পাতা:বিশ্বকোষ পঞ্চম খণ্ড.djvu/৩০৬

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


*াজা [ ত৯৭ ] গাঁজা t এইরূপ করিয়া পর দিবল ৰেল জুই তিনটার লময় সেইগুলিকে বাণ্ডিল বাধা হয় । স্থলত্ব অঙ্গুলারে এক এক যাণ্ডিলে কখন ও তিন চাপ্লিট, কখন ৮টা বা দশটা করিয়া ফুল পাকে । এইরূপ বাধা হইলে একটী জয়ম পাতিয় তাহার উপর সেই ঘাণ্ডিলগুলি (ফুলের মাথার দিক্‌ পরস্পর মুখামুখি করিয়া ) গোলাকারে সাজান হয় । একটর গায়ে অপর একটী রাখিয়া দেওয়া হয় । তাহার পর ৪৫ জন লোক গল। भग्नां५हि दद्रिब्रां *ः निग्ना cमहै७शि भांफुहेिtङ श्वां८क । বাম পায়ে চাপিয়া ধরে ও দক্ষিণ পা ফুলিয়া জোরে আঘাত করিতে থাকে। অল্পক্ষণ এইরূপ করিলেই গাজাওলি চেপ্টা হইয়া যায়। ভাছার পর আবার আর এক বাণ্ডিল আনিয় তাহার উপর আবার স্লাথিয়া দেওয়া হয় ও সেইরূপ করিয়া মাড়ান হয়। তাহার উপর মাদুর ঢাকা দিয়া দুই তিন জন লোক তাহার উপর বসে। ইহাকে জাগ দেওয়া বলে। জাগ দিলে ফুল তৎসংলগ্ন আঠ বৎ নিৰ্য্যাসে জমাট বাধিয়া যায় ; পত্র ও বীজগুলি বিচ্ছিন্ন হয়। তখন আর একখানি মাদুর বিছাইয়া দুই হস্তে ছুইটী বাণ্ডিল লইয়া পরস্পরে আঘাত করিতে থাকে। তাছাতে বীজ ও পত্রগুলি ঝরিয়া পড়িলে জটাগুলি স্বতন্ত্র একট চেটায় গোলাকারে সাজাইয়া রাখে। তাছাতে পূৰ্ব্বে যে জটাগুলি উপরে ছিল, সেগুলি নিম্নে পড়ে ও যেগুলি উপরে ছিল সেগুলি সৰ্ব্বনিম্নে থাকে। এইরূপ সাজান হইলে আবার মাড়ান ও আবার জাগ দেওয়া হয় । দুই তিনবার জটাগুলি স্বতন্ত্র করিয়া রাখে। তথন বীজ ও পত্রগুলি অঞ্জলি পুরিয়া লইয়া কৃষক দণ্ডায়মান হইয়া অল্প অল্প করিয়া ছাড়িয়া দেয় । তাহাতে বীজগুলি নীচে পড়ে ও পাতাগুলি উড়িয়া যায়। কুবকেরা সেই বীজসংগ্ৰহ করিয়া পর বৎসরের জন্ত রাথিয় দেয় । তাহার পর একখানি চেটাই ৰিছাইয়! কৃষকগণ তাহার উপর দাড়াইয়া चांग°८म झछेt७णि 5ाश्रृिंग्ना श्रुtग्न ७ लभि* श्रृंt मेिं प्लां निम्न দিক্ হইতে উপর দিক্ পর্য্যস্ত পিষিয়া আবার ঝাড়িয়া স্বতন্ত্র করিয়। রাখে। এইরূপ কএকবার করিয়া ঘাসের উপয় চেটাই চাপ দেয়, পর দিবস আসিয়া জড়িত অংশগুলি স্বতন্ত্র করিয়া দেয়। ইহাকে জোড়াভাঙ্গ বলে । স্থই তিন দিন এইরূপ করিবার পর সেগুলি রৌদ্রে দেওয়া হয়। আবার বীজ ও শুষ্ক পত্র সংগৃহীত হয়। তাহাকে খোচা বলে। তাহার পর গাজার গুচ্ছগুয়ি স্বতন্ত্র ब्रांशिघ्नां पञांदांग्न भांप्लांन श्छ । हेशां८क *ाप्लेिङांत्र बाण । পাটিভাঙ্গ হইলে পাতাগুলি ১০টা করিয়া এক এক বাণ্ডিল षांका श्छ । कृशक उपन cनहै७लिएक शां ऊँौ लहेम्नः शिंग्र! cोप्ञ्ज झहे ७रुनि उकाहेब्रा श्रश्त्र छिङग्न बैंitनग्न भाझात्र ভুলিয়া রাখে। গোল গাজা প্রস্তুত করিখার প্রণালীও ঐহ্মপ । সেগুলিও কাটিয়া আনিয়া তাড়া ঘান্ধিয়া চাতরে রৌদ্রে রাখিয়া দেয়। রাত্রেও শিশির খাওয়ান হয়। পর দিঘল যেগুলিতে বড় বড় ফুল হইয়াছে, সেইগুলিকে কাটিয়া কোনট ৩ খণ্ড, কোনটা ৪ খণ্ড, কোনটা বা ৫ খণ্ড করা হয়। আর যে যে গাছে ফুল হয় নাই সেগুলি পরিত্যক্ত হয়। চেপ্টা গাজ অপেক্ষা ইহাতে আরও অধিক বাছাই করা আবপ্তক। ইহার মনোনীত ফুলগুলি রৌদ্রে শুকাইতে দেওয়া ছয় । অপরান্ধুে সারি সারি দুই চারিট খোটা পুভিয়া জাড়ে আড়ে ধাশ বাধিয়। তাছার দুইপাশ্বে ছুইখালি মাচুর বা চেটাই পাতে ও তাহাতে গণজাগুলি জুইভাগে সারি লারি कब्रिग्नां नांछाँऎप्रां निtउ रुग्न ।। ००ls२ जन 6शांक ८५ोंüॉन्न দুইপাশ্বে দাড়াইয়া গাজাগুলিকে পায়ের চাপ দিয়া য়গড়ইয়৷ গোল করিয়া ফেলে। ইহাকে "একমালাই” বলে । ছোট ছোট বাণ্ডিলগুলি হস্ত দিয়া পাকান হয়। এইরূপে ফুলগুলি গোলাকায় হইলে এক একটা স্বতন্ত্রভাষে রৌদ্রে শুকাইতে হয়। খানিক পরে তাহাদিগকে লইয়া পুনরায় ঐরূপে “জোমালাই” করা হয়। মধ্যে মধ্যে ছাত দিয়া পাকাইতে হয়। ইহাকে “হাতমুট” বলে। পর দিবস আবার শুকাইয়া আবার ঐক্কপ করিতে হয় । ভাহার পর অতি সাবধানে কৌশলপূর্বক “আঁটি” বান্ধিয়া রাখিতে হয় । ইহাকে “সরবাধা” বলে । আঁটিগুলির উপর নিম্নদিকে দড়ি দিয়া দৃঢ়ৰূপে বাধিতে হয়। পর দিবস রৌদ্রে শুকাইয়া কৃষকেরা বাণ্ডিল লইয়া বসিয়া হস্তদ্বারা পাক দিতে থাকে, এই সময় কতক কতক গাজা ভাঙ্গিয়া পড়িয়া যায় । সেগুলির নাম "চুড়", তাহা স্বতন্ত্র বিক্রয় হয়। মধ্যে মধ্যে অঙ্গুলি দিয়া বা চাপড় দিয়া ফুলের সঙ্গে যে সকল শুষ্ক পত্র থাকে, তাছ ঝাড়িয়া দেওয়া হয়। তাহার পর ফুলের দিকে ঢাকা দিয়া বোটায় রৌদ্র খাওয়ান হয়। এইরূপ প্রস্তুত হইলে সেগুলি মাচার তুলিয়া রাখে। পরে বস্তাবলি করিয়া তাহার উপর খড় জড়াইয়া দেয়। গজা প্রস্তুত করিতে রৌদ্রের বিশেষ আবশ্বক, রৌদ্র না থাকিলে অগ্নিতে শুকাইয়া লইলেও চলে । গাজী নানা প্রকারে নষ্ট হইতে পারে । অসময়ে বৃষ্টি झ्हेग्न १८झ्द्र ऐश्रङ्ग कोला भो िव्णभि८श शोझ नश्ले श्रेग्न যায়। বৃষ্টিতে হিরকাটি নামক এক প্রকার পোকা জন্মে,