পাতা:বিশ্বকোষ পঞ্চম খণ্ড.djvu/১৭২

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


so o * t is शंख्न স্বাহার শুড় খৰ্ব্ব, পুচ্ছ বৃহৎ ও নিশ্বাসবেগ অল্প, তাছাকে ক্ষীণ বলে। ইহা গৃহে থাকিলে ধনসম্পত্তি নষ্ট হয়। যাহার কুম্ভ, দস্ত, চক্ষু, কর্ণ বা পার্শ্বদ্বয় পরস্পর অসমান, সেই হস্তীকে বিষম কহে। ইহা সৰ্পের ন্তায় ক্ষয়কারক। যাহার স্কলাদেশ হইতে মস্তক পর্য্যস্ত ক্ষীণ ও পশ্চাৎভাগ স্থল, তাহাকে বিৰূপ হস্তী কহে। ইহা ঘরে থাকিলে রাজার রাজ্যচ্যুতি ও বল হানি হয়। অনেক ভোগেও যাহার মদক্ষরণ দেখিতে পাওয়া যায় না, যে হস্তী যুদ্ধ সময়ে বলপ্রকাশ করে না, তাহাকে বিকল কহে, এইরূপ হস্তীকে পঙ্কিত্যাগ করা উচিত । যাহার শরীরে খরতা স্বাভাবিক বলিয়া বোধ হয় এবং দাত ও গুড়ট অপেক্ষাকৃত ছোট ; তাছাকে থর বলে। ইহা গৃহে স্থান পাইলে কুলক্ষয় হয়। যে হাতীর মদম্রাব এককালেই হয় না, হইলেও অকালে হয় এবং যে হস্তী দেখিতে নিতান্ত কুৎসিত ও অবশ, তাহাকে বিমদ বলে। ইহা পরিত্যাগ করাই বিধেয় । ষে হস্তীর পরিমাণ লঘু, অঙ্গ সকল ক্ষীণ, শুড়, শিরা ও উদর অপেক্ষাকৃত ছোট, যে ব্যগ্রভাবে অবিশ্রাস্ত নিশ্বাস श्रब्रिज्राश कब्रिग्न थाप्रु, शाहाज्ञ झकू श्हेप्ड अनशजउहे মল নিৰ্গত হয়, যাহার কোমর ও পুচ্ছের অগ্রভাগে আবৰ্ত্ত বা মণ্ডল থাকে, যাহার লিঙ্গ নিশ্চেষ্ট অথচ সৰ্ব্বদা বহির্গত থাকে, তাহাকে ধ্যাপক হস্তী বলে । ইহা হস্তীর মধ্যে অতিশর নিকৃষ্ট। যিনি আপনার শ্ৰীবৃদ্ধি ও শরীরের আরোগ্য অভিলাষ করেন, সেই নয়পতি এই ধ্যাপক হস্তীকে দর্শনও করিবেন না । ষে হস্তীর শঙ্খদেশ অর্থাৎ ললাটস্থ অস্থিফলকদ্বয় ভগ্ন, যাহার স্কন্ধদেশ অতিশয় উচ্চ, সেই হস্তীকে কাক বলে। ইহা প্রভুর মৃত্যুকারক। যে হাতীর দাত দুইটী বিষম ললাটাস্থিগত গুওবিরোধী, স্বয়ং ভিন্ন বা বিদীর্ণ এবং শুষ্ঠাস্তুর, সেই গজাধমকে ধূম্ৰ বলে। ইহার ফল কাকের সমান। যে হস্তীর মস্তকের কেশ কর্কশ, রূক্ষ ও জটার ন্যায় আকারধারী, তাহাকে জটিল হস্তী বলে। ইহাতে ধন क्रम्न छ्ख्न । যাহা স্কন্ধ বা গাত্ৰচৰ্ম্ম লগ্ন বলিয়া বোধ হয়, তাহাকে अबिनैौ वरण। ऐश बांब्रा ब्राङांद्र छूमिभद्र ७ ५नकद्र श्छ। शिनि €ौदूरुिद्र अङिगाशै, उिनि आहे छाऊँौद्र श्रूँौएक ग्णन या দর্শন করিবেন মা। - মে দ্বতীয় দেহে একটা ইটা বা অনেকগুলি মওল থাকে v - 8S) अरु९ cगरे म७ण७णि यति तिक्रण र ऊँझङ इङ्ग, छाव cगरे হস্তীকে মণ্ডলী কহে ; ইহা কুলনাশক। • সেই মণ্ডলগুলি যে হস্তীর শ্বেতবর্ণ, তাহাকে খিত্রী বলে। हेशं शृंrश् थाकिरण ५नमां* श्ब्र। যে হস্তীর হৃদয়ে, উদরে, ত্রিকদেশে, পুচ্ছমূলে, গুহদেশে, शिष्त्र या श्रद्दन श्रोदर्ड७णि नछे श्हेग्ना शोन्न ? ठोक्ष्एक হতাবৰ্ত্ত বলে। ইহা রাজাদিগের লক্ষ্মীঐ বিনাশ করে এবং নরপতিকে যোগী, প্রবাসী বা উপদ্রুত করিয়া তোলে। যে হস্তীর গমনকালে ওলফয় মুহুমুহ পরস্পর সংঘর্ষণ হইতে থাকে, তাহাকে মহাভয় বলে। এই হস্তী সকল লক্ষণযুক্ত ও গুণশালী হইলেও ইহাকে পরিত্যাগ করা উচিত। মহাভয় হস্তী গৃহে থাকিলে রাজ্য, ধন, কুল, সৈন্ত, মিত্র, পত্নী ও প্রজা দৃষ্টিমাত্রেই নষ্ট হয়। ইহা যে দেশে থাকে, তথাকার লোকও দিন দিন বিনাশ প্রাপ্ত হয় এবং সেই স্থানে বঙ্গভর, ব্যাধিভয় ও অগ্নিভর উপস্থিত হয়। যে হস্তী অত্যন্ত তাড়িত হইয়াও গমন করিতে চাহে না, যাহার পৃষ্ঠ হইতে উদর পর্য্যন্ত গোলাকার রেখা দেখিতে পাওয়া যার, চলিবার সমর অগ্রপদের স্থানে পশ্চাৎপদ পতিত হয়, তাহাকে রাষ্ট্রন্থা বলে । যে রাজ্য আপনার শ্ৰীবৃদ্ধির অভিলাষ করেন, তিনি এইরূপ হস্তীকে রাজ্য হইতেও তাড়াইরা দিবেন। এই হস্তী যে রাজ্যে বা যে প্রদেশে ঘাস করে, অল্প দিন মধ্যেই তাহ বিনাশ প্রাপ্ত হয়। যাহার পদ করথানি পরস্পর অসমান, দাত ছুইটী যিষম, পঞ্জর সকলের মধ্যে একটা দুইট বা সমস্তগুলিই ভগ্ন, যাহার দস্তদ্বয় নড়িয়া থাকে বা বছে না এবং যাহার কুম্ভ দুইটী শ্বেতবর্ণ, সেই হস্তীর নাম মুঘলী। ইহা রাজ্যে থাকিলে রাজ্য, দুর্গ, সৈন্ত ও অমাত্যগণের বিনাশ হয়। এইরূপ দুষ্ট হস্তী একান্তই পরিত্যাগ করা উচিত। যে হাতীর কপালের চামড়া অতিশয় কর্কশ বলিয়া বোধ হয়, তাহাকে ভালী বলে। ইহা স্বামীর কুল ও ধমক্ষয় করে। ষে হস্তীর শরীর পুষ্ট ও বিশাল, দন্ত ছুইটী সুন্দর, ৰে হাতী রণসাজে সজ্জিত, উৎসাহিত ও বাহক কর্তৃক চালিত হইয়াও যুদ্ধ করিতে সাহসী হয় না, তাছাকে নিঃসৰ বলে। হাতীর যত প্রকার দোষের উল্লেখ করা হইয়াছে, তাছার মধ্যে এই দোষই সৰ্ব্বাপেক্ষা প্রধান । * রাজগণ দুষ্ট হাতী কখনই অবলোকন করিবেন না। ইহাদিগকে পর রাজ্যে গচ্ছিত রাখিবেন বা নগর হইতে বহিষ্কৃত করিবেন অথবা শুদ্ধ ব্রাহ্মণদিগকে বা বিশুদ্ধগশককে थशांन कब्रिtबन । बनि ८कांन नमप्न्न इहे शउँौ प्रांजांब्र शूटेि