পাতা:বিশ্বকোষ দশম খণ্ড.djvu/৩২৮

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


মৃপতুঙ্গ T ૭૨ ] নৃপমজিল্যক নৃপতি (পুং) পাতি পাউতি, নৃণাং পতিঃ ভতৎ। - রাজা। ব্রাহ্মণগণকে প্রতিমাদেবী চতুৰ্ব্বেণী মঙ্গল’ নামক গ্রাম -জতন্ত্র বিপরীতত নৃপতেরজিতাত্মনঃ । দান করেন । সংক্ষিপাতে যশে লোকে স্বতবিলুরিবাস্তুসি।" (মনু ৭৩৪ ) ২ কুবের । নৃপতিবল্লভ (পুং ) ১ বটিকাল্পক চক্রদত্তোক্ত ঔষধবিশেষ । রসেস্ত্রসারসংগ্রহে টহায় প্রস্তুতপ্রণালী এইরূপ লিখিত আছে—জায়ফল, লবঙ্গ, মুখ, এলাচি, সোহাগা, হিঙ, জীর, তেজপাত, জোয়ান, শুঠ, সৈন্ধবলবণ, লৌহ, তাম্র, অভ্ৰ, পারদ, গন্ধক ও তাম্র প্রত্যেকে ৮ তোলা। মরিচ ১৬ তোলা, এই সকল দ্রব্য ছাগভৃঙ্ক বা আমলকীর রসে পেষণ করিয়া বটিক প্রস্তুত করিতে হইবে । শ্ৰীমন গহননাথ বিবেচনা করিয়া ইহা নিৰ্ম্মাণ করিয়াছেন । এই ঔষধ সেবনে অগ্নিমাণ্য, বিস্তুচিকা, প্লীহা, গুল্ম, উদরী, অষ্ঠাল, যকৃৎ, পাণ্ডু, কামল প্রভৃতি রোগ প্রশমিত হয় । এই ঔষধসেবনে দীর্ঘজীবনলাভ ও রোগী রোগ হইতে মুক্তিলাভ করে। গ্ৰহণী-অধিকারের ইহা একটি উত্তম ঔষধ । ( রসেন্দ্রসারসংগ্রহ, গ্ৰহণীচি )। ইহা ভিন্ন এই অধিকারে বৃহন্ন পতিবল্লভ, ও দুষ্ট প্রকার ‘মহারাজ নৃপতিবল্লভরস' নামক ঔষধের প্রস্তুতপ্রণালী লিখিত অাছে। বৃহস্পতিবল্লভ প্রস্তুতপ্রণালী –পার, গন্ধক, লৌহ, অত্র, সীসক, চিতা, তেউড়ী, সোহাগ, জায়ফল, হিঙ, দারুচিনি, এলাচ, লবঙ্গ, তেজপত্র, জীর, জোয়ান, শুঠ, সৈন্ধবলবণ ও মরিচ প্রত্যেকে একতোলা, স্বর্ণ দুই আলী, আদার রস ও আমলকীর রসে ভাবনা দিয়া দুই মাষ পরি মাণে বটিক প্রস্তুত করিতে হইবে। প্রাতঃকালে উঠিয়া ; ইহা ভক্ষণ করিয়া ঈপ্সিত বস্তু ভোজন করিলে উদরের আর কোনরূপ গোলযোগ থাকে না। এই ঔষধসেবনে অগ্নিমাল্য, অজীর্ণ, অৰ্শ, গ্ৰহণী, অামাজীর্ণ, উদরী প্রভৃতি রোগ প্রশমিত হয় । (রসেস্ত্রসারসংগ্রহ, গ্ৰহণীচিকি' ) । নৃপতিবল্লভ ঔষধ ভৈষজ্যরত্নাবলীতে শ্ৰীম্পতিবপ্লভ নামে আখ্যাত হইয়াছে। বৃহৎ নৃপতিবয়ভের নাম বৃহৎ নৃপবল্লভ। (ভৈবজ্যরন্থাবলী )। (ত্রি) ২ রাজগণের প্রিয় । (স্ত্রী) স্ক্রিয়াং টাপ । ৩ রাজপত্নী, রাজমহিষী ৷ নৃপতীন্দ্ৰবৰ্মা, ব্যাধপুরের একজন রাজা। ইহার পরবর্তী, রাজা জয়বর্গ মহেন্দ্ৰ পৰ্ব্বতে যাইর রাজ্য স্থাপন করেন। নৃপতুঙ্গ, ১ম দক্ষিণাত্যের রাষ্ট্রকূটবংশীয় একজন রাজা । ইনি ৩য় গোবিন্দরাজের পুত্র । মাঞ্জাজ প্রেসিডেন্সীয় জার্কট জেলায় প্রাপ্ত ইহায় সময়ে উৎকীর্ণ একখানি তাম্রশাসনে हैशंङ्ग पाननब्रिका जांtइ। ५३ ठांमक्षांशन षांद्र हैनि ইনি ভানুমালীর কক্ষ পুখিৰী-মাণিক্যাকে বিবাহ করিয়াছিলেন। ইনি চালুক্য, অভূশিখ প্রভৃতি জাতিকে জয় করিয়া, পরে মান্তখেট নগর পুনর্নির্মাণ করেন। এই নগরই তাহার ংশধরগণের রাজধানীরূপে গণ্য ছিল । এই প্রাচীন নগর বর্তমান নিজাম রাজ্যের অন্তভূক্ত মানথেরা বা মালখেড়। ইনি বহু দিন পর্য্যস্ত রাজত্ব করিয়াছিলেন । ৭৭৩ শকে র্তাঙ্কার রাজত্ব সময়ে উৎকীর্ণ আর একথানি তাম্রশাসন পাওয়া গিয়াছে। ফ্রিট সাহেব ১ম অমোঘবর্ষ ও অতিশয়ধবল ইহার এই দুইটী নাম উল্লেখ করিয়াছেন । ২ উক্ত বংশে অপর একজন রাজা, গোবিন্দের উপাধি। ৮৫১-৮৫২ শকে চন্দ্রগ্রহণ উপলক্ষে উৎকীর্ণ ধারবাড় জেলার বঙ্কাপুর তালুকে তাহার একখানি শিলালিপি আছে। ইনি ৭৪৫—৮৫৭ শকের মধ্যে ২য় ভীমরাজের সহিত যুদ্ধ করেন । [ রাষ্ট্রকুটরাজবংশ দেখ ] নৃপত্নী ( ) নৃণাং পতি, পালয়িকী, নাস্তাদেশ নাস্থ্যাং স্ক্রিয়াং উপৃ। মনুষ্যদিগের পালয়িত্রী স্ত্রী । যে স্ত্রীলোকগণ মুহূৰ্য্যদিগকে পালন করেন । “অভিনে দেবো রবস মহঃ শৰ্ম্মণ। নৃপত্নী” ( ঋক্ ১২২১১ ) ‘নৃপত্নীঃ মনুষ্যাণাং পালয়ত্রাঃ ’ ( সায়ণ ) নৃপতৃ ( ক্লী ) নৃপস্ত ভাবঃ, নৃপ-ত্ব । রাজত্ব, রাজার কার্য । “বিদ্বাঞ্চ নৃপতঞ্চ নৈব তুল্যং কদাচন । স্বদেশে পূজ্যতে রাজা বিদ্বাৰু সৰ্ব্বত্র পুজাতে ॥” (চাণক্য ) নৃপক্রম (পুং) নৃপপ্রিয়াে ক্রম। আরঞ্চ, সোনালু (ভাষা)। রাজদনীবৃক্ষ, ক্ষরিণী । ( রাজনি" ) নৃপপ্রিয় (পুং) ৰূপাণং প্রিয় । , বেষ্টবংশ, চলিত বেড় বঁাশ । ২ রাজপলাণ্ডু, লাল পেঁয়াজ। ৩ রামশরবৃক্ষ । ৪ শালিধান্ত, আমন ধান। ৫ আম্রবৃক্ষ। ৬ রাজশূক পক্ষী, হিন্দী রাজশূগা । (ত্রি ) ৭ রাজবল্লভ, রাজার প্রিয়পাত্র। নৃপপ্রিয়ফল, (স্ত্রী ) নৃপপ্রিয়ং ফলং যন্তাঃ ! বাৰ্ত্তাকী, চলিত বেগুন । নৃপবদর (পূ) ব্যাণাং নৃপ, রাজদম্ভাস্থিাৎ পূৰ্বনিপাত । রাজবদরবৃক্ষ, চলিত নারিকেলে কুল। নৃপপ্রিয় (স্ত্রী) নৃপপ্রিয় ক্রিয়াং টাপু। ১ কেতকী, কোল। • ২ রাজখর্জুরী, পিণ্ডিখেজুর। - নৃপমন্দির (কী) ৰূপাণাং মদির। রাজগৃহ, সৌধ, প্রাসাদ। নৃপমাঙ্গল্যক (কী ) ৰূপত মালাং যম্মাৎ, কপ্‌। আহল স্বক্ষ, কাশ্মীর দেশে তরবটগাছ কৰে। ( রাজনি" )