পাতা:বিশ্বকোষ পঞ্চম খণ্ড.djvu/১৭১

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


§ 分夺 [ مواجن 鬱 g j গঞ্জ بایسنس অৰ্দ্ধপরিমিত স্থূলতাবিশিষ্ট থামের ৩ হাত মাটিতে প্রোথিত করিবে ও উপরে ৬ হাত রাখিবে। যে হস্তী এই খামটকে ভাঙ্গিতে পারে বা উঠাইয়া ফেলিতে পারে, তাহাকে হীনবল বলে। এই প্রকার বলপরীক্ষা দ্বারা হস্তী যুদ্ধ প্রভৃতি কার্যো কিরূপ উপযুক্ত ও বলশালী হইবে, তাহার পরীক্ষ। করিতে হইবে। শুভদিনে শুভলগ্নে হাতীকে গৈরিক রঙে রঞ্জিত করিয়া কর্ণে চামর শঙ্খ প্রভৃতি মনোহর ੋ পরাইয়া দিবে। হস্তিপক হস্তী চালাইতে আরস্ত করিবে এবং উভয় পাশ্বে সহস্ৰ সহস্ৰ লোক কোলাহল করিতে থাকিবে । যে হস্তী হস্তিপকের অঙ্কুশাঘাতে উৎসাহিত হইয়। মুখ উন্নত করিবে এবং হেলিয়া ফুলিয়া পা ফেলিয়। চালতে,থাকিবে, যাহার বেগ কৃত আস্ফোটে দন্তে কষ্টমড়ি শব্দ হইবে, অস্কুশাঘাতে যে কিছুমাত্রও বেদন অন্তু ভব করে না, যে হাতী কখনও রণস্থল হইতে পলায়ন বা ভয়ে প্রত্যাগমন করে না, যাহার কণ্ঠনাদে সমস্ত দিষ্মণ্ডল আচ্ছন্ন হইয় উঠে, এবং মদজলস্রাবে যাহার কপোল পূর্ণ হয়, সেই ছাৰ্তাই বলশালী জানিবে। যে হাতী গজমালাযুক্ত পদাতি ও অশ্বসমূহের কোলাহল শুনিতে পাইলে রোষে চক্ষু রক্তবর্ণ করিয়া তাহাদিগের প্রতি লক্ষ্য রাথিয় কর্ণ পল্লব নিশ্চল ও বিস্তারিত করিয়া অতি দ্রুতবেগে বিপক্ষ দলের প্রতি গমন করে, ঋষিরা তাহাকেও প্রভূত বলশালী বলিয়া প্রশংসা করিয়াছেন। যে সকল কুঞ্জরগণের সিংহাক্কতি বন্যজস্তু দেখিলে ও ভীতির সঞ্চার হয় না, যাহারা কৃত্রিম হস্তাদিগকে অনায়াসেই ছিন্ন ভিন্ন করিয়া ফেলে, তাহারাই উত্তম। যাহারা বড় বড় পক্ষী শ্রেণীর শব্দে বা দাবানলে ভীত না হইয়া নিঃশব্দে অবলীলাক্রমে বনে বিচরণ করির থাকে, তহ্যের মধ্যম এবং যাহার। তয়ে আরোহীকে পৃষ্ঠে লাইতে চাহে না, মাথা ষ্টেট করিয়া থাকে, সেই হাতীগুলি একেবারে নিকৃষ্ট । প্রাচীন.ঋষির উৎকৃষ্ট হস্তীকে দ্বাদশ ভাগে বিভক্ত করিরাছেন। যথা—১ রম্য, ২ ভীম, ৩ ধ্বজ, ৪ অধীর, ৫ বীর, ৬ শুর. ৭ অষ্টমঙ্গল, ৮ মুননা, ৯ সৰ্ব্বতেভদ্র, ১• স্থির, ১১ গম্ভীরবেদী, ১২ বরারোহ। যে হস্তীয় শরীর গঠন অতিশয় সুন্দর ও সুশৃঙ্খলারুদ্ধ, ऎाउ গুলি মনোহয়, শরীর বৃহৎ ও তেজস্বিত্যপূর্ণ এবং দেখিতে, অতিশয় হৃষ্টপুষ্ট, তাছাকে য়ম্যক বলে, ইছারা সম্পত্তির বৃদ্ধি করে। - cष इर्खेौ अछू*iनिब बांझ१ थशरद्र७ cवमनां अश्छ्रु | করে না এবং শুদ্ধ লক্ষণযুক্ত, তাহাকে স্ট্রম বলে, ইছারা ब्राछींबू जुर्दुीर्षनिकि कtग्न । যে হস্তীর গুড় হইতে লাঙ্গুল পৰ্য্যস্ত একটী রেখা দেখিতে श्रृंi Sग्नां पाङ्ग, সেই শুদ্ধহস্তীকে ধ্বজ বলে, ইহা সাম্রাজ্য ও দীর্ঘজীবনদায়ক । যাহার কুন্তু ছুইটী পরস্পর সমান, দেখিতে খরাকৃতি, আবর্তবিশিষ্ট ও আবর্তস্থানে উন্নত, সেই কুঞ্জরকে অধীর বলে । এই হস্তী রাজাদিগের অমঙ্গলকারক । যে কুঞ্জরের পৃষ্ঠ হইতে নাভি পর্য্যস্ত আবর্ত থাকে, দেহ পুষ্ট ও বলশালী, তাছাকে বীর বলে । ইহাতে রাজাদিগের অভিলখিত বিযয়ের সিদ্ধি হয় । যে হস্তীর পরিমাণ বৃহৎ, দেহ পুষ্ট, দস্ত ও গণ্ডদেশ মনোহর, আহার করিলেই পরিশ্রম বোধ হয় ও যাহার বল অতিশয়, সেই হস্তীকে শূর বলে । ইহাতে রাজলক্ষ্মীর বৃদ্ধি হয় । যাহার দন্তযুগল নখ ও পুচ্ছ শ্বেতবর্ণ, যাহার শরীরে শ্বেতবর্ণ রেখা থাকে, যাহার কুম্ভ, চক্ষু ও পুংচিহ্ন রক্তবর্ণ, সেই হস্তীকে অষ্টমঙ্গল বলে। এই অষ্টমঙ্গল হস্তী যাহার ঘরে থাকে, তিনি সমস্ত পৃথিবীমণ্ডলেয় অধীশ্বর হইতে পারেন। এ হস্তী যথায় বাস করে, তথায় অরিষ্ট বা অনীতি থাকে না এবং তথা হইতে শতযোজন পর্য্যস্ত অমঙ্গল বিনষ্ট হয়। কলিকালের রাজগণেয় পুণ্যের অংশটা বড়ই কম, কাজেই এযুগে আৰু অষ্টমঙ্গল হস্তী দেখিতে পাওয়া যায় না । যে হস্তীর মাংস ভেদ করিলে, কি রক্তস্রাব হইলে অথব{ মাংস কাটিয়া লইলেও জানিতে পারেন। অর্থাৎ গ্রাহ করে ন}, তাহাকেই গম্ভীরবেদী হস্তী কহে । দস্তদ্বয়, শুও, কুস্তদ্বয় এবং দেহ ও গণ্ড মধ্যে বা গগুদ্ধয়ে আবৰ্ত্ত থাকুিলে সেই হস্তী শুভলক্ষণাক্রান্ত হয়। যে সকল হস্তীর গণ্ডদেশ নিরস্তর মদম্রাবে পরিপ্লত থাকে, তীক্ষ অঙ্কুশ প্রহারেও যাহাদিগকে নিবারণ করিতে কষ্ট হয়, যাহার অপর হস্তী দেখিলেও রাগে ফুলিয় উঠে। যাহাদের শব্দ সজলজলদপটলের স্যায় গম্ভীর, সেই সকল হস্তীই রাজাদিগের সুখকর হইয়া থাকে । - দুষ্ট হস্তী বিংশতিভাগে বিভক্ত—১ দীন, ২ ক্ষীণ, ৩ বিধম, ৪ বিরূপ, এ বিকল, ৬ থর, ৭ বিমদ, ৮ ধমাপক, ৯ কাক, ১• ধূম্র, ১৯ জটিল, ১২ অঞ্জিনী, ১৩ মওলী, भशङब्र, s१ ब्रांश्लेश, २४ به د ,s٩{چي ه د ,چقfR 8 ذ মুঘলী, ১৯ জ্ঞালী, ২০ নিঃসত্ব । - যাহার দেহ অত্যন্ত ক্ষীণ ও প্রভাশূন্ত এবং སྣ་ཧྥུ་ཨུ་ཧི། ক্ষুদ্র ক্ষুত্র ও অত্যন্ত ক্ষীণ, সেই হস্তীকে দীন ৰলে : ই হার্তা গৃহে থাকিলে রাজাকে দরিদ্র হইতে হয়। ’