, তিনি স্বয়ং সিঙ্গ নাপুরে অবস্থান করিবেন ও বৃষ নিৰ্ব্বঙ্গনিতে থাকিবেন । তীর্থযাত্রীর প্রথমে বৃষদর্শন ও পরে শিবদর্শনে গমন করিবে। মুসলমানের এই দেশ অধিকারের পর, এই বুধ महे कब्रिाउ उनाउ श्छेन्न प्लेशग्न शृप्त्र आोषाङ कब्रिप्ग, शृण इहेरउ ऐाहेक ब्रड बहिर्भउ श्छ । cगरे अछ उशत्र औ७ হইয়া, জার বুষের প্রতি অত্যাচার করে নাই। 1 wכל ] নির্বাপ4 নিৰ্বাণপুরাণ (স্ত্রী) মৃত ব্যক্তির উদেশে বলিদান। নির্বাণপ্রকরণ, বেগবাশিষ্ঠ রামায়ণের চতুর্থ খণ্ডের নাম। নিৰ্ব্বাণভূয়িষ্ঠ (ত্রি) নিৰ্মাণগ্রা, নিৰ্ব্বাণান্মুখ। নিৰ্ব্বাণমওপ (পুং ) কাশীন্থিত মুক্তি-মগুপাখ্য তীর্থভেদ। নিৰ্ব্বাণমন্তক (পুং ) নিৰ্ব্বাণং নিবৃত্তিমস্তকমিৰ যত্র। মোক্ষ। (ত্রিকাগু ) নির্বাণুরুচি (ত্রি) নিৰ্ব্বাণে রুচিরস্ত। ১ মোক্ষসাধনাসক্ত। ই দেবভেদ। বিহঙ্গম কামগম নিৰ্মাণকচঃস্বরা "ভোগপ১৩১২) নিৰ্ব্বাণসুত্র (#) ১ একখানি cदोकएरबद्र मांम । २ ५थकजन বেীদ্ধের নাম। নির্বাণিন (পুং) উৎসপিণীর অর্থৎভেদ। জৈন দেখ। ] নির্বাণী ( স্ত্রী) ১ জৈনদিগের শাসনদেবতাভেদ । ( হেমচ ) নির্গত বাণী যন্ত, বাহুলকাং ন কপূ। ২ বাক্যরহিত, তুষ্ণীস্তৃত। যে স্থলে কপ্‌ প্রত্যয় হইবে, সেই স্থলে "নিৰ্ব্বাণীক’ এইরূপ অর্থ হইবে । নির্বাত (ত্রি) নির্গতে বাতো বায়ুৰ্যন্মাৎ। ১ বায়ুরহিত, বায়ুশূন্ত দেশ। স্থির, অচঞ্চল, নিস্তব্ধ । "অস্থর্যামিব সুৰ্যোণ নিৰ্ব্বাতমিব বায়ুনা । ভাসিতং ছলাদিতঞ্চৈব কৃষ্ণেনেদং সদো হি নঃ ॥”(ভার” ২৩৬২৮) নিৰ্ব্বতি স্মেতি নিৰ্ব-বা-ক্ত । ( নিৰ্ব্বাণোইবাতে। পা ৮২l৫০) ইতি সুত্রেন নিষ্ঠ তস্ত ন । ২ নির্গত বায়ু। নির্বাদ (পুং ) নিৰ্ব্বদনমিতি, নির-বন্ধ-ভাবে ঘঞ, । ১ পরীবাদ, জনবাদ, অপবাদ, নিন্দ, লোকাপবাদ। “কিমাত্মনিৰ্ব্বাদকথামুপেক্ষে জায়ামদোষামুত সস্ত্যজামি।” ( রঘু ১৪৩৪) ২ অবজ্ঞা । নির্নিশ্চিতং বাদঃ কথনং । ৩ নিশ্চিতবাদ । বাদস্ত অভাবঃ । অভাবার্থেইব্যয়ীভাবঃ । ৪ বাদাভাব। নিৰ্ব্বানর (ত্রি ) বানরহীন, বানরশূন্ত । নির্বান্ত (ত্রি ) বহির্গত, প্রেরিত। (দিব্যাবদান) নিৰ্ব্বাপ (পুং) নিৰ্ব্বপণমিতি নির-বপ-ঘঞ, নিবাপ, প্রেত ভিন্ন মূত পিতৃলোকোদেণ্ডক দান, পিতৃলোকের উদ্দেশে যে দান করা হয়, তাহাকে নিৰ্ব্বাপ কহে । “পুত্রেভ্যোহহং দদামাদ্য নির্বাপং বিধিপূৰ্ব্বকম্।” (দেবীভাগ” ২।৭।১৬ ) ২ ভিক্ষার্থ দান, দাম । ৩ ভক্ষণ । ( রামানুজ ) *ীলবৈদুৰ্য্যবৰ্ণাংশ্চ মৃদুন যবসসঞ্চয়ান। নিৰ্ব্বাপাথং পশুনাং তে দদৃশুস্তত্ৰ সৰ্ব্বশ ॥” (রাষ্ণু”২৯১৮-) নির্বাপণ ( ক্লী ) নিয়-বপ-পিছ লুট। ১ বধ, মায়ণ। ২ দান। ( इलांछूष ) ஆக