পাতা:বিশ্বকোষ দশম খণ্ড.djvu/৩৬৮

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


নেপাল [ مbنيوي ] নেপাল গণ ৮ই শ্রাবণ ও ১৩ই ভাঞ্জ তুই দিম প্রত্যেক গৃহস্থের নিকট হইতে বার্ষিক স্বরূপ চাউল ও শতাদি আহরণ উদ্দেশ্রে বহির্গত হন । এই ভিক্ষা-বৃত্তির অর্থ এই যে, প্রাচীন কালে বাড়াদিগের পূর্ব-পুরুষ বৌদ্ধপুরোহিতগণ ভিক্ষুক ছিলেন। সেষ্ট মহাত্মগণের বংশধরগণ র্তাহীদের অঙ্গুষ্ঠেয় সৎকৰ্ম্ম পালন | জষ্ঠ বৎসরে দুই বার যাত্র ভিক্ষাবৃত্তি অবলম্বন করেন। এই ভিক্ষণলব্ধ স্ত্রব্যেই তাহাঁদের প্রায় এক বর্ষের জীৰিক সংগৃহীত হয়। উক্ত দিনে নেবারীগণ স্ব স্ব বাড়ী বা দোকান, পুষ্পাদি দ্বার সুসজ্জিত করে এবং সেই গৃহস্থপরিবারভুক্ত-রমণীগণ এক এক ধামা চাউল ও অন্তান্ত শস্ত লইয়া দোকান বা বাড়ীর जन्नाग्न ऊांनिग्नां दाज । दैङ्गिांठीण छांद्राझण नेिब्रा शाहेश, সকলেই তাহাদিগকে প্রভূত শস্ত দিয়া বিদায় করে। কোন शमशान् नबाझो उख् मिडेि विनम्न बाउँउ पनि अछ এক দিনে গুপ্তভাবে অর্থাৎ আপনি একাকী বাড়াদিগকে ঐক্ষপে ভিক্ষা দিয়া বিদায় করিতে ইচ্ছা করেন ; তাহা হইলে প্রভূত অর্থ ব্যর না করিলে তাহার এ মনস্কামনা পূর্ণ হইতে পারে মা । এই উৎসবে যে বাড়া প্রথমে গৃহস্থের চৌকাঠে পদাপর্ণ করিবে, তাহাকে কিছু বেশী দান করিতে হইবে। যদি গৃহস্থ এই উৎসব উপলক্ষে রাজাকে নিমন্ত্রণ করেন, তজ্জন্ত অবশুই তিনি রাজসন্মানরক্ষার্থ একখানি রৌপ্যসিংহাসন, ছত্র ও রন্ধনতৈজসাজি রাজচরণে অর্পণ করিয়া আপনার মর্য্যাদারক্ষা করিবেন । ৮। রাথি-পূর্ণিমা—শ্রাবণ মাসের পূর্ণিমার দিন বৌদ্ধ ও হিন্দু উভয় সম্প্রদায়ই এই উৎসবে যোগদান করেন, কিন্তু উভয় দলের পাৰ্ব্বণাদি স্বতন্ত্র। বৌদ্ধগণ ঐ দিবসে পবিত্র মদীতে প্লান করিয়া দেবদর্শনে মপিারে প্রবেশ করে। পক্ষান্তরে ব্রাহ্মণ পুরোহিতগণ আপনার শিষ্য বা যজমানের হাতে মুরঞ্জিত স্থত বাধিয়া দেন এবং তজ্জন্তু তাহার নিকট হইতে কিছু দক্ষিণ আদায় করিয়া লন। অনেকে গুণাসঞ্চয়োদেশে গোলাঞিথান নামক পৰ্ব্বতের তটবর্তী নীলকণ্ঠহ্রদ বা গোসাঞিকুণ্ড নামক স্থানে স্বানার্থ আসিয়া থাকেন। ৯ । নাগ-পঞ্চমী-প্রতিবৎসর শ্রাবণ মাসের পঞ্চমী তিথিতে নাগ ও গরুড়ের যুদ্ধ উপলক্ষে এই উৎসব হয়। চাকু-নারায়ণের মন্দিরে যে গরুড়মূৰ্ত্তি প্রতিষ্ঠিত আছে, নেপালীদের বিশ্বাস ঐ দিনে দেবমূৰ্ত্তি যুদ্ধক্লেশ জঙ্গ ঘামিতে থাকেন । পুরোহিতগণ একখানি গামছায় ঐ ঘৰ্ম্ম মুছিয়া রাখেম । এইরূপ সকলেরই ৰিশ্বাস যে সেই গামছার একগাছি সুত্রও সর্পবিষের বিশেষ উপকাৰী। -- o ১০ । জন্মাষ্টমী—শ্ৰীকৃষ্ণের জন্মোপলক্ষে এই উৎসব হয়। ১১ । গোষ্ঠ বা গাজী-যাত্রা—কেবলমাত্র নেবারজাতির মধ্যে এই উৎসব প্রচলিত। কোন গৃহস্থের পরিবারভুক্ত কোন লোক মরিলে, সেই পরিবারস্থ সকলই ১ল ভাত্রে গাভীরূপ ধরিয়ী রাজপ্রাসাদের চারিধারে ভ্রমণ ও মৃত্য করিয়া বেড়াইত। এখন কেবল মুখসে মুখ ঢাকিয়া সাধারণে মৃত্যগীত করে মাত্র । -- ১২। বাঘ-যাত্রা-গাভীযাত্রার অব্যবহিত পরেই ৩রা ভাদ্র নেবারগণ বাঘ সাজিয়া নৃত্যগীত করে। উহা গার্ভাযাত্রার অনুরূপ যাত্র । ১৩ । ইন্দ্ৰ-যাত্রা—২৬এ ভাদ্র কাঠমাণ্ডু নগরে এই উৎসব হয় এবং ক্রমাম্বরে ৮ দিন কাল থাকে। প্রথম দিনে রাজপ্রাসাদের সম্মুখে একটী উচ্চ কাঠের ধ্বজ প্রোথিত হয় ও প্রাজ্যের নর্তকসম্প্রদায় মুখস পরিয়া, প্রাসাদের চতুম্পার্থে মৃত্যগীতাদি করে । তৃতীয় দিন রাজা কতকগুলি বালিকা আনাইয়া কুমারীপুজা করেন । পরে তাহাদিগকে যানারোश्t१ नशtब्रव्र भश निम्नां शहेग्न शां७ग्न झछ । यश्वन भै ठूयां औ११ নগর পরিক্রম করিয়া, রাজপ্রাসাদে পুনরার আসিয়া উপস্থিত হয়, তখন একখানি গদির উপর স্বয়ং রাজ বসেন অথবা রাজতরবারি অনিয়া তাহার উপর রাখিয় দেওয়া হয় ; রাজসরকারভুক্ত কৰ্ম্মচারিগণ নানাবিধ উপঢৌকন ও নজরান দিয়! থাকেন। ঐ দিন অনন্ত চতুর্দশী। গোর্খারাজ পৃথ্বীনারায়ণ এই পৰ্ব্বদিনে সদলে আসিয়া কাঠমাণ্ডু নগরে প্রবেশ করিয়াছিলেন । যখন রাজার বসিবার জন্য গদি বাহির করা ছইল, তখন গোখীরাজ যাইয়। ঐ গদিতে উপবেশন করিলেন। নেবারগণ সকলেই উৎসবে মগ্ন এবং নেশায় অভিভূত, কাজেই তাহার। বিপক্ষের প্রতি অস্ত্ৰধারণ করিতে পারিল না। নেবাররাজ নগর হইতে পলাইয়া গেলেন, পৃথ্বী-নারায়ণও নির্বিবাদে নেপালরাজ্য দখল করিলেন। এই পৰ্ব্ব দিনের মধ্যে যদি ভূমিকম্প হয়, নেপালীদের বিশ্বাস, তাহা হইলে বিশেষ অনিষ্টপাতের সস্তাবনা ; এই কারণে নেবারগণ ভূমিকম্পের পর দিন হইতে পুনরায় আবার আট দিন ধরিয়া ঐ উৎসব করে। ১৪ দশের বা দুর্গোৎসব-মহালয়ার পর হইতে বিজয়াদশমী পৰ্য্যস্ত দশ দিন এই উৎসব। ভারতবর্ষের স্থামে স্থানে দশের উৎসব উপলক্ষে যে সকল কৰ্ম্মাদি বিহিত আছে, এখানেও ঠিক সেইরূপ হয়। উৎসবের স্থিতিকাল দশ দিন, झै ब्रश्न हिम श्र८नरु भश्षि 9 झाँअरुनि श्च्न, किस्त्र बोक्रोब्रोङ्ग মত এখানে মৃত্তিকার দুর্গাপ্রতিমা গঠিত হয় না। প্রথম ীিমে জর্থাৎ ঘটস্থাপনার সময়ে ব্রাহ্মণের পূজার জন্ত নির্ধারিত