পাতা:বিশ্বকোষ পঞ্চম খণ্ড.djvu/২৮২

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


• , গৰ্হাকোট গৰ্ব্বেয় নামান্তয় মদ, ইহা প্রভূত্ব, ধন, বিদ্যা, সৎকুলজাতত্ব প্রভৃতি ৰায় উৎপন্ন হয়। অবজ্ঞা, বিলাসের সহিত অঙ্গদর্শন ও অবিনয়াদি প্রকাশ করে । ( সাহিত্যা ৩ প" ) গৰ্ব্বণ (পুং ) একটা পৰ্ব্বতের নাম । গৰ্বর্বর ( পুং ) গীৰ্য্যতে ইতি গু নিগরণে ঘরছ। (কৃষ্ণু বৃ চতিভ্য: ঘরছ। উল্ ২।১২৩ ৷ ) ১ অহঙ্কার । গৰ্ব্বরোহতাস্তীতি অচ। ২ নায়ক। (ত্ৰি ) ৩ অহঙ্কারী। গৰ্বাট (পুং) গৰ্ব্বেণ অটতি অট-আচু। শকন্ধাদিত্বাং অকারলেপি: দ্বারপাল । ( ত্রিকাগুশেব ) । গৰ্ব্বালাবু (স্ত্রী) পাতাল গরুড়ী। গৰ্ব্বিত (ত্রি) গৰ্ব্ব-কর্ডরি ক্ত। যা গৰ্ব্বোংস্ত সঞ্জাত ইতচ। গৰ্ব্বযুক্ত, অহঙ্কত । “কোহর্থন প্রাপ্য ন গৰ্বিবতঃ ” ( পঞ্চরত্ন )। গৰ্ব্বিন ( ত্রি ) গপোহন্তান্তীতি ইনি। গৰ্ব্বযুক্ত । গরহকৃ । আরবী) অন্যায়, অনুপযুক্ত। গৰ্হণ (ক্লী ) গৰ্হ কুৎসনে ভাবে লুটু। নিনা । (অমর) । “শত্রুভিগৰ্হণং সংথ্যে পুত্ৰস্ত মরণং তথা " ( उद्मि उ ५ २।२९२ अ: ) ।। গহণা (স্ত্রী ) গৰ্হ-ভাবে যুচ টাপ্‌। নিন্দ । গৰ্হণীয় ( fত্র ) গৰ্হ অনীয়র। নিন্দনীয়। “নচন্তৈ গৰ্হণীয় হি গৰ্হিতব্যাঃ স্ক্রিয়; কচিৎ।” ( ভারত, বনপৰ্ব্ব । ) গৰ্হ! (স্ত্রী) গৰ্হাতে ইতি গৰ্হ-অ । (গুরোশ্চ হল: । পা ৩৩১০২ ) ততষ্টাপ। নিন্দ । “পুণ্যং প্রাণান্‌ ধারয়তি পুণ্যং প্রাণদমুচ্যতে । যেন যেনাচরেদ্ধৰ্ম্মং তস্মিন গহা ন বিদ্যুতে।” ( ভারত ১।১৫৫ অ: ) গৰ্হা, মধ্যভারতের গুণ উপবিভাগের অন্তর্গত একটা ক্ষুদ্র রাজ্য। লোকসংখ্যা প্রায় এক সহস্ৰ হইবে । পূৰ্ব্বে ইহা রাখুগড় জায়গীরের অন্তর্গত ছিল । ১৮৪৩ খৃষ্টাব্দে রাজপুত খ্ৰীচিবংশীয় তিন জনের অংশে পড়ে । এখন গোয়ালিয়র এজেন্সির অধীন একটী করদরাজ্য । গৰ্হার রাজা বলভদ্র সিংহের নাবালক অবস্থায় গুনার পলিটিকেল এসিষ্টটের অধীন একজন কামদার রাজকাৰ্য্য সম্পন্ন করিতেন । গৰ্হাকলান, উত্তরপশ্চিমাঞ্চলের বান্দাজেলার অন্তর্গত একটা গ্রাম। ইছায় অধিকাংশ অধিবাসীই ব্রাহ্মণ ও চামার। e •• বৎসরেয় অধিক হইল এই গ্রাম স্থাপিত হইয়াছে। সিপাহীবিদ্রোহের সময় এই গ্রামেয় লোকের রসদ যোগাইতে পারে নাই বলিয়া করবীর নারায়ণরাও এই গ্রাম দগ্ধ করেন । গৰ্হাকোট (গড়াকোট) মধ্যভারতের সাগরজেলার অন্তর্গত [ ર૦ ] গৰ্হাকোট একটী বিভাগ। ইহার প্রধান নগর গৰ্হাকোট। সোণার ও গধাইচি নদীর সঙ্গমে অক্ষা ২৩° ৪৭’ উঃ ও দ্রাঘি ৭৯ ১১৩° পূ: মধ্যে সাগরনগর হইতে ১৩ ক্রোশ পূৰ্ব্বে অবস্থিত। নগরট সম্ভবতঃ গোড়জাতি কর্তৃক নিৰ্ম্মিত হয়। ১৬২৯ খৃষ্টাব্দে চন্দ্রশাহ নামে বুন্দেলখণ্ডের একজন রাজপুত সামন্ত গোড়দিগকে তাড়াইয়া এই স্থান অধিকার করিয়া একটা দুর্গ নিৰ্ম্মাণ করেন। পঞ্চার বুন্দেল য়াজ ছত্র সালেয় পুত্র হৃদয়শাহ চন্দ্রশাহবংশীয় কোন রাজীকে রেহলির অন্তর্গত নাইওবান গ্রাম অৰ্পণ করিয়৷ গৰ্হাকোট নগরট গ্রহণ করেন । হৃদয়শাহ নদীর অপরপারে আর একটা দুর্গ ও নগর নিৰ্ম্মাণ করিয়া তাহার নাম হিরদি ( হৃদয় ) নগর রাখেন। ১৭৩৯ খৃষ্টাব্দে হৃদয়শার মৃত্যু হয়। পাঁচবৎসর পরে শোভাসিংহ ও তাহার ছোট ভ্রাত পৃথ্বীসিংহ উভয়ের মধ্যে বিবাদ হইল। পৃথ্বীসিংহ পেশবার সাহায্যে নিজে রাজা হইলেন। ১৮২০ খৃষ্টাব্দে নাগপুরের রাজা দুর্গ আক্রমণ করিলে পৃথ্বীসিংহের বংশীয় মৰ্দ্ধনসিংহ যুদ্ধে নিহত হন। মদনসিংহের পুত্র অর্জুনসিংহ সিন্ধিয়ার আশ্রয় গ্রহণ করেন। কর্ণেল জিয়ান ব্যাপ্তিস্ত নামক একজন য়ুরোপীয় সেনাপতির অধীনে সিন্ধিয়া একদল সেনা পাঠাইয়া দিলেন। যুদ্ধে নাগপুরসেনা পরাজিত হইলে সিন্ধিয়া মাল্গন ও গহাকোট অধিকায় করিয়া শাহগড় ও অন্যান্য প্রদেশ অৰ্জুনসিংহকে অৰ্পণ করিলেন। ব্যাপ্তিস্ত সাহেব গৰ্হা: কোটের দুর্গে সসৈন্যে অবস্থান করিতে লাগিলেন । কিছু দিন পরে অর্জুনসিংহ বিশ্বাসঘাতকতা ও কৌশল অবলম্বন করিয়া দুর্গ অধিকার করিয়া লন। ছয়মাস পরে জেনেরল ওয়াটসন একদল ইংরাজসেনা লইয়র্তাহাকে তাড়াইয়া দেন । রাজ্যটা সিন্ধিয়ার অধিকারভুক্ত রছিল, কিন্তু ইংরাজ গবৰ্মেট কর্তৃত্ব করিতে লাগিলেন। ১৮৬১ খৃষ্টাব্দে সিন্ধিয়াকে অনাস্তান দিয়া বৃটিশ গবর্মেটি নিজ অধিকারভুক্ত করিয়া লন । নগরট এক্ষণে দুইভাগে বিভক্ত। মধ্যে সোণার নদী । অপর পfরে হিরদিনগরে প্রধান বাণিজ্যস্থান । এখানে স্ত্রীলোকদিগের পরিধেয় আধিব ও পট্রি নামক লাল কাপড় প্রস্তুত হয়। প্রতি শুক্রযারে এখানে হাট বসে । এতদ্ব্যতীত এখানে পৌষমাসে একট প্রকfও মেলা হয় ; প্রার দেড় মাস কাল থাকে। উছাতে প্রায় ৩০ ০০০ লোক উপস্থিত হয় । সোণায় ও গধাইরি নদীর সঙ্গমস্থলে উচ্চভূমির উপর দুর্গ নিৰ্ম্মিত। তাহাতে অনেক গৃহাদি আছে । ১৮৫৮ খৃষ্টাব্দে ইংরাজসেনাপতি সার হিউরোজ ইহা জয় করেন । নগয়ের ১ ক্রোশ উত্তয়ে মৰ্দ্ধনসিংহের