পাতা:বিশ্বকোষ দশম খণ্ড.djvu/৬৭১

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


পণস [ ৬১৭ ] পণাস্তীর্থ ৮ খন। ৯ কাৰ্ষাপণ ( ৮•টা কড়ি )। ১০ ক্রফ্যশালা। ১১ ব্যবহার, ক্রয়বিক্রয়াদি । পণ করি আহ। (ত্রি ) ১২ ক্রয়বিক্রয়াদিকারক । ( পুং ) ১৩ শোণ্ডিক । ১৪ গৃহ। ( পণতে অধিকারিভেদেন মুখভোগাদিকং ব্যবহরতি সাধকন্ত মুক্কতামুসারেণ বৈকুণ্ঠবাসাদি ফলং প্রদাতি, পচাদিত্বাদ । ১৫ বিষ্ণু। (ভারত ১৩৷১৪৯৷১১৫ ।) ১৬ বিবাহাদিতে কস্তাকর্তা ধরকর্তাকে অথবা বরকর্তা কস্তাকর্তাকে মর্যাদানুসারে যে টাকা দেয়। পণগ্রন্থি (পুং) পশন্ত বিক্রয়াদেগ্রস্থির্যত্র । ১ হট্ট, হাট।(শধর") পণধ (স্ত্রী) পণ্যাদ্ধাতৃণ। (ভাবপ্র” ) পণন ( ক্লী ) পণ ব্যবহারে লুটু। বিক্রয়। ( শঙ্কর” ) পণফর ( ক্লী ) লগ্নস্থান হইতে দ্বিতীয়, পঞ্চম, অষ্টম ও একা দশ স্থান । “পণফরং দ্বিতীয়াষ্টপঞ্চমৈকাদশং বিহুঃ ।” ( জ্যোতিস্তত্ত্ব ) পণব (পুং ) পণং স্তুতিং বাতীতি পণ-বা-ক। গান্ধন-পটছ, একপ্রকার বাদ্যযন্ত্র । “ততঃ শঙ্খাশ্চ ভেৰ্য্যশ্চ পণবানকগোমুখাঃ । সহসৈবাভ্যহন্তস্ত স শব্দস্তুমুলোইতবৎ ॥” ( গীত ১।১৩) পশব শব্দের কেহ কেহ প্রণব এইরূপ অর্থ করিয়া থাকেন। পণবন্ধ (পুং ) পণন্ত বন্ধঃ । গ্রহ (হুড় ), নিয়মবিশেষে বন্ধন। কোন কার্য্যে মতাস্তুর উপস্থিত হইলে লোকে পণ বা বাঞ্জি রাথিয় থাকে, যদি ইহা এইরূপ হয়, তাহা হইলে অামি এত পণ দিব, এই রূপ নিয়মবন্ধের নাম পণবন্ধ । পণব ( ) পণপ-টাপ্ত। পণব, বাদ্যযন্ত্রভেদ। “পণবঃ পণব চ স্থাৎ প্রণবোহপাত্র বর্ততে ॥”(ভরত দ্বিরূপকোঁধ) পণবিন ( পুং ) মহাদেব । । ভারত ১৩১৭৫৬ ) পণশ(স) ( পুং ) কণ্টালুফলবৃক্ষ । (Artocarpus integri folia) কাটাল গাছ । হিন্দী-কটহর, মহারাষ্ট্র—ফণম, কর্ণাট— হল-সিন, তৈলঙ্গ—উৎপনস, তামিল—পিল্লা। ইহার গুণ—ফল মধুর, পিচ্ছিল, গুরু, হৃষ্ঠ, বলবীৰ্য্যবৃদ্ধিকর, শ্রম, দাহ ও শোযম, রুচিকর, গ্রাহক ও দুর্জর। ইহার বীজগুণ ঈষৎ কথায়, মধুর, বাতল, গুরু ও স্বগৃদোষনাশক। বাল পণশক্ষল— ( কচি এচড়ের ) গুণ-নীরস ও হৃদ্ধ । মধ্যপক গুণ—দীপন, রুচিকর ও লবণাদি যুক্ত । ( রাজনি” ব” ১১ ) পঙ্কফল রক্তবদ্ধক, মধুর, শীতল, দুর্জর, বাতপিত্তনাশক, শ্লেম, শুক্র ও বল কর । ইহার মজ্জাগুণ ( কাঠালের ভূতি ) শুক্রল, ত্রিদোষনাশক, গুল্মরোগে বিশেষ হিতকর । ইহার কাথ মাংসএস্থিশোফে হিতকর । ইহার কোমল পল্লৰ চৰ্ম্মরোগে হিতকর । পনস (পুং ) পণায়তে ইতি পণ-অসছ (অত্যবিচনীতি। উ* ৩।১১৭ ) পণ্যদ্রব্য i ~==`-= পশস্ত্রী ( স্ত্রী) পলম নেলা । ধন ৰায় নীলাভ হয়, কুলটা, বেঞ্চ । * পণস্য, অর্চন। ( নিৰন্ট) ত্বাদি, পরীষ্ম, সেটু। লটু পশগুতি। লো পশস্ততু। লুঞ্জ অপশসৗৎ । পশসা এই ধাতুর শকার भूकंमा १ ७ नखा न करें इछ । পণাতীর্থ, গৌড়ীয় বৈষ্ণবদিগের একটা পবিত্র তীর্থ। গ্ৰহট্টের মুনামগঞ্জ সব-ডিভিসনের অধীন লাউড় পরগণা, লাউড়ের পৰ্ব্বতের অধিত্যক প্রদেশে পশাঁতীৰ্থ । পণা একট প্রস্রবণ মাত্র, প্রতি বায়ণীযোগে অনেক লোক এখানে স্নাম তৰ্পণ করিয়া থাকে । শাস্তিপুরের প্রসিদ্ধ অদ্বৈতাচার্য প্রভুর জন্মস্থান লাউড় ছিল, পরে তিনি শাস্তিপুরে গমন করেন। তৎকর্তৃক লাউড়ে এই পণতীর্থ প্রতিষ্ঠিত হয়। ঈশাননগরের অদ্বৈতপ্রকাশ নামক গ্রন্থে এই তীর্থোৎপত্ত্বিবিবরণ এইরূপ লিখিত আছে, যথা— "শ্রীলাউড় ধাম হয় কারণ রত্নাকর। যাহা অদ্বৈতচঞ্জের বাল্যলীলোদয় ॥ একদিন শুন এক অপুৰ্ব্ব আখ্যান। পুত্র কোলে করি নাভা করিলা শয়ন ॥ রাত্রিশেষে স্বপ্ন দেখে অতি চমৎকার । নিজপুত্র কোলে যেই সেই শিবাধার ॥. সেই অলৌকিক মূৰ্হি দেখি নাভা সতী । অষ্ট অঙ্গে দগুবৎ করিয়া প্ৰণতি ॥. নাভ কছে দেছ ক্ষুয৷ শ্ৰীচরণোদক । প্রভু কছে গুরু হয় জননী জনক ॥ নাভা কহে তুষ্ট জগদগুরু সদাশিব । ঘটে ঘটে আছ নিত্য ঠএpা বহু জীব ॥.•• অতএব পাদোদক দেই প্ৰভু মোরে । প্রভু কঙ্গে ঐছে বাত না কচ পুনৰ্ব্বারে ॥ কহ যদি হানি দিব সৰ্পর্তীর্থগণ । স্নান পান করি কর ধৰ্ম্ম প্রবর্তন ॥ এহেন অদ্ভুত স্বপ্ন করি দরশন। জাগিয়া বসিলা নাভি স্মরি নারায়ণ ॥ কহে কি আশ্চর্য্য আজি দেথি শ্বপনে । প্রভাতে স্বপন সত্য জ্যোতিষ প্রমাণে ॥• • • এত কহি অপরূপ স্বপ্ন বিবরণ । আদ্যোপাস্ত কহি কৈলা অশ্র বিসর্জন ॥ (অদ্বৈত ) প্রভু কহে মাত করি এই পণ । সৰ্ব্বতীর্থ আনি ছেথায় করিমু স্থাপন ॥ শুনি সিহরিয়া কহে নাভা ঠাকুরাণী । এত হইলে বাছ। স্বপ্ন সত্য করি মানি ॥ প্রভু কহে আজি নিশায় আনিব সব তীর্থ। কাল স্নান করি সিদ্ধ করহ সৰ্ব্বার্থ। নাভা কহে এই বাক্য কে করে প্রতায় । প্রস্তু কহে এই বাক্য সত্য সত্য হয় ।