পাতা:বিশ্বকোষ প্রথম খণ্ড.djvu/১৭১

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


আতিবেণিাত্ত g [584 J আতিশক্তিতা । প্রশ্ৰয়প্রাপ্ত নবোঢ়া নায়িকা। স্বীয়ান্তর্গত মধ্য নায়িকা বিশেষ। সামান্যতঃ নবোঢ় চারি প্রকার, স্বকীয়া নবোঢ়া, পরকীয়া নবোঢ়া, সামান্য নবোঢ়া এবং বিশ্রদ্ধ নবোঢ়া । ‘নায়কাতিশয় প্রশ্রয় যুক্তা”—মায়কের অতিশয় প্রশ্ৰয় যুক্ত নায়িকাকে বিঅন্ধ নবোঢ়া বলা যায় । अउिठूख् (छि) अलि ठूङ्-कर्ड-िद्ध, अठिङ्गमा बर्डरङ । অতিক্রান্ত, অতিশক্তি উদ্ভূক্ত। अठिट्रहैिं (जैौ) बलि-जूरु-ङिन् । अठारु वर्ष५, खठिभंग्र বৃষ্টি। শস্য হানির ছয়ট ঈতি অর্থাৎ উৎপাতের মধ্যে অতিবৃষ্টি একটা ষ্ট্ৰতি বলিয়া পরিগণিত হইয়া থাকে। ছয়ট ঈতি এই— অতিবৃষ্টিরনাবৃষ্টি: শলভা মূষিকাঃ খগাঃ । প্রত্যাসল্লাশ্চ রাজানঃ যড়েতে ঈতয়ঃ স্থতাঃ। অতিবৃষ্টি, অনাবৃষ্টি, পতঙ্গ (পঙ্গপাল ), ইন্দুর, পার্থী এবং সসৈন্য নৃপতির আগমন এই ছয়টা ঈতি অর্থাৎ কৃষিকার্য্যের ব্যাঘাত। অতি প্রাচীন কাল হইতে এপর্য্যন্ত যতদূর ইতিহাস পাওয়া যায়, তাহ দেখিলে বোধ হয়, আমাদের দেশে অতিবৃষ্টির চেয়ে অনাবৃষ্টিই কৃষি কাজের অধিক প্রতিবন্ধ। উপরি উপরি দুই বৎসরও সুবর্ষ হইতে দেখা যায় না। ঋগ্বেদের অনেক মন্ত্ৰে ঋষিরা জল প্রার্থনা করিয়াছেন । মার্কণ্ডেয় পুরাণান্তর্গত দেবীমাহাষ্ম্যে ভয়ঙ্কর অনাবৃষ্টির কথা লিখিত আছে— ভূয়শ্চ শতবার্ষিকামনাকৃষ্ট্যামনস্তুসি। মুনিভিঃ সংস্তুত ভূমে সংভবিষ্যাম্যযোনিজা। পুনৰ্ব্বার শতবর্ষব্যাপিনী অনাবৃষ্টির জন্য পৃথিবী জলশূন্য হইলে মুনিগণের স্তবে আমি অযোনিসম্ভব। হইয়া প্রাচুভূত হইব। অতিবৃষ্টি হইলে বাঙ্গালীরা বর্ষণ নিবারণের জন্য নানাপ্রকার উপার করিয়া থাকেন। আজি কালি ইংরাজি পড়িয়া লোকের মত এ বিশ্বাস ফিরিয়া গিয়াছে। কাজেই পূৰ্ব্বকার আচার ব্যবহারও অনেক উঠিয়া যাইতেছে। অতিবৃষ্টি হইলে সে কালের বাঙ্গালীর গ্রামের শিবকে স্নান করাইতেন না, প্রতিদিন কেবল পুষ্পবিপত্রে পূজা করিয়া আসিতেন। যে গ্রামের সঙ্গে পুর আছে (যেমন কাশীপুর) তজপ ১r৮ একশত আট গ্রামের নাম জালত দিয়া তালপত্রে লেখা হইত। পরে, ¢क वाङ्गि बननैौब्र७रुभांद्ध गडांन, छिनि निछागद्र बांग्रैौद्र 徽 মধ্যে সেই নাম ও একটা জবাফুল রাখিয়া এক ডুবে श्रूकद्विगैग्न छरजग्न उिठद्र भूछिब्रां श्रांजिएउन । अछ লোকের বিশ্বাস, এই প্রক্রিয়া করিলে তিন দিনে অরগু বৃষ্টি বন্ধ হয়। { অনাবৃষ্টি দেখ ] । , অতিবেগিত (ত্রি) অতিবেগঃ জাতোহন্ত, তারকাদিত্বাং ইতচু অঙ্কুরিত দেখ ] । জাতাতিবেগ । অতিবেথ (পুং ) অত্যস্তো বেধঃ সম্পর্ক: । একাদশীয় সহিত দশমীর সম্পর্ক বিশেষ। অতিবেল (ত্রি) অতিক্রান্তং বেলাং মৰ্য্যাদাং কুলং বা । অতিক্রাং তৎ। অধিক । অসীম। মৰ্য্যাদাতিক্রান্ত । (অব্যয়ীভাব ) বেলাতিক্রম। अउिरबाष्ट्र (णि) अठि-दश्-छूळू। अठिरश्न रुé, थानक। অতিব্যখন (ক্লী) অতি-ব্যথ-ণিছ লুট্টি, ঘটাদিত্বাৎ হ্রস্ব । [ ঘটাদি দেখ ]। অত্যন্তপীড়ন । অতিব্যয় (ত্রি) অতিশয়িতো ব্যয়ঃ প্রাদি স• । অপরিমিত ব্যয় । শাস্ত্রকারেরা বলেন যে, উপাজ্জিত ধনের অর্ধেক ভরণপোষণের ও নিত্য নৈমিত্তিক কার্য্যের নিমিত্ত ব্যয় করিবে। এক সিকিতে পুণ্য সঞ্চয় করিবে। বাকি এক সিকি অংশ দ্বারা মূলধন বৃদ্ধি করিবে। এই নিয়মের অতিরিক্ত ব্যয় করিলেই তাহাকে অতিব্যয় বলা যায়। অতিশয় ব্যাপন। অধিক ব্যাপ্তি । অলক্ষ্যে লক্ষণ গমন।

  • অলক্ষ্যে লক্ষণগমনমর্তিব্যাপ্তিঃ ।’ লক্ষ্য পদার্থে লক্ষণ যাইয়া অলক্ষ্য পদার্থেও লক্ষণ যাওয়াকে অতিব্যাপ্তি কহে। ইহার তাৎপৰ্য্য এই--একটা বস্তুকে লক্ষ্য করিয়া যদি তাহার লক্ষণাদি নির্দেশ করা যায়, আবার সেই লক্ষণ যদি এমন বস্তুতে খাটে যাহাকে পূৰ্ব্বে লক্ষ্য

कब्रिग्ना cगई णकण निर्किडे इग्न नाहे, ठाय हेशरकहे जफि ব্যাপ্তি বলা যাইতে পারে। যেমন, ‘ শাখাপল্লববত্বং বৃক্ষম যাহা শাখা ও পল্লব বিশিষ্ট তাছাই বৃক্ষ। এখানে বৃক্ষকেই লক্ষ্য করিয়া এই লক্ষণ করা হইয়াছে যে, ডালপালা থাকিলে তাহাকে গাছ বলা যাইবে। কিন্তু এই লক্ষণ লতারও প্রতি খাটিতেছে, অথচ লক্ষণ । कब्रिदांब्र गभग्न गडांप्रू नका रुग्न शञ्च नाहे । शृङङ्गां९ ইহাকে লক্ষণের অতিব্যাপ্তি বলা যায়। অতিশঙ্কর (স্ত্রী) অতিক্রান্ত শৰীং ভয়ামকৰং। একা क्रब्राषिकां९ । भनब्र अकब्र दिनिडे शुद्धिविएश्वव।। ४४ अठिश्वकर्षTाम् (७२१७v) । r অতিশক্তি (স্ত্রী) অতিশল্পিত শক্তিঃ। आयोजकत्व অতিব্যাপ্তি (স্ত্রী) অতিশয়েন লক্ষ্যমলক্ষ্যঞ্চাবিশিষ্য ব্যাপ্তিঃ । ,