পাতা:বিশ্বকোষ দশম খণ্ড.djvu/৩৯৪

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


নেপাল { ു ) নেপাল । এরূপ সদৃগুণ-সম্পন্ন রাজা আর হয় নাই, তাহার নাম গ্রহণ করিলে সৰ্ব্বপাপ ক্ষয় হয় । তাছার পর শ্ৰীনিবাসমল্ল ১২ই জ্যৈষ্ঠ মুদিতে (৭৭৭ নেং সং) মৎস্তে নাথের উৎসব দিনে নেপালের সিংহাসনে অধিষ্ঠিত হন । ৭৭৮ নেং সং, ভাতগাও ও ললিতপুররাজ একত্র হইয়। কান্তিপুররাজের বিরুদ্ধে যুদ্ধ করেন। এই সময়ে শ্ৰীনিবাস ও প্রতাপমল্পের মধ্যে কালিকাপুরাণ ও হরিবংশ স্পর্শে মিত্রত। স্থাপিত হয় এবং ভাতগাও, ললিতপুর ও কান্তিপুর গতায়াতের জন্য যে এক একটা পথ আছে, তাহা এই যুদ্ধ হইতে খোলা রাখিতে পরস্পর প্রতিশ্রুত হন। ৭৮, নেং সং, ভাতগায়ের রাজা জগৎপ্রকাশমল্ল চাঙ্গুর নিকটবর্তী সেনানিবাসে অগ্নি লাগাইয়। ৮ জনকে হত্যা ও ২১ জনকে বন্দী করিয়া লইয়া ধান। ইহাতে রাজা ঐনিবাস প্রতাপমপ্লের সহিত মিলিত হইয় প্রথমে বন্দেগ্রাম ও চম্পারণসেনানিবাস অধিকার করেন, পরে তাহারা চোরপুরী জয় করিলে, ভাতগাওর রাজা হস্তী ও অর্থ দিয়া তাহীদের সহিত সন্ধি করিতে বাধ্য হন। ৭৮২ নেং সং, তাহার বোধগাও নামক স্থানে যাইয়া বাস করেন। তথtয় ৭ দিন অবস্থানের পর তাহারা নকৃদেশগাও জয় ও লুট করেন এবং থেমী অধিকার করিয়া স্ব স্ব রাজধানীতে প্রত্যাবৃত্ত হন। রাজা শ্ৰীনিবাস ৭৮৩–৭৯৮ নেং সং মধ্যে অনেকগুলি মন্দির নিৰ্ম্মাণ ও কতকগুলির সংস্কার করেন । ৮০১ নেং সং, তিনি ভীমলেনের উদ্দেশে একটা বৃহৎ মন্দির নিৰ্ম্মাণ করেন। তাহার পর তৎপুত্র যোগনরেঞ্জমল্প সিংহাসন লাভ করেন। ইনি মণিমণ্ডপ নামে একট বৃহৎ বাড়ী নিৰ্ম্মাণ করান। ইহার বালকপুত্রের লোকান্তর হইলে ইনি রাজৈশ্বৰ্য্যে উদাসীন হুইয়া সংসারধৰ্ম্ম ত্যাগ করেন। এই সময়ে সাধারণের আগ্রহে কাস্তিপুরের রাজ মহীপতীন্দ্র বা মহীন্দ্ৰসিংহমল্ল পাটনের রাজা হন । ইহার মৃত্যু হইলে জয়যোগপ্রকাশ রাজ্যভার গ্রহণ করেন । ইহার মৃত্যু হইলে যোগনরেন্ত্রের একমাত্র কন্তু রুদ্রমতাঁর পুত্র বিষ্ণুমল্ল ৮৪৩ নেং সংরাজা হন । তাহার রাজত্বকালে মহা তুর্ভিক্ষ ও অনাবৃষ্টি উপস্থিত হয় । তিনি অনেক পুরশ্চরণ ও নাগসাধন করিম কৃষ্ট-দেবতার শাস্তিবিধান করেন। তাছায় পুত্র না খাকায় তিনি রাজ্যপ্রকাশমন্ত্রকে পোষ্যপুত্র গ্রহণ করেন। রাজ্যপ্রকাশ শাস্তুপ্রকৃতির লোক ছিলেন । এই কারণে প্রধানের बङ्गशढ़ रुब्रिग्रां ऊँीशङ्ग झूहे ठकू अझ फब्रिग्रां (नन । हैशर७ छैशद्र ভ্রাতা জয়প্রকাশ ক্রুদ্ধ হইয়া উক্ত প্রধান ও কাজীদিগকে কারাষদ্ধ করেন। রাজ রাজাপ্রকাশ চক্ষু উৎপাটনের দীক্ষণ যন্ত্রণ गश् कब्रिाड मां *ोद्विग्नां अकांtश जैौणां जशग्नर्ण काङ्गन । এই সময়ে পাটনের ঢালছেকাছজাতীয় অস্থাপ্ত প্রধানের ভাতগাও হইতে রাজা রণজিতকে আনিয়া পাটনের শাসনভার অর্পণ করিলেন, কিন্তু তাহার একবর্ষকীল শাসনে তাহার। शृद्रिकुक्षु न! इहेग्रां ॐांशtद ब्रांछा रुहेरठ उॉफ़ॉरेंग्र (जन । ইহার অব্যবহিত পরেই তাহারা পুনরায় কান্তিপুরের রাজা জয়প্রকাশকে আনিয়া তাহারই হস্তে পাটনের সিংহাসন দান করেন, কিন্তু আশ্চর্যের বিষয় তাহার উপর এক বৎসর রাজ্য দিয়াও প্রধানের নিশ্চিন্ত হইতে পারিলেন না ; তাহারা পুনবার বিষ্ণুমল্পের দৌহিত্রকে রাজ্যভার প্রদান করেন। তাহার নাম রাজবিশ্বজিৎ । বিশ্বজিতের চারিবৎসরকাল রাষ্ট্রত্বের পর প্রধানের ষড়যন্ত্র করিয়া তাহার প্রাণ সংহার করেন। অতঃপর তাহারা নবকোটে যাইয়া রাজ পৃথ্বীনারায়ণের অনুমতিক্রমে তাহার কনিষ্ঠ ভ্রাত দলমৰ্দ্দন সী নামক জনৈক ব্যক্তিকে অনিয়া পাটনের সিংহাসনে বসাইলেন । দলমৰ্দ্দন প্রধানদিগের বিনাপরামর্শে রাজকার্য পর্যালোচনা করিতে লাগিলেন। এক সময়ে পৃথ্বীনারায়ণ র্তাহার বিরোধী হইলে তিনিও জোষ্ঠের সহিত যুদ্ধ করিয়াছিলেন। ক্রমে তাহার এই আচরণে বিরক্ত হইয়া তাহার রাজত্বের চতুর্থ বৎসরে প্রধানেরা তাহাকে তাড়াইয়া, বিশ্বজিতের বংশোদ্ভব তেজনরসিংহমপ্লকে সিংহাসনে অভিষিক্ত করিলেন । তেজনরসিংহ তিনবৎসর রাজত্ব করিলে, পৃথ্বীনারায়ণ নেপালে আগমন করেন । তিনি পাটন আক্রমণ করিলে রাজা তেজনরসিংহ ভাতগাওএ পলাইয়া যান। পৃথ্বীনারায়ণ দেখিলেন যে প্রধানেরাই একমাত্র হৰ্ত্তাকর্তা, কাজেই তিনি এই বিশ্বাসঘাতকদিগকে ধৃত ও নিহত করেন । খৃষ্টীয় অষ্টাদশ শতাব্দীর মধ্যভাগে যখন লর্ড ক্লাইব ধীরে ধীরে বঙ্গের বক্ষে পদক্ষেপ করিয়া বৃটিশ সৈন্তের নির্ভীকতার ভারতে ইংরাজ জাতির তবিষ্যৎ সাম্রাজ্যভিত্তি গাঁথিতে ছিলেন, ঠিক সেই সময়ে বাঙ্গালীর উত্তরদিকে হিমালয়ের পাদমূলে নেপালরাজ্য ক্ষুদ্র ক্ষুদ্র সামন্তাধীনে বিভক্ত থাকিয় পরস্পর বিপদে জড়িত হুইতেছিল। পূৰ্ব্বোল্লিখিত ভাতগাও, কাঠমাণ্ডু ও পাটনের শেষ ইতিহাস হইতে জানা যায় যে, যখন তেজনরসিংহ পাটনের সিংহাসনে এবং অপুত্রক রাজা জয়প্রকাশ কাঠমাণ্ডুতে আসীন, তখন ভাতগাওর অধিপতি রাজা রণজিৎমল্প কোন সামান্ত কারণে উক্ত রাঙ্গদ্বয়ের প্রতিদ্বন্দ্বী হইয়া সসৈন্তে র্তাহীদের আক্রমণ করিতে অগ্রসর হন । রাজা রণজিৎ স্বদেশবৈরিগণের ছপ্ত হইতে মুক্ত হইবার জন্ত এবং আপনাকে কাঠমাণ্ডু, পাটন ও ভাতগাওর একেশ্বর রাজা করিতে মানস করিয়া দূরশত্রু গোর্খাপতি পৃথ্বীনারায়ণকে সাদরে জাহান করি