পাতা:বিশ্বকোষ দশম খণ্ড.djvu/২১৫

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


নিশিবিন্‌ করিয়া অক্ষর থাকিবে এবং ১, e, ৯, ১৩ ও ১৫শ বর্ণ গুরু, এতদ্ভিন্ন সকল লঘু হইবে। লক্ষণ— “শংস নিশিপালকমিদং ভজসনাশ্চ রঃ।” ( বৃত্তরঞ্জা টীকা) (পুং ) ২ নিশিপালক প্রহরিভেদ । নিশিপুষ্প (স্ত্রী) নিশি গুপাতি বিষ্কাশতে পুপ অফ ততে টাপ্‌। শেফালিক, শিউলীফুল । নিশিপুম্পিক (স্ত্রী)নিশিপুশাস্বার্থে কন। শেফালিকা (শঙ্গর") নিশিপুষ্পী (স্ত্রী) নিশি বিকশিতং পুষ্পং যন্তাঃ, ততো কৰ্ম্মধারয়সমাসে সপ্তম্য অনুষ্ক জাতেরত ইতি টপ্‌চ। শেফালিকা। , একটা অতি প্রাচীন নগর। ইহা পারস্ত ও রোম এই উভয় সাম্রাজ্যের সীমান্তে এবং তাইগ্রীস ও ইউফ্রেটস নদীর মধ্যস্থলে অবস্থিত এবং দৃঢ় পাৰ্ব্বত্য তুর্গ দ্বারা সুরক্ষিত ছিল। রোম ও আরববাঁসির বহুকাল চেষ্টা করিয়াও এই অভেদ্য গ্ৰী জয় করিতে পারে নাই। এই নগর ও দুর্গ তিন শ্রেণী মুদৃঢ় ইষ্টকপ্রাচীরে পরিবেষ্টিত এবং প্রত্যেক দুই শ্রেণীর মধ্যভাগে থাল কাটা ছিল। পারস্তরাজ শাহপুর উপযুপিরি ৩৩৮, ৩৪৬ ও ৩৫০ খৃষ্টাব্দে ক্রমান্বয়ে ৬০, ৮• ও ১• • দিন অবরোধ করিয়াও ব্যর্থমনোরথ হইয়া ফিরিয়া আসিয়াছিলেন। অবশেষে ৩৬৩ খৃষ্টান্ধে জোবিয়ানের কৌশলে এই রাজ্য পারস্তরাজের হস্তগত হয় । এই দুর্গের চতুর্দিকস্থ পৰ্ব্বতে, কৃষ্ণবর্ণ র্কাকৃড়াবিছ ও বিষাক্ত সৰ্প বহুপরিমাণে দেখা যায়। যখন উত্তেজিত আরবজাতি, ১৭ হিজিরাতে, এই নগর ৮ মাস অবরোধ করিয়া রাখে, সেই সময়ে কাকৃড়াবিছার কামড়ে অনেক আরবসৈন্ত কালের করালগ্রাসে পতিত হয় । তাহ দেথিয়া, আরবসেনাপতি কুপিত হইয় এক হাজার জালা ভরিয়া, এই বিষাক্ত সরীসৃপ রাত্রিকালে যন্ত্রসাহায্যে নগর মধ্যে নিক্ষেপ করেন । জালা নগর মধ্যে পতিত হইয়া ফাটিয়া যায় এবং তাছাদের কামড়ে ঘুমন্ত অবস্থায় অনেক লোক মরিয়াছিল। যাহারা বাচিয়াছিল, তাহারা প্রভাতে হতাশ্বাস ও তন্ত্ৰ মনোরথ হইয়া দুৰ্গরক্ষণে কৃতকাৰ্য্য হইল না। মুসলমানের দুর্গদ্বার তাঙ্গিয়া প্রবেশপূৰ্ব্বক অধিবাসিদিগকে হত্যা করিয়া, দুর্গ জর করিয়াছিলেন। কথিত আছে, পারস্তরাজ নেশেরবানের রাজত্বকালে এই উপায়ে ঐ নগর অধিকৃত হইয়াছিল। বর্তমান সময়ে এই নগরের সে প্রাচীন সৌন্দৰ্য্য আর নাই ; সামান্ত গ্রাম মাত্র দেখা যায়। ইহার চতুর্দিকস্থ ধ্বংসাবশেষসমূহ প্রাচীন কীৰ্ত্তর পরিচয় প্রদান করিতেছে। এখন কেবল মাত্র একশত ঘর লোকের বসতি আছে। এখানে প্রচুর পরিমাণে সাদা গোলাপ ফুল জন্মে। লাল বর্ণের গোলাপ [ ২১৫ ] নিশুম্ভ কোথাও দৃষ্ট হয় না। এখনও পূর্বের তার সরীস্বপজাতির বহলতা দেখা যায়। 尊 নিশীথ (পুং ) নিতরাং শেয়তেহন্ত্রেতি নি-শী-থঙ্ক প্রত্যয়েন"নিপাতনাৎ সাধুং (নিশীখগোপীখাবগথা । উ, ২৯ ) ১ অৰ্দ্ধাত্র । “নিশীথদীপাং সহল হতভিবো বভূৰুয়ালেখা সমৰ্পিত ইৰ।” ( রঘু ৩১e ) ২ রাজি । ( মেদিনী ) “সুতীগীতং মনস্ত দীপনং শুটে নিশীখেছকুভবত্তি কামিনঃ ” { ঋতুসংহার ১৩ ) ৩ রাত্রির পুত্রভেদ । “প্রদোষে নিশিথে বুষ্ট ইতি দোষাসুতাস্ত্রয় ।” (ভাগ” ৪।১৩১৪) "নিশিথঃ নিশীথঃ ” ইতি ভাবার্থীপিকা । নিশাঁখিনী ( স্ত্রী) নিশীথোংস্ত্যন্তাঃ ইতি ইনি উীপ। রাত্রি। নিশীথিনীনার্থ (পুং ) নিশীথিন্তাঃ নাথঃ । ১ চন্দ্র । ( হলায়ুধ ) ২ কপূর । নিশীথ্যা (স্ত্রী ) রাত্রি। ( ভূরিপ্র” ) নিশুম্ভ (পুং ) নি-শুম্ভ হিংসায়াং ঘঞ, । ১ বধ । ( হেমচন্দ্র ) ২ হিংসন। ৩ মর্দন । ৪ অসুরভেদ। “কগুপস্ত দমুর্নামৰ্ভাৰ্য্যালীং দ্বিজসত্তম। তস্তাস্তু দ্বেী মুতাবাস্তাং সহস্রাক্ষণস্থলাধিকে । জ্যেষ্ঠঃ শুস্ত ইতি খাতে নিশুন্তশ্চাপরোমুরঃ । তৃতীয়ে নমুচিনামমহাবলসমন্বিতী ॥" ( বামনপু ২৬ অঃ ) কগুপের দণ্ডু নামে এক পত্নী ছিল, এই দমুর গর্ভে তিনটী পুত্র হয়, শুস্ত, নিশুম্ভ এবং নমুচি। এই তিন পুত্র ইন্দ্র হইতেও অধিক বলশালী। নমুচি ইঞ্জের হস্তে নিহত হন। পরে গুস্ত ও নিশুম্ভ ঘোরতর যুদ্ধের আয়োজন করিয়া দেবগণের সহিত যুদ্ধার্থ উপস্থিত হন। এই যুদ্ধে দেবগণ পরাজিত হইরা দানবগণের অনুগামী হইলেন । গুপ্ত ও নিশুম্ভ স্বৰ্গরাজ্যের অধীশ্বর হইলে, দেবগণ ভূতলে অবস্থান করিতে লাগিলেন। দেবগণের যাহার যে সকল শ্রেষ্ঠ রত্নাদি ছিল, দানবগণ তাহ। বলপূৰ্ব্বক গ্রহণ করিয়াছিল । শুন্তু ও নিশুম্ভ একদিন রক্তবীজ নামক একজন দানবকে অবলোকন করিয়া তাহাকে কহিলেন, ‘তুমি কি জন্তু দীনভাবে বিচরণ করিতেছ, ইহাতে রক্তবীজ কহিল, আমি মহিষাসুরের সচিব । বিন্ধ্যপৰ্ব্বতে কাত্যায়নী দেবী ‘মহিষাসুরকে বিনাশ করিয়াছেন। দেবীর ভরে চণ্ড ও মুণ্ড নামে ফুই মহাবীর জল মধ্যে অবস্থিতি করিতেছেন। তাহ শুনিয়া শুস্ত ও নিশুম্ভ প্রতিজ্ঞা করিল, “মহিষাসুরহী দেবীকে বিনাশ করিব।” তৎক্ষণাৎ নৰ্ম্মদ নদীমধ্য হইতে চণ্ড ও মুগু নিৰ্গত হইয়া, শুভ ও নিগুস্তের সহিত মিলিত হইল। তখন সকলে