পাতা:বিশ্বকোষ প্রথম খণ্ড.djvu/১১৩

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


অঙ্গুলি । করিবে। তাহার পর কনিষ্ঠার মূল হইতে সকল অঙ্গুলির উপরের পর্ব দিয়া তর্জনীর মূল পৰ্য্যস্ত জপ করিয়া যাইবে। এতদ্বারা দশবার জপ করা হয়। সনৎকুমার সংহিতায় ইহার প্রমাণ এই,— অনামা মধ্যমারভ্য কনিষ্ঠাদিত এব চ। তর্জনী মূলপৰ্য্যস্তং দশপৰ্ব্বস্ব সংজপেং। একশত আটবার জপ করিতে হইলে পূৰ্ব্বোক্ত নিয়মামুসারে দশ দশবার করিয়া প্রথমে একশত জপ সমাধা করিবে । তাছার পর অনামিকার মূল হইতে সকল অন্ধুলির অগ্রভাগ দিয়া তর্জনীর মধ্যপৰ্ব্ব পর্য্যন্তু আট সংখ্যা গণনা করিবে । ইহাতে একশত আটবার জপ করা হয়। প্রমাণ যথা—অনামা মুলমারভ্য কনিষ্ঠাদিত এব চ। তর্জনী মধ্য পর্য্যস্তমষ্টপৰ্ব্বসু সঞ্জপেৎ । তান্ত্রিক জপের নিয়ম এই অনামিকার মধ্যপর্বে সংখ্যা আরম্ভ করিবে। পরে তাহার মূল, কনিষ্ঠার মূল হইতে সমস্ত পৰ্ব্ব, অনামিকার অগ্রভাগ এবং মধ্যমার উপরের পর্ব হইতে নিয়ে আসিয়া তর্জনীর মূলে জপ সমাপ্ত করিবে। ইহাতে দশবার জপ করা হয়। তর্জনীর অগ্র ও মধ্য পর্কে কদাচ সংখ্যা রাখিবে না, তাহাতে পাপ জন্মে। প্রমাণ যথা,—অনামিকাত্ৰয়ং পৰ্ব্ব কনিষ্ঠাপি ত্রিপর্বিক । মধ্যমায়াশ্চ ত্রিতয়ং তর্জনীমূলপৰ্ব্বণি । তর্জন্তগ্রে তথা মধ্যে যে জপেৎ স ভু পাপকৃৎ । একশত আটবার জপ করিতে হইলে, প্রথমে পূৰ্ব্বোক্ত নিয়মানুসারে একশতবার জপ সমাপ্ত কৱিৰে l তাহার পর অনামিকার মূল হইতে কনিষ্ঠার সমস্ত পৰ্ব্ব এবং অনামিকার ও মধ্যমার অগ্রভাগ দিয়া মধ্যমার মূলে সংখ্যা শেষ করিবে । ইহাতে আটবার জপ করা रुद्ध প্রমাণ যথা,-অনামামুলমারভ্য প্রাদক্ষিণ্য ক্রমেণ চ। মধ্যমমূল পৰ্য্যন্তং জপেদষ্টস্থ পৰ্ব্বস্তু। আমাদের ধৰ্ম্মশাস্ত্রে কথায় কথায় সকল কাজের ব্যবস্থা আছে । শাস্ত্রকারের উপদেশ দিয়াছেন,— ইটের গুড়া, ঢিল, ও পাথর দিয়া এবং অনামিক ও অঙ্গুষ্ট ভিন্ন অন্ত অঙ্গুলি দ্বারা ষ্টাত মাজিবে না। ইষ্টক লোই পাযাশৈরিতরাঙ্গুলিভিস্তথা । ত্যক্ত হানামিকাঙ্গুষ্ঠে বর্জয়েদস্তুধাবনম্। অনামিকাঙ্গুষ্ঠে ত্যক্ত ইতরাঙ্গুলিভিত্তিধাবনং বর্গুয়েদিতিস্মার্তা: | - আমাদের দেশের স্ত্রীলোকেরা লজ্জাতরে অধোমুখী হইলে প্রায় অঙ্গুলি দিয়া মাটা খুঁটিতে থাকেন। বাঙ্গালী [ ૨૭] [ هb ] আঙ্গুলি” স্ত্রীচরিত্রের এ একট প্রধান চিত্র হইয়াছে। বৈদ্যের रुरश्म, cब्रांशैग्न निकै श्हेड मूठ चांजिब्रा यशान्नि চিকিৎসকের সন্মুখে কথা কহিতে কহিতে অঙ্গুলি দ্বারা মাটা খুঁটিতে থাকেন, তবে সে রোগীর পীড়া প্রায় উৎকট হইয়া উঠে। আঙুল হস্তপদের শাখা বা অগ্রভাগ । মামুষের । দুই হাতে পাঁচ পাচ করিয়া দশ আঙুল, পায়েও পাচ পাচ করিয়া দশ আঙুল। হাতে আঙুল আছে বলিয়া আমরা ইচ্ছা করিলে কোন দ্রব্য গ্রহণ করিতে পারি ; গাছ হইতে একটা একটা করিয়া ফুল তুলি ; মাটা হইতে সিকি, দু-আনি, তিল, সরিষা প্রভৃতি ক্ষুদ্র ক্ষুদ্র দ্রব্য খুটিয়া লইতে পারি। আঙুলনা থাকিলে অনেক বিষয়ে আমরা অকৰ্ম্মণ্য হইয়া পড়িতাম । পায়ের অঙ্গুলি দ্বারা এ সকল কাজ হয় না। ভাল করিয়া দাড়াইবার জন্ত, স্বচ্ছনে বেড়াইবার জন্ত, বিধাতা আমাদের পায়ে আঙুল দিয়াছেন । পায়ে আঙুল না থাকিলে হাটবার সময় আমরা ট্রলিয়া পড়িতাম । १. وه ১, কাঁধ হইতে কমুই পৰ্য্যস্ত উপর বাহুর অস্থি (হিউমীয়স ) । ২, কমুই হইতে কজা পৰ্য্যস্ত নিয় বাহুর বুড়ো আঙ্গুলের দিকের হাড় (রেডিয়স ), ৩, ঐ কোড়ে আঙ্গুলের দিকের হাড় (चलन) । यई झहे यहिब्र अक्षाउाप्ण प्ले९मनििशक अर्थ९ উপর কবজার হাড় ( কার্প্যাল বোন্স) । তাহার পর মিয় মণিবন্ধ অর্থাৎ নীচের কজার হাড় ( মেটেকার্প্যাল ষোঙ্গ ) । তৎপরে অঙ্গুলির পর্বের অস্থি (ফ্যাল্যাঞ্জেস । অস্থি, মাংস, পেশী, স্নায়ু, শিরা ও नाङ्गैौष्ठ अत्रूनि গঠিত। এক এক পায়ের ও হাতের অঙ্গুলিতে চোঁদ খানি হাড় আছে । হাতের অঙ্গুলিতে যথা-কনিষ্ঠা, অনামিকা, মধ্যমা এবং তর্জনী, ইহাদের প্রত্যেকে তিন খানি অস্থি । বুড়ে। আঙুলে দুই খানি । আঙুলের এক এক খানি অস্থিকে আমরা পৰ্ব্ব বলি। ইহার চলিত নাম: পাৰ । আঙুলের হাড়গুলি পরস্পর পেশীস্থত্রে গাথা আছে। অস্থির ষোড়ের ভিতর বাড়াল প্রবেশ করিলে cनषांनकांब्र शंख्न गब्रिश बौद्र । cभ*ई भौट्द्रद्र दन, মাংসপেশী দিয়া আমাদের আঙুলঙকঙ্গ আঁটা আছে, ,